বাগেরহাটে ঠিকাদার গুলিবিদ্ধ
jugantor
বাগেরহাটে ঠিকাদার গুলিবিদ্ধ

  বাগেরহাট প্রতিনিধি  

০৯ অক্টোবর ২০২১, ১০:৩৪:১০  |  অনলাইন সংস্করণ

গুলি

বাগেরহাটে সিরাজুল ইসলাম মনক (৪৫) নামে এক ঠিকাদারকে গুলি করেছে দুর্বৃত্তরা।

শুক্রবার সন্ধ্যায় জেলা শহরের কৃষ্ণনগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

গুলিবিদ্ধ সিরাজুল ইসলাম মনক শহরের কৃষ্ণনগরের প্রয়াত আনোয়ার হোসেনের ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে বাগেরহাট গণপূর্ত, এলজিইডিসহ বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠানের কাজ করে আসছেন।

পরিবারের বরাত দিয়ে বাগেরহাটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) মো. আসাদুজ্জামান জানান, সন্ধ্যায় ঠিকাদার সিরাজুল ইসলাম মনক কৃষ্ণনগর এলাকায় রাস্তায় দাঁড়িয়েছিলেন। এ সময় একটি মোটরসাইকেলে আসা দুই ব্যক্তি তাকে লক্ষ্য করে প্রথমে একটি গুলি ছোড়ে। এরপর আরেকটি গুলি চালায়। এসময় সিরাজুলের ডান উরুতে গুলিবিদ্ধ হয়। এরপর ওই দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়।

এসময় স্থানীয়রা গুলিবিদ্ধ সিরাজুলকে উদ্ধার করে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাকে খুলনার একটি বেসরকারি হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

তবে কারা কী কারণে এই ঠিকাদারকে গুলি করে হত্যার চেষ্টা করেছে তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

বাগেরহাট সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) মো. মিরাজুল করিম জানান, ঠিকাদার সিরাজুল ইসলামকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। তার ডান উরুতে একটি গুলির ক্ষত চিহ্ন রয়েছে। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে খুলনায় স্থানান্তর করা হয়।

বাগেরহাটে ঠিকাদার গুলিবিদ্ধ

 বাগেরহাট প্রতিনিধি 
০৯ অক্টোবর ২০২১, ১০:৩৪ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
গুলি
ফাইল ছবি

বাগেরহাটে সিরাজুল ইসলাম মনক (৪৫) নামে এক ঠিকাদারকে গুলি করেছে দুর্বৃত্তরা।

শুক্রবার সন্ধ্যায় জেলা শহরের কৃষ্ণনগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

গুলিবিদ্ধ সিরাজুল ইসলাম মনক শহরের কৃষ্ণনগরের প্রয়াত আনোয়ার হোসেনের ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে বাগেরহাট গণপূর্ত, এলজিইডিসহ বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠানের কাজ করে আসছেন।

পরিবারের বরাত দিয়ে বাগেরহাটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) মো. আসাদুজ্জামান জানান, সন্ধ্যায় ঠিকাদার সিরাজুল ইসলাম মনক কৃষ্ণনগর এলাকায় রাস্তায় দাঁড়িয়েছিলেন। এ সময় একটি মোটরসাইকেলে আসা দুই ব্যক্তি তাকে লক্ষ্য করে প্রথমে একটি গুলি ছোড়ে। এরপর আরেকটি গুলি চালায়। এসময় সিরাজুলের ডান উরুতে গুলিবিদ্ধ হয়। এরপর ওই দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়।

এসময় স্থানীয়রা গুলিবিদ্ধ সিরাজুলকে উদ্ধার করে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাকে খুলনার একটি বেসরকারি হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

তবে কারা কী কারণে এই ঠিকাদারকে গুলি করে হত্যার চেষ্টা করেছে তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

বাগেরহাট সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) মো. মিরাজুল করিম জানান, ঠিকাদার সিরাজুল ইসলামকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। তার ডান উরুতে একটি গুলির ক্ষত চিহ্ন রয়েছে। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে খুলনায় স্থানান্তর করা হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন