অন্য চেয়ারম্যান প্রার্থীর নাম বলায় বাবা-ছেলেকে মারধর
jugantor
অন্য চেয়ারম্যান প্রার্থীর নাম বলায় বাবা-ছেলেকে মারধর

  কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি  

১৫ অক্টোবর ২০২১, ১৬:০১:২৩  |  অনলাইন সংস্করণ

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে নির্বাচনি শোডাউনের সময় অন্য চেয়ারম্যান প্রার্থীর নাম বলায় এক বৃদ্ধ ও তার ছেলেকে বেদম মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ ঘটনায় আহত বৃদ্ধ নজরুল ইসলাম ও তার ছেলে হাফেজ আব্দুল ওয়াহেদ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উপজেলার নিতাই ইউনিয়নের ডাঙ্গাপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, চেয়ারম্যান প্রার্থী নিয়াজ চৌধুরী তার লোকজন নিয়ে মোটরসাইকেলে করে নির্বাচনি শোডাউন করছিলেন। এ সময় শোরগোল শুনে বৃদ্ধ নজরুল বাড়ি থেকে বেরিয়ে রাস্তার পাশে উঠানে দাঁড়ান। এ সময় শোডাউন থেকে জাহেদুল নামে এক মোটরসাইকেল আরোহী তার কাছে জানতে চান তিনি কোন প্রার্থীর লোক।

বৃদ্ধ নজরুল চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহিনের নাম বলা মাত্রই তাকে গলা চেপে ধরে মাটিতে ফেলে বেদম মারধর করেন জাহেদুল।

এ সময় বৃদ্ধের ছেলে আব্দুল ওয়াহেদ বাড়ি থেকে বেরিয়ে এসে তার বাবাকে রক্ষার চেষ্টা করায় ৪-৫ জন তাকেও মারধর করে আহত করেন। পরে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এলে মোটরসাইকেল আরোহীরা দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে সটকে পড়েন।

নিতাই ইউপি চেয়ারম্যান ফারুকুজ্জামান জানান, নিয়াজ চৌধুরী ও শাহিনের লোকদের মধ্যে মারধরের ঘটনা শুনেছি।

এ ব্যাপারে কিশোরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুল আউয়াল জানান, গতকাল রাত ৪টা পর্যন্ত পূজামণ্ডপ পরিদর্শনে ব্যস্ত ছিলাম। হয়তো ডিউটি অফিসারের কাছে তারা এসেছিলেন। হাসপাতালে ভর্তি হতে বলেছেন। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অন্য চেয়ারম্যান প্রার্থীর নাম বলায় বাবা-ছেলেকে মারধর

 কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি 
১৫ অক্টোবর ২০২১, ০৪:০১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে নির্বাচনি শোডাউনের সময় অন্য চেয়ারম্যান প্রার্থীর নাম বলায় এক বৃদ্ধ ও তার ছেলেকে বেদম মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

এ ঘটনায় আহত বৃদ্ধ নজরুল ইসলাম ও তার ছেলে হাফেজ আব্দুল ওয়াহেদ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন। 

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উপজেলার নিতাই ইউনিয়নের ডাঙ্গাপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, চেয়ারম্যান প্রার্থী নিয়াজ চৌধুরী তার লোকজন নিয়ে মোটরসাইকেলে করে নির্বাচনি শোডাউন করছিলেন। এ সময় শোরগোল শুনে বৃদ্ধ নজরুল বাড়ি থেকে বেরিয়ে রাস্তার পাশে উঠানে দাঁড়ান। এ সময় শোডাউন থেকে জাহেদুল নামে এক মোটরসাইকেল আরোহী তার কাছে জানতে চান তিনি কোন প্রার্থীর লোক। 

বৃদ্ধ নজরুল চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহিনের নাম বলা মাত্রই তাকে গলা চেপে ধরে মাটিতে ফেলে বেদম মারধর করেন জাহেদুল। 

এ সময় বৃদ্ধের ছেলে আব্দুল ওয়াহেদ বাড়ি থেকে বেরিয়ে এসে তার বাবাকে রক্ষার চেষ্টা করায় ৪-৫ জন তাকেও মারধর করে আহত করেন। পরে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এলে মোটরসাইকেল আরোহীরা দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে সটকে পড়েন। 

নিতাই ইউপি চেয়ারম্যান ফারুকুজ্জামান জানান, নিয়াজ চৌধুরী ও শাহিনের লোকদের মধ্যে মারধরের ঘটনা শুনেছি।

এ ব্যাপারে কিশোরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুল আউয়াল জানান, গতকাল রাত ৪টা পর্যন্ত পূজামণ্ডপ পরিদর্শনে ব্যস্ত ছিলাম। হয়তো ডিউটি অফিসারের কাছে তারা এসেছিলেন। হাসপাতালে ভর্তি হতে বলেছেন। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন