ছেলের হাত ভাঙার পর মহিলা ইউপি সদস্যকে পিটিয়ে জখম
jugantor
ছেলের হাত ভাঙার পর মহিলা ইউপি সদস্যকে পিটিয়ে জখম

  গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি  

২০ অক্টোবর ২০২১, ১৭:৩০:৫৪  |  অনলাইন সংস্করণ

ছেলের হাত ভাঙার পর নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলায় মহিলা ইউপি সদস্য মর্জিনা বেগমকে (৪৮) পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করার অভিযোগ উঠেছে প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে।

বুধবার সকাল ৬টার দিকে শিকারপুর নদীর উত্তরপাড়া এলাকায় উপজেলার মশিন্দা ইউনিয়ন পরিষদের ৪, ৫, ও ৬ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত সদস্য মর্জিনা বেগমকে পিটিয়ে জখম করেন প্রতিবেশী মৃত লজের আলীর ছেলে আব্দুল বারী।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, পূর্ব শত্রুতার জেরে মঙ্গলবার ইউপি সদস্য মর্জিনার ছেলেকে মারপিট করে একটি হাত ভেঙ্গে দেয় প্রতিবেশী আব্দুল বারী, শাহাদত হোসেন, বুদ্দু মোল্লাসহ বেশ কয়েকজন। বুধবার সকালে ইউপি সদস্য মর্জিনা বেগম বাজার থেকে বাড়ি যাওয়ার সময় অভিযুক্তরা অতর্কিত হামলা চালিয়ে এলোপাথাড়ি পিটিয়ে জখম করে। কাঠের বাটাম দিয়ে আঘাত করলে তার বাম পা রক্তাক্ত জখম করে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে গুরুত্বর আহত অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

আহত ইউপি সদস্য মর্জিনা বেগম জানান, তার ছেলে ও তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালানো হয়। অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান তিনি।

অভিযুক্ত আব্দুল বারীর মোবাইল ফোন বন্ধ থাকায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

গুরুদাসপুর থানার ওসি মো. আব্দুল মতিন জানান, মঙ্গলবার ইউপি সদস্যের ছেলেকে মারপিটের ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। বুধবার সকালে ইউপি সদস্যকে মারপিট করার ঘটনায় অভিযোগ পেয়ে আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

ছেলের হাত ভাঙার পর মহিলা ইউপি সদস্যকে পিটিয়ে জখম

 গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি 
২০ অক্টোবর ২০২১, ০৫:৩০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ছেলের হাত ভাঙার পর নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলায় মহিলা ইউপি সদস্য মর্জিনা বেগমকে (৪৮) পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করার অভিযোগ উঠেছে প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে।

বুধবার সকাল ৬টার দিকে শিকারপুর নদীর উত্তরপাড়া এলাকায় উপজেলার মশিন্দা ইউনিয়ন পরিষদের ৪, ৫, ও ৬ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত সদস্য মর্জিনা বেগমকে পিটিয়ে জখম করেন প্রতিবেশী মৃত লজের আলীর ছেলে আব্দুল বারী।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, পূর্ব শত্রুতার জেরে মঙ্গলবার ইউপি সদস্য মর্জিনার ছেলেকে মারপিট করে একটি হাত ভেঙ্গে দেয় প্রতিবেশী আব্দুল বারী, শাহাদত হোসেন, বুদ্দু মোল্লাসহ বেশ কয়েকজন। বুধবার সকালে ইউপি সদস্য মর্জিনা বেগম বাজার থেকে বাড়ি যাওয়ার সময় অভিযুক্তরা অতর্কিত হামলা চালিয়ে এলোপাথাড়ি পিটিয়ে জখম করে। কাঠের বাটাম দিয়ে আঘাত করলে তার বাম পা রক্তাক্ত জখম করে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে গুরুত্বর আহত অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

আহত ইউপি সদস্য মর্জিনা বেগম জানান, তার ছেলে ও তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালানো হয়। অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান তিনি।

অভিযুক্ত আব্দুল বারীর মোবাইল ফোন বন্ধ থাকায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

গুরুদাসপুর থানার ওসি মো. আব্দুল মতিন জানান, মঙ্গলবার ইউপি সদস্যের ছেলেকে মারপিটের ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। বুধবার সকালে ইউপি সদস্যকে মারপিট করার ঘটনায় অভিযোগ পেয়ে আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন