কীটনাশক পান: হাসপাতালে স্বামীর মৃত্যু, স্ত্রীর অবস্থা আশঙ্কাজনক
jugantor
কীটনাশক পান: হাসপাতালে স্বামীর মৃত্যু, স্ত্রীর অবস্থা আশঙ্কাজনক

  টেকেরহাট (মাদারীপুর) প্রতিনিধি  

১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৮:১৭:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

কীটনাশক

পারিবারিক কলহের জেরে এক দম্পতি একসঙ্গেকীটনাশক পান করেছে। শুক্রবার রাতে মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার পশ্চিম রাজৈর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

তারা হলেন- রজিব তালুকদার (৩৫) ও স্ত্রী লাইজু বেগম (২৫)।

ঘটনা টের পেয়ে প্রতিবেশীরা তাদের উদ্ধার করে প্রথমে রাজৈর ও পরে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসারত অবস্থায় শনিবার স্বামী রজিব মারা যান। স্ত্রী লাইজুর অবস্থাও আশঙ্কাজনক।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রাজৈর উপজেলার পশ্চিম রাজৈর গ্রামের খলিল তালুকদারের পুত্র রজিব তালুকদারের সঙ্গে স্ত্রী লাইজুর দীর্ঘদিন যাবত দাম্পত্য কলহ চলছিল। এর জেরে শুক্রবার রাতে স্বামী রজিব তালুকদার ও স্ত্রী লাইজুর মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে প্রথমে রজিব তালুকদার ঘরে থাকা কীটনাশক পান করেন। এ সময় বোতলে থাকা বাকি কীটনাশক তার স্ত্রী লাইজুও পান করেন। পরে প্রতিবেশীরা টের পেয়ে তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান।

কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। শনিবার সকালে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রজিব তালুকদার মারা যান। তবে স্ত্রী প্রাণে বেঁচে গেলেও তার অবস্থা এখনো আশঙ্কাজনক।

এ ব্যাপারে রাজৈর থানার ওসি (তদন্ত) আনোয়ার হোসেন জানান, পারিবারিক কলহের জেরে তারা কীটনাশক পান করেন। এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

কীটনাশক পান: হাসপাতালে স্বামীর মৃত্যু, স্ত্রীর অবস্থা আশঙ্কাজনক

 টেকেরহাট (মাদারীপুর) প্রতিনিধি 
১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৬:১৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কীটনাশক
কীটনাশক পানে নিহত রজিব তালুকদার

পারিবারিক কলহের জেরে এক দম্পতি একসঙ্গে কীটনাশক পান করেছে। শুক্রবার রাতে মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার পশ্চিম রাজৈর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

তারা হলেন- রজিব তালুকদার (৩৫) ও স্ত্রী লাইজু বেগম (২৫)। 

ঘটনা টের পেয়ে প্রতিবেশীরা তাদের উদ্ধার করে প্রথমে রাজৈর ও পরে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসারত অবস্থায় শনিবার স্বামী রজিব মারা যান। স্ত্রী লাইজুর অবস্থাও আশঙ্কাজনক।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রাজৈর উপজেলার পশ্চিম রাজৈর গ্রামের খলিল তালুকদারের পুত্র রজিব তালুকদারের সঙ্গে স্ত্রী লাইজুর দীর্ঘদিন যাবত দাম্পত্য কলহ চলছিল। এর জেরে শুক্রবার রাতে স্বামী রজিব তালুকদার ও স্ত্রী লাইজুর মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে প্রথমে রজিব তালুকদার ঘরে থাকা কীটনাশক পান করেন। এ সময় বোতলে থাকা বাকি কীটনাশক তার স্ত্রী লাইজুও পান করেন। পরে প্রতিবেশীরা টের পেয়ে তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান।

কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। শনিবার সকালে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রজিব তালুকদার মারা যান। তবে স্ত্রী প্রাণে বেঁচে গেলেও তার অবস্থা এখনো আশঙ্কাজনক। 

এ ব্যাপারে রাজৈর থানার ওসি (তদন্ত) আনোয়ার হোসেন জানান, পারিবারিক কলহের জেরে তারা কীটনাশক পান করেন। এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন