ক্লিনিকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান, জরিমানা
jugantor
ক্লিনিকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান, জরিমানা

  বাউফল ও দক্ষিণ (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি  

২০ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৪৬:০৯  |  অনলাইন সংস্করণ

পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার কালিশুরী বন্দরের নিউ পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টার অ্যান্ড ক্লিনিকে অভিযান চালিয়ে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) বায়েজিদুর রহমানের নেতৃত্বে মঙ্গলবার ওই ক্লিনিকে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় ১টি আল্ট্রাসাউন্ড মেশিন ও ১টি কম্পিউটারের প্রিন্টার জব্দ করা হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বায়েজিদুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, অভিযান পরিচালনার সময় ক্লিনিকের মালিক গা ঢাকা দেয়। পরে কর্তব্যরত নার্স ক্লিনিকের বৈধতার কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারেনি। ক্লিনিকের ইনডোরে ৩ জন সিজারিয়ান রোগী ভর্তি পাওয়া যায়। এছাড়া ডিউটি ডাক্তার, গাইনি সার্জন, অ্যানেসথেসিয়া বিশেষজ্ঞ ও রোগীদের প্রেসক্রিপশনে কোনো চিকিৎসকের নাম পাওয়া যায়নি। পরে নার্স আসমাউল হুসনাকে ৫০০০ টাকা জরিমানা করা হয়। কিèনিকে রোগী ভর্তি থাকায় সিলিগালার নির্দেশ দেওয়া হয়নি।

পটুয়াখালীর সিভিল সার্জন মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, অভিযান অব্যাহত থাকবে। প্রতিটি ক্লিনিক নীতিমালার মধ্যে নিয়ে আসা হবে।

ক্লিনিকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান, জরিমানা

 বাউফল ও দক্ষিণ (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি 
২০ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৪৬ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার কালিশুরী বন্দরের নিউ পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টার অ্যান্ড ক্লিনিকে অভিযান চালিয়ে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) বায়েজিদুর রহমানের নেতৃত্বে মঙ্গলবার ওই ক্লিনিকে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় ১টি আল্ট্রাসাউন্ড মেশিন ও ১টি কম্পিউটারের প্রিন্টার জব্দ করা হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বায়েজিদুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, অভিযান পরিচালনার সময় ক্লিনিকের মালিক গা ঢাকা দেয়। পরে কর্তব্যরত নার্স ক্লিনিকের বৈধতার কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারেনি। ক্লিনিকের ইনডোরে ৩ জন সিজারিয়ান রোগী ভর্তি পাওয়া যায়। এছাড়া ডিউটি ডাক্তার, গাইনি সার্জন, অ্যানেসথেসিয়া বিশেষজ্ঞ ও রোগীদের প্রেসক্রিপশনে কোনো চিকিৎসকের নাম পাওয়া যায়নি। পরে নার্স আসমাউল হুসনাকে ৫০০০ টাকা জরিমানা করা হয়। কিèনিকে রোগী ভর্তি থাকায় সিলিগালার নির্দেশ দেওয়া হয়নি।

পটুয়াখালীর সিভিল সার্জন মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, অভিযান অব্যাহত থাকবে। প্রতিটি ক্লিনিক নীতিমালার মধ্যে নিয়ে আসা হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন