নববধূকে নিয়ে ফেরার পথে প্রাণ গেল নানির
jugantor
নববধূকে নিয়ে ফেরার পথে প্রাণ গেল নানির

  কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি  

১৩ অক্টোবর ২০২১, ১৭:২৩:৪৭  |  অনলাইন সংস্করণ

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে নববধূকে বহনকারী কার খাদে পড়ে কনের নানি মহসেনা বেগম নামে এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার রাত ২টায় রংপুর হতে ডালিয়া সড়কের বড়ভিটা পেট্রল পাম্পসংলগ্ন স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। ওই বৃদ্ধা জলঢাকা উপজেলার নেকবক্ত ময়দানপাড়া গ্রামের সামছুল হকের স্ত্রী।

বরের স্বজনরা জানান, কিশোরগঞ্জের কেশবা গ্রামের আমিনুল ইসলামের মঙ্গলবার রাতে জলঢাকার নেকবক্ত ময়দানপাড়া গ্রামে বিয়ে হয়। আনুষ্ঠানিকতা শেষে বর-কনে ও কনের দাদি-নানি একই কারে উঠে রওনা দেন। নববধূকে নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে ওই স্থানে কারের সামনের চাকা পাংচার হয়।

নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে কারটি সড়ক থেকে খাদে পড়ে উল্টে যায়। এতে আঘাত পেয়ে কনের নানি বৃদ্ধা মহসেনার অবস্থা বেগতিক হয়। এ সময় মাইক্রোবাসের যাত্রীরা বর-কনেসহ দুই বৃদ্ধাকে কারের ভিতর থেকে উদ্ধার করেন। পরে কনের নানিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

কিশোরগঞ্জ সদর ইউপি চেয়ারম্যান আনিছুল ইসলাম আনিছ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নিহতের স্বজনদের কোনো অভিযোগ না থাকায় রাতেই লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

নববধূকে নিয়ে ফেরার পথে প্রাণ গেল নানির

 কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি 
১৩ অক্টোবর ২০২১, ০৫:২৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে নববধূকে বহনকারী কার খাদে পড়ে কনের নানি মহসেনা বেগম নামে এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার রাত ২টায় রংপুর হতে ডালিয়া সড়কের বড়ভিটা পেট্রল পাম্পসংলগ্ন স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। ওই বৃদ্ধা জলঢাকা উপজেলার নেকবক্ত ময়দানপাড়া গ্রামের সামছুল হকের স্ত্রী।   

বরের স্বজনরা জানান, কিশোরগঞ্জের কেশবা গ্রামের আমিনুল ইসলামের মঙ্গলবার রাতে জলঢাকার নেকবক্ত ময়দানপাড়া গ্রামে বিয়ে হয়। আনুষ্ঠানিকতা শেষে বর-কনে ও কনের দাদি-নানি একই কারে উঠে রওনা দেন। নববধূকে নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে ওই স্থানে কারের সামনের চাকা পাংচার হয়। 

নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে কারটি সড়ক থেকে খাদে পড়ে উল্টে যায়। এতে আঘাত পেয়ে কনের নানি বৃদ্ধা মহসেনার অবস্থা বেগতিক হয়। এ সময় মাইক্রোবাসের যাত্রীরা বর-কনেসহ দুই বৃদ্ধাকে কারের ভিতর থেকে উদ্ধার করেন। পরে কনের নানিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। 

কিশোরগঞ্জ সদর ইউপি চেয়ারম্যান আনিছুল ইসলাম আনিছ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নিহতের স্বজনদের কোনো অভিযোগ না থাকায় রাতেই লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন