ত্রিশালে নিহত বেড়ে ৭, একই পরিবারের চারজন
jugantor
ত্রিশালে নিহত বেড়ে ৭, একই পরিবারের চারজন

  ত্রিশাল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি  

১৬ অক্টোবর ২০২১, ২১:১৭:৫৪  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের চেলেরঘাটে যাত্রীবাহী বাস ও ট্রাকের সংঘর্ষে আরও একজন নিহত হয়েছেন। এ নিয়ে মোট ৭ জনের মৃত্যু হলো।

ত্রিশাল থানা ও ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা যায়, শনিবার দুপুরে শেরপুরগামী রহিম পরিবহণ (ময়মনসিংহ-গ-১১-০৯৪৮) ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের ত্রিশাল উপজেলার চেলেরঘাট নামক স্থানে ওভারটেক করার সময় পাথরবোঝাই একটি ট্রাককে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে একই পরিবারের পিতা-মাতা ও দুই শিশুসহ ৬ জন নিহত হন।

একই পরিবারের নিহত ব্যক্তিরা হলেন- ফজলুল হক (৩৫), তার স্ত্রী ফাতেমা বেগম (২৮), তাদের ছেলে আবদুল্লাহ (৬), মেয়ে আজমিনা (৯) ও ফজলুল হকের শ্বশুর নজরুল ইসলাম (৫৫)।

এ ঘটনায় আহতদের উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে হাসপাতালে আরেকজনের মৃত্যু হয়।

হাসপাতালে আহতদের মধ্যে নিগোরকান্দা গ্রামের ফাহাদ, বাবুল ও ফুলপুর উপজেলার রফিকের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

ত্রিশাল থানার ওসি মাইন উদ্দিন জানান, উপজেলার চেলেরঘাট নামক স্থানে দাঁড়িয়ে থাকা ড্রাম ট্রাকে পেছনদিক থেকে আসা শেরপুরগামী বাস ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলেই একই পরিবারের চারজনসহ পাঁচজন নিহত ও দশজন আহত হন। আহতদের মধ্যে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে একজন নিহত হয়েছেন। মহাসড়কে গাড়ি চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।

ত্রিশালে নিহত বেড়ে ৭, একই পরিবারের চারজন

 ত্রিশাল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি 
১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৯:১৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের চেলেরঘাটে যাত্রীবাহী বাস ও ট্রাকের সংঘর্ষে আরও একজন নিহত হয়েছেন। এ নিয়ে মোট ৭ জনের মৃত্যু হলো। 

ত্রিশাল থানা ও ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা যায়, শনিবার দুপুরে শেরপুরগামী রহিম পরিবহণ (ময়মনসিংহ-গ-১১-০৯৪৮) ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের ত্রিশাল উপজেলার চেলেরঘাট নামক স্থানে ওভারটেক করার সময় পাথরবোঝাই একটি ট্রাককে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে একই পরিবারের পিতা-মাতা ও দুই শিশুসহ ৬ জন নিহত হন।

একই পরিবারের নিহত ব্যক্তিরা হলেন- ফজলুল হক (৩৫), তার স্ত্রী ফাতেমা বেগম (২৮), তাদের ছেলে আবদুল্লাহ (৬), মেয়ে আজমিনা (৯) ও ফজলুল হকের শ্বশুর নজরুল ইসলাম (৫৫)।

এ ঘটনায় আহতদের উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে হাসপাতালে আরেকজনের মৃত্যু হয়। 

হাসপাতালে আহতদের মধ্যে নিগোরকান্দা গ্রামের ফাহাদ, বাবুল ও ফুলপুর উপজেলার রফিকের অবস্থা আশঙ্কাজনক। 

ত্রিশাল থানার ওসি মাইন উদ্দিন জানান, উপজেলার চেলেরঘাট নামক স্থানে দাঁড়িয়ে থাকা ড্রাম ট্রাকে পেছনদিক থেকে আসা শেরপুরগামী বাস ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলেই একই পরিবারের চারজনসহ পাঁচজন নিহত ও দশজন আহত হন। আহতদের মধ্যে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে একজন নিহত হয়েছেন। মহাসড়কে গাড়ি চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন