কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে আ.লীগ নেতার ছেলে গ্রেফতার
jugantor
কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে আ.লীগ নেতার ছেলে গ্রেফতার

  বগুড়া ব্যুরো  

১১ অক্টোবর ২০২১, ২২:৫০:৩৫  |  অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ার আদমদীঘির সান্তাহারে পৌর আওয়ামী লীগ নেতার ছেলে প্রীতম ভৌমিকের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভনে এক কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।

সোমবার দুপুরে পুলিশ তাকে সান্তাহার মাইক্রোবাস স্ট্যান্ড থেকে গ্রেফতারের পর আদালতের মাধ্যমে বগুড়া জেল হাজতে পাঠিয়েছে। এর আগে ওই ছাত্রী তার বিরুদ্ধে আদমদীঘি থানায় মামলা করেছেন।

এজাহার সূত্র ও স্থানীয়রা জানান, প্রীতম ভৌমিক রথবাড়ী এলাকার বাসিন্দা সান্তাহার পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক প্রদীপ ভৌমিকের ছেলে। স্থানীয় একটি কলেজে যাতায়াতকালে দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রীর (১৯) সঙ্গে প্রীতম ভৌমিকের পরিচয় হয়। পরবর্তীতে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে।

রোববার দুপুর ২টার দিকে প্রীতম বিয়ের প্রলোভনে ওই ছাত্রীকে সান্তাহার খাড়ির ব্রিজ এলাকায় রানা নামে এক ব্যক্তির বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে ধর্ষণ করে সটকে পড়ে। এরপর বিয়ের কথা বললে তিনি তালবাহানা করতে থাকেন। ছাত্রী বাধ্য হয়ে ওই রাতে আদমদীঘি থানায় প্রীতিমের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

সান্তাহার পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক আরিফুল ইসলাম জানান, সান্তাহার মাইক্রোবাস স্ট্যান্ড থেকে আসামি প্রীতিমকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সোমবার দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে বগুড়া জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ছাত্রীকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়।

কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে আ.লীগ নেতার ছেলে গ্রেফতার

 বগুড়া ব্যুরো 
১১ অক্টোবর ২০২১, ১০:৫০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ার আদমদীঘির সান্তাহারে পৌর আওয়ামী লীগ নেতার ছেলে প্রীতম ভৌমিকের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভনে এক কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।

সোমবার দুপুরে পুলিশ তাকে সান্তাহার মাইক্রোবাস স্ট্যান্ড থেকে গ্রেফতারের পর আদালতের মাধ্যমে বগুড়া জেল হাজতে পাঠিয়েছে। এর আগে ওই ছাত্রী তার বিরুদ্ধে আদমদীঘি থানায় মামলা করেছেন।

এজাহার সূত্র ও স্থানীয়রা জানান, প্রীতম ভৌমিক রথবাড়ী এলাকার বাসিন্দা সান্তাহার পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক প্রদীপ ভৌমিকের ছেলে। স্থানীয় একটি কলেজে যাতায়াতকালে দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রীর (১৯) সঙ্গে প্রীতম ভৌমিকের পরিচয় হয়। পরবর্তীতে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে।

রোববার দুপুর ২টার দিকে প্রীতম বিয়ের প্রলোভনে ওই ছাত্রীকে সান্তাহার খাড়ির ব্রিজ এলাকায় রানা নামে এক ব্যক্তির বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে ধর্ষণ করে সটকে পড়ে। এরপর বিয়ের কথা বললে তিনি তালবাহানা করতে থাকেন। ছাত্রী বাধ্য হয়ে ওই রাতে আদমদীঘি থানায় প্রীতিমের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

সান্তাহার পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক আরিফুল ইসলাম জানান, সান্তাহার মাইক্রোবাস স্ট্যান্ড থেকে আসামি প্রীতিমকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সোমবার দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে বগুড়া জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ছাত্রীকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন