পরীক্ষা দিল যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের বন্দি
jugantor
পরীক্ষা দিল যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের বন্দি

  যশোর ব্যুরো  

১৭ অক্টোবর ২০২১, ১৮:০৯:০৭  |  অনলাইন সংস্করণ

যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে থাকা এক ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীকে গুচ্ছভিত্তিক স্নাতকের ‘এ’ ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষায় সুযোগ দিয়েছে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (যবিপ্রবি)। রোববার দুপুর ১২টার দিকে অনুষ্ঠিত ভর্তি পরীক্ষায় নারী ও শিশু নির্যাতন মামলার বিচারাধীন ওই শিশু আসামি যবিপ্রবির ছাত্র শিক্ষক মিলনায়তনে (টিএসসি) সাধারণ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে অংশ নেয়।

যবিপ্রবি সূত্রে জানা গেছে, শিশু আসামিকে চলতি বছরের গত ২ ফেব্রুয়ারি রাজশাহীর বোয়ালিয়া থানার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের মামলায় গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানো হয়। শিশুটির বাড়ি নাটোরের সিংড়া উপজেলায়। আদালতের নির্দেশে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের স্নাতকের ভর্তি পরীক্ষায় যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ন্ত্রণাধীন এ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য যবিপ্রবি সুযোগ দেয়।

পরীক্ষা উপলক্ষে রোববার বেলা ১১টার দিকে আসামিকে যশোরের পুলেরহাট শিশু উন্নয়ন কেন্দ্র থেকে যবিপ্রবিতে আনা হয়। এ সময় পুলিশ সদস্যরা তার নিরাপত্তা বিধান করে। পরীক্ষা শেষে তাকে আবার শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়।

এ বিষয়ে যবিপ্রবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেন জানান, ভর্তি পরীক্ষা নীতিমালা মেনেই শিশুটিকে পরীক্ষায় বসতে দেওয়া হয়েছিল। তার কক্ষের বাইরে আলাদা পুলিশ মোতায়েন ছিল। সে নিশ্চিন্তে পরীক্ষা দিতে পেরেছে।

পরীক্ষা দিল যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের বন্দি

 যশোর ব্যুরো 
১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৬:০৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে থাকা এক ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীকে গুচ্ছভিত্তিক স্নাতকের ‘এ’ ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষায় সুযোগ দিয়েছে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (যবিপ্রবি)। রোববার দুপুর ১২টার দিকে অনুষ্ঠিত ভর্তি পরীক্ষায় নারী ও শিশু নির্যাতন মামলার বিচারাধীন ওই শিশু আসামি যবিপ্রবির ছাত্র শিক্ষক মিলনায়তনে (টিএসসি) সাধারণ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে অংশ নেয়। 

যবিপ্রবি সূত্রে জানা গেছে, শিশু আসামিকে চলতি বছরের গত ২ ফেব্রুয়ারি রাজশাহীর বোয়ালিয়া থানার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের মামলায় গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানো হয়। শিশুটির বাড়ি নাটোরের সিংড়া উপজেলায়। আদালতের নির্দেশে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের স্নাতকের ভর্তি পরীক্ষায় যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ন্ত্রণাধীন এ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য যবিপ্রবি সুযোগ দেয়।

পরীক্ষা উপলক্ষে রোববার বেলা ১১টার দিকে আসামিকে যশোরের পুলেরহাট শিশু উন্নয়ন কেন্দ্র থেকে যবিপ্রবিতে আনা হয়। এ সময় পুলিশ সদস্যরা তার নিরাপত্তা বিধান করে। পরীক্ষা শেষে তাকে আবার শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়।

এ বিষয়ে যবিপ্রবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেন জানান, ভর্তি পরীক্ষা নীতিমালা মেনেই শিশুটিকে পরীক্ষায় বসতে দেওয়া হয়েছিল। তার কক্ষের বাইরে আলাদা পুলিশ মোতায়েন ছিল। সে নিশ্চিন্তে পরীক্ষা দিতে পেরেছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন