মা-বাবার সঙ্গে নিজ গ্রামে নায়িকা মিম
jugantor
মা-বাবার সঙ্গে নিজ গ্রামে নায়িকা মিম

  বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি  

১৩ অক্টোবর ২০২১, ১৮:৫৯:৫৯  |  অনলাইন সংস্করণ

মা-বাবাকে সঙ্গে নিয়ে দুর্গোৎসবে নিজ গ্রামে এসেছেন চিত্রনায়িকা বিদ্যা সিনহা মিম। এ উৎসবে নাড়ির টানে মা-বাবাকে সঙ্গে নিয়ে রাজশাহীর বাঘা উপজেলার নারায়ণপুর গ্রামে ছুটে এসেছেন তিনি। তার আগমনের খবর শুনে তাকে দেখতে আসেন অসংখ্য ভক্ত।

এ বিষয়ে চিত্রনায়িকা বিদ্যা সিনহা মিম বলেন, লাইট-ক্যামেরা-অ্যাকশন, কাট-মিটিং এসব নিয়েই সারা বছর ব্যস্ত সময় পার করতে হয়। শারদীয় উৎসব শুরু হলে সবকিছু থেকে বিরতি নিয়ে নিজ গ্রামে ছুটে আসি। তবে আমি পেশার প্রতি খুব যত্নশীল। গ্রামকে আমি ভীষণ ভালোবাসি। তাই প্রতি বছর দুর্গোৎসবে ছুটে আসি নিজ গ্রামে। এ সময় আমার অনেক ভক্ত এবং গ্রামের লোকজন আমার সঙ্গে দেখা করতে আসেন। আমি তাদের সঙ্গে কথা বলেও অনেক আনন্দ পাই। আমি চাই বিধাতা সবাইকে ভালো রাখুক।

মিমের মা ছবি সাহা বলেন, শত ব্যস্ততার মাঝেও প্রতি বছর নিজ বাড়িতে আসার চেষ্টা করি। এ সময় বাড়ি এলে ভাই-বোনসহ আত্মীয়স্বজনদের সঙ্গে দেখা হয়। অনেক মজা করি।

মিমের বাবা অবসরপ্রাপ্ত কলেজ অধ্যাপক বিরেন্দ্রনাশ সরকার বলেন, প্রতি বছর আশ্বিন-কার্তিক মাসে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতি বছরের মতো এবারো পূজা উপলক্ষে মেয়ের সঙ্গে গ্রামে ছুটে এসেছি।

মা-বাবার সঙ্গে নিজ গ্রামে নায়িকা মিম

 বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি 
১৩ অক্টোবর ২০২১, ০৬:৫৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মা-বাবাকে সঙ্গে নিয়ে দুর্গোৎসবে নিজ গ্রামে এসেছেন চিত্রনায়িকা বিদ্যা সিনহা মিম। এ উৎসবে নাড়ির টানে মা-বাবাকে সঙ্গে নিয়ে রাজশাহীর বাঘা উপজেলার নারায়ণপুর গ্রামে ছুটে এসেছেন তিনি। তার আগমনের খবর শুনে তাকে দেখতে আসেন অসংখ্য ভক্ত।

এ বিষয়ে চিত্রনায়িকা বিদ্যা সিনহা মিম বলেন, লাইট-ক্যামেরা-অ্যাকশন, কাট-মিটিং এসব নিয়েই সারা বছর ব্যস্ত সময় পার করতে হয়। শারদীয় উৎসব শুরু হলে সবকিছু থেকে বিরতি নিয়ে নিজ গ্রামে ছুটে আসি। তবে আমি পেশার প্রতি খুব যত্নশীল। গ্রামকে আমি ভীষণ ভালোবাসি। তাই প্রতি বছর দুর্গোৎসবে ছুটে আসি নিজ গ্রামে। এ সময় আমার অনেক ভক্ত এবং গ্রামের লোকজন আমার সঙ্গে দেখা করতে আসেন। আমি তাদের সঙ্গে কথা বলেও অনেক আনন্দ পাই। আমি চাই বিধাতা সবাইকে ভালো রাখুক।

মিমের মা ছবি সাহা বলেন, শত ব্যস্ততার মাঝেও প্রতি বছর নিজ বাড়িতে আসার চেষ্টা করি। এ সময় বাড়ি এলে ভাই-বোনসহ আত্মীয়স্বজনদের সঙ্গে দেখা হয়। অনেক মজা করি।

মিমের বাবা অবসরপ্রাপ্ত কলেজ অধ্যাপক বিরেন্দ্রনাশ সরকার বলেন, প্রতি বছর আশ্বিন-কার্তিক মাসে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতি বছরের মতো এবারো পূজা উপলক্ষে মেয়ের সঙ্গে গ্রামে ছুটে এসেছি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন