'৪০তম বিসিএসের এএসপি' পরিচয়ে ৩৫ মেয়ের সঙ্গে সম্পর্ক!
jugantor
'৪০তম বিসিএসের এএসপি' পরিচয়ে ৩৫ মেয়ের সঙ্গে সম্পর্ক!

  ফুলপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

১৩ অক্টোবর ২০২১, ১৮:১৬:২২  |  অনলাইন সংস্করণ

ময়মনসিংহের ফুলপুরে ৪০তম বিসিএসের ভুয়া এএসপি পরিচয়ে বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে আসা সোলাইমান কবির (৩৫) নামে এক যুবককে জনতা আটক করে পুলিশে দিয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার রাতে উপজেলার রূপসী গ্রামে। এএসপি পরিচয়ে ওই যুবক ৩৫-৪০ জন মেয়ের সঙ্গে সম্পর্ক করেছে বলে জানায় পুলিশ।

জানা যায়, উপজেলার রূপসী গ্রামের অনার্স ফাইনাল ইয়ারের এক ছাত্রীর সঙ্গে শেরপুর জেলার ঝিনাইগাতি উপজেলার কুচনিপাড়া গ্রামের শাহজাহানের পুত্র প্রতারক সোলাইমান কবিরের ফেসবুকে পরিচয় হয়। সোলাইমান কবির নিজেকে ৪০তম বিসিএসের একজন এএসপি পরিচয় দিয়ে বিয়ের প্রস্তাব দিলে ওই ছাত্রী পরিবারের সঙ্গে কথা বলতে বলেন।

প্রতারক সোলাইমান কবির বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে রূপসী গ্রামের ওই ছাত্রীর বাড়িতে এলে পরিবারের লোকজনের সন্দেহ হওয়ায় আটক করে পুলিশে খবর দেন। পুলিশ তার কাছ থেকে সরকারি বুট, মোবাইল ও মানিব্যাগ উদ্ধারসহ মঙ্গলবার মামলা করে পরদিন আদালতে প্রেরণ করেছেন।

ফুলপুর থানার ওসি মো. আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, সে আমাদেরও ফাঁকি দিয়ে বাঁচার চেষ্টা করেছে। ভুয়াভাবে এএসপির পরিচয়ে কমপক্ষে ৩৫-৪০ জন মেয়ের সঙ্গে সম্পর্ক রেখেছে। তাদেরও সতর্ক করে বাঁচানোর চেষ্টা চলছে।

'৪০তম বিসিএসের এএসপি' পরিচয়ে ৩৫ মেয়ের সঙ্গে সম্পর্ক!

 ফুলপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি  
১৩ অক্টোবর ২০২১, ০৬:১৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ময়মনসিংহের ফুলপুরে ৪০তম বিসিএসের ভুয়া এএসপি পরিচয়ে বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে আসা সোলাইমান কবির (৩৫) নামে এক যুবককে জনতা আটক করে পুলিশে দিয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার রাতে উপজেলার রূপসী গ্রামে। এএসপি পরিচয়ে ওই যুবক ৩৫-৪০ জন মেয়ের সঙ্গে সম্পর্ক করেছে বলে জানায় পুলিশ। 

জানা যায়, উপজেলার রূপসী গ্রামের অনার্স ফাইনাল ইয়ারের এক ছাত্রীর সঙ্গে শেরপুর জেলার ঝিনাইগাতি উপজেলার কুচনিপাড়া গ্রামের শাহজাহানের পুত্র প্রতারক সোলাইমান কবিরের ফেসবুকে পরিচয় হয়। সোলাইমান কবির নিজেকে ৪০তম বিসিএসের একজন এএসপি পরিচয় দিয়ে বিয়ের প্রস্তাব দিলে ওই ছাত্রী পরিবারের সঙ্গে কথা বলতে বলেন।

প্রতারক সোলাইমান কবির বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে রূপসী গ্রামের ওই ছাত্রীর বাড়িতে এলে পরিবারের লোকজনের সন্দেহ হওয়ায় আটক করে পুলিশে খবর দেন। পুলিশ তার কাছ থেকে সরকারি বুট, মোবাইল ও মানিব্যাগ উদ্ধারসহ মঙ্গলবার মামলা করে পরদিন আদালতে প্রেরণ করেছেন। 

ফুলপুর থানার ওসি মো. আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, সে আমাদেরও ফাঁকি দিয়ে বাঁচার চেষ্টা করেছে। ভুয়াভাবে এএসপির পরিচয়ে কমপক্ষে ৩৫-৪০ জন মেয়ের সঙ্গে সম্পর্ক রেখেছে। তাদেরও সতর্ক করে বাঁচানোর চেষ্টা চলছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন