‘৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে বিএনপিকে সংগঠিত করা হবে’
jugantor
‘৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে বিএনপিকে সংগঠিত করা হবে’

  রাজশাহী ব্যুরো  

১৯ অক্টোবর ২০২১, ১৯:০৩:০৯  |  অনলাইন সংস্করণ

বিএনপির রাজশাহী বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক উপমন্ত্রী রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু বলেছেন, আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে রাজশাহী বিভাগে বিএনপিকে ঢেলে সাজানো হবে। বিএনপিকে সংগঠিত করা হবে। বিভাগের প্রতিটি ওয়ার্ড থেকে শুরু করে ইউনিয়ন, উপজেলা ও জেলা-মহানগর কমিটিতে যারা নিষ্ক্রিয় তাদের বাদ দিয়ে তরুণ, শক্তিশালী ও সাহসীদের জায়গা দেওয়া হবে। করোনার কারণে এতদিন সবকিছু স্থবির থাকলেও এবার তারা দলকে সুসংগঠিত করার কাজে হাত দিয়েছেন।

বিএনপির রাজশাহী বিভাগের জেলাভিত্তিক সাংগঠনিক পর্যালোচনা সভায় মঙ্গলবার প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

রাজশাহী মহানগরীর রানীবাজার এলাকার একটি রেস্তোরাঁয় এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন বিএনপির রাজশাহী বিভাগের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ শাহীন শওকত।

আরেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক এএইচএম ওবায়দুর রহমান চন্দন সভা পরিচালনা করেন। সভায় বিএনপির রাজশাহী বিভাগের বিভিন্ন জেলার নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

দুলু বলেন, চাল, ডাল, পেঁয়াজ, তেলসহ দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির কারণে সমালোচনার ভয়ে মানুষের দৃষ্টি অন্যদিকে সরাতেই পরিকল্পিতভাবে সাম্প্রদায়িক উস্কানি নিয়ে এ অবৈধ সরকার নাটক তৈরি করেছে। মিথ্যা ও সাম্প্রদায়িক উস্কানির জন্য আওয়ামী লীগ সরকারকে ‘নোবেল’ পুরস্কার দেওয়া উচিত।

সভায় দুলু আরও বলেন, এ সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয়। তাই নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য বিএনপির নেতাকর্মীরা অচিরেই মাঠে নামবেন।

রাজশাহীতে দুলুর বিরুদ্ধে দায়ের করা রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, রাজশাহীর সমাবেশে তিনি যে বক্তব্য দিয়েছিলেন তার ভিডিও এখনো আছে। তিনি রাষ্ট্রদ্রোহ হয় এমন কোনো বক্তব্য দেননি। তারপরও মামলা হয়েছিল। গত মাসে হাইকোর্টে জামিন নিয়েছেন। ইতোমধ্যে রাজশাহীতে নিম্ন আদালতে কাগজপত্র দাখিল করেছেন।

প্রসঙ্গত, গত ২ মার্চ রাজশাহীতে অনুষ্ঠিত বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশে সরকার উৎখাতের ষড়যন্ত্র এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকি দেওয়ার অভিযোগে ১৬ মার্চ মহানগর আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা করা হয়। এতে দুলু ছাড়াও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু, মহানগর বিএনপির সভাপতি মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল ও সাধারণ সম্পাদক শফিকুল হক মিলনকে আসামি করা হয়।

‘৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে বিএনপিকে সংগঠিত করা হবে’

 রাজশাহী ব্যুরো 
১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৭:০৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বিএনপির রাজশাহী বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক উপমন্ত্রী রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু বলেছেন, আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে রাজশাহী বিভাগে বিএনপিকে ঢেলে সাজানো হবে। বিএনপিকে সংগঠিত করা হবে। বিভাগের প্রতিটি ওয়ার্ড থেকে শুরু করে ইউনিয়ন, উপজেলা ও জেলা-মহানগর কমিটিতে যারা নিষ্ক্রিয় তাদের বাদ দিয়ে তরুণ, শক্তিশালী ও সাহসীদের জায়গা দেওয়া হবে। করোনার কারণে এতদিন সবকিছু স্থবির থাকলেও এবার তারা দলকে সুসংগঠিত করার কাজে হাত দিয়েছেন।

বিএনপির রাজশাহী বিভাগের জেলাভিত্তিক সাংগঠনিক পর্যালোচনা সভায় মঙ্গলবার প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

রাজশাহী মহানগরীর রানীবাজার এলাকার একটি রেস্তোরাঁয় এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন বিএনপির রাজশাহী বিভাগের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ শাহীন শওকত।

আরেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক এএইচএম ওবায়দুর রহমান চন্দন সভা পরিচালনা করেন। সভায় বিএনপির রাজশাহী বিভাগের বিভিন্ন জেলার নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

দুলু বলেন, চাল, ডাল, পেঁয়াজ, তেলসহ দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির কারণে সমালোচনার ভয়ে মানুষের দৃষ্টি অন্যদিকে সরাতেই পরিকল্পিতভাবে সাম্প্রদায়িক উস্কানি নিয়ে এ অবৈধ সরকার নাটক তৈরি করেছে। মিথ্যা ও সাম্প্রদায়িক উস্কানির জন্য আওয়ামী লীগ সরকারকে ‘নোবেল’ পুরস্কার দেওয়া উচিত।

সভায় দুলু আরও বলেন, এ সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয়। তাই নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য বিএনপির নেতাকর্মীরা অচিরেই মাঠে নামবেন।

রাজশাহীতে দুলুর বিরুদ্ধে দায়ের করা রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, রাজশাহীর সমাবেশে তিনি যে বক্তব্য দিয়েছিলেন তার ভিডিও এখনো আছে। তিনি রাষ্ট্রদ্রোহ হয় এমন কোনো বক্তব্য দেননি। তারপরও মামলা হয়েছিল। গত মাসে হাইকোর্টে জামিন নিয়েছেন। ইতোমধ্যে রাজশাহীতে নিম্ন আদালতে কাগজপত্র দাখিল করেছেন।

প্রসঙ্গত, গত ২ মার্চ রাজশাহীতে অনুষ্ঠিত বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশে সরকার উৎখাতের ষড়যন্ত্র এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকি দেওয়ার অভিযোগে ১৬ মার্চ মহানগর আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা করা হয়। এতে দুলু ছাড়াও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু, মহানগর বিএনপির সভাপতি মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল ও সাধারণ সম্পাদক শফিকুল হক মিলনকে আসামি করা হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন