ভারতে কারাভোগ শেষে দেশে ফিরলেন ১৯ তরুণী
jugantor
ভারতে কারাভোগ শেষে দেশে ফিরলেন ১৯ তরুণী

  বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি  

২২ অক্টোবর ২০২১, ০০:০৬:১৯  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারতে ২ বছর কারাভোগের পর বৃহস্পতিবার রাতে বেনাপোল আন্তর্জাতিক চেকপোস্ট দিয়ে ১৯ বাংলাদেশি তরুণীকে দেশে ফেরত পাঠিয়েছে ভারতীয় পুলিশ।

ফেরত পাঠানো এসব তরুণীর বয়স ১৬ থেকে ১৮ বছরের মধ্যে। ভালো কাজের আশায় গত আড়াই বছর আগে ভারতে পাচার করে দালালরা। ফেরত আসাদের বাড়ি নড়াইল, নারায়ণগঞ্জ, খুলনা, ফরিদপুর, কক্সবাজার জেলার বিভিন্ন স্থানে।

বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের ওসি মজিবর রহমান বলেন, সংসারে অভাব-অনটনের সুযোগ নিয়ে বিভিন্ন সময় ভালো কাজের কথা বলে দালালরা তাদের ভারতে পাচার করে। পরে বিভিন্ন ঝুঁকিপূর্ণ কাজে তাদের ব্যবহার করে। ভারতীয় পুলিশ খবর পেয়ে পুনে শহরের বিভিন্ন স্থান থেকে তাদের আটক করে আদালতে সোপর্দ করেন।

আদালত তাদের ২ বছরের সাজা দিয়ে জেলে পাঠানোর নির্দেশনা দেন। সাজার মেয়াদ শেষে ভারতীয় এনজিও সংস্থা রেসকিউ ফাউন্ডেশন তাদের শেল্টার হোমে আশ্রয় দেয়। পরে দুই দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের যোগাযোগের একপর্যায়ে ভারত সরকারের দেওয়া বিশেষ ট্রাভেল পারমিটে আজ তারা দেশে ফিরে আসে।

এনজিও সংস্থা জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ার ১২ জন, রাইটস যশোর ৬ জন ও যশোর মহিলা আইনজীবী সমিতি ১ জনকে গ্রহণ করেছে। এই তিন এনজিও সংস্থা তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করার জন্য ইমিগ্রেশনের কাছ থেকে নিয়ে গেছে।

ভারতে কারাভোগ শেষে দেশে ফিরলেন ১৯ তরুণী

 বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি 
২২ অক্টোবর ২০২১, ১২:০৬ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারতে ২ বছর কারাভোগের পর বৃহস্পতিবার রাতে বেনাপোল আন্তর্জাতিক চেকপোস্ট দিয়ে ১৯ বাংলাদেশি তরুণীকে দেশে ফেরত পাঠিয়েছে ভারতীয় পুলিশ।

ফেরত পাঠানো এসব তরুণীর বয়স ১৬ থেকে ১৮ বছরের মধ্যে। ভালো কাজের আশায় গত আড়াই বছর আগে ভারতে পাচার করে দালালরা। ফেরত আসাদের বাড়ি  নড়াইল, নারায়ণগঞ্জ, খুলনা, ফরিদপুর, কক্সবাজার জেলার বিভিন্ন স্থানে। 

বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের ওসি মজিবর রহমান বলেন, সংসারে অভাব-অনটনের সুযোগ নিয়ে বিভিন্ন সময় ভালো কাজের কথা বলে দালালরা তাদের ভারতে পাচার করে। পরে বিভিন্ন ঝুঁকিপূর্ণ কাজে তাদের ব্যবহার করে। ভারতীয় পুলিশ খবর পেয়ে পুনে শহরের বিভিন্ন স্থান থেকে তাদের আটক করে আদালতে সোপর্দ করেন।

আদালত তাদের ২ বছরের সাজা দিয়ে জেলে পাঠানোর নির্দেশনা দেন। সাজার মেয়াদ শেষে ভারতীয় এনজিও সংস্থা রেসকিউ ফাউন্ডেশন তাদের শেল্টার হোমে আশ্রয় দেয়। পরে দুই দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের যোগাযোগের একপর্যায়ে ভারত সরকারের দেওয়া বিশেষ ট্রাভেল পারমিটে আজ তারা দেশে ফিরে আসে। 

এনজিও সংস্থা জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ার ১২ জন, রাইটস যশোর ৬ জন ও যশোর মহিলা আইনজীবী সমিতি ১ জনকে গ্রহণ করেছে। এই তিন এনজিও সংস্থা তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করার জন্য ইমিগ্রেশনের কাছ থেকে নিয়ে গেছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন