অসহায় দুই পরিবারের পাশে মেয়র সাদিক
jugantor
অসহায় দুই পরিবারের পাশে মেয়র সাদিক

  বরিশাল ব্যুরো  

২১ অক্টোবর ২০২১, ২১:৪৩:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

অসহায় দুই পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন বরিশাল সিটি করপোরেশনের মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ। বৃহস্পতিবার এই দুই পরিবারকে ৫ লাখ টাকা করে মোট ১০ লাখ টাকা অনুদান দেন তিনি।

এছাড়া বরিশাল সিটি করপোরেশনের শ্রমিক আব্দুল হান্নান আলী, দিপক লাল হেলা, মো. এসকান্দার হাওলাদার, আমির গাজী, ঝাড়ুদার কান্তা ডোম মৃত্যুবরণ করায় তাদের ওয়ারিশদের প্রত্যেকের হাতে ১ লাখ টাকা করে ৫ লাখ টাকার চেক বিতরণ করেন।

বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য আজিম সরোয়ার দিদারের বোন ৬নং ওয়ার্ড বাসিন্দা শেখ নিলা বেগম ব্রেইন টিউমারে আক্রান্ত ছিলেন। আর্থিক সক্ষমতা না থাকার কারণে ঠিকমতো চিকিৎসা করানো সম্ভব হচ্ছিল না। তাই তারা চিকিৎসার জন্য আর্থিক সহায়তা কামনা করে মেয়র বরাবর আর্থিক সহায়তার আবেদন করেন।

এছাড়া ৯নং ওয়ার্ড বাসিন্দা মো. তানভির হোসেনের পুত্রের জন্মগতভাবে হার্টে ছিদ্র এবং ফুসফুসে সমস্যা ছিল। দরিদ্র বাবার পক্ষে তার হার্টের অপারেশন করা সম্ভব হচ্ছিল না। সন্তানের সুচিকিৎসার জন্য মেয়র বরাবর আবেদন করেন। মেয়র দুটি জীবনের প্রতি মানবিক দিক বিবেচনা করে বিসিসির এনেক্স ভবনে শেখ নিলা বেগমের হাতে তার ব্রেইন টিউমার চিকিৎসার জন্য ৫ লাখ টাকার চেক এবং মো. তানভির হোসেনের কাছে তার পুত্রের হার্টে ছিদ্র এবং ফুসফুসে সমস্যার চিকিৎসার জন্য ৫ লাখ টাকার চেক প্রদান করেন।

অসহায় দুই পরিবারের পাশে মেয়র সাদিক

 বরিশাল ব্যুরো 
২১ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৪৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

অসহায় দুই পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন বরিশাল সিটি করপোরেশনের মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ। বৃহস্পতিবার এই দুই পরিবারকে ৫ লাখ টাকা করে মোট ১০ লাখ টাকা অনুদান দেন তিনি। 

এছাড়া বরিশাল সিটি করপোরেশনের শ্রমিক আব্দুল হান্নান আলী, দিপক লাল হেলা, মো. এসকান্দার হাওলাদার, আমির গাজী, ঝাড়ুদার কান্তা ডোম মৃত্যুবরণ করায় তাদের ওয়ারিশদের প্রত্যেকের হাতে ১ লাখ টাকা করে ৫ লাখ টাকার চেক বিতরণ করেন।

বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য আজিম সরোয়ার দিদারের বোন ৬নং ওয়ার্ড বাসিন্দা শেখ নিলা বেগম ব্রেইন টিউমারে আক্রান্ত ছিলেন। আর্থিক সক্ষমতা না থাকার কারণে ঠিকমতো চিকিৎসা করানো সম্ভব হচ্ছিল না। তাই তারা চিকিৎসার জন্য আর্থিক সহায়তা কামনা করে মেয়র বরাবর আর্থিক সহায়তার আবেদন করেন। 

এছাড়া ৯নং ওয়ার্ড বাসিন্দা মো. তানভির হোসেনের পুত্রের জন্মগতভাবে হার্টে ছিদ্র এবং ফুসফুসে সমস্যা ছিল। দরিদ্র বাবার পক্ষে তার হার্টের অপারেশন করা সম্ভব হচ্ছিল না। সন্তানের সুচিকিৎসার জন্য মেয়র বরাবর আবেদন করেন। মেয়র দুটি জীবনের প্রতি মানবিক দিক বিবেচনা করে বিসিসির এনেক্স ভবনে শেখ নিলা বেগমের হাতে তার ব্রেইন টিউমার চিকিৎসার জন্য ৫ লাখ টাকার চেক এবং মো. তানভির হোসেনের কাছে তার পুত্রের হার্টে ছিদ্র এবং ফুসফুসে সমস্যার চিকিৎসার জন্য ৫ লাখ টাকার চেক প্রদান করেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন