ছাত্রলীগকর্মী হাবিব খুনের ১১ আসামিই খালাস
jugantor
ছাত্রলীগকর্মী হাবিব খুনের ১১ আসামিই খালাস

  সিলেট ব্যুরো  

২২ অক্টোবর ২০২১, ০১:২৫:৫৬  |  অনলাইন সংস্করণ

সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ছাত্র, ছাত্রলীগকর্মী কাজী হাবিবুর রহমান হাবিব হত্যা মামলার ১১ আসামিই খালাস পেয়েছেন। বৃহস্পতিবার সিলেটের অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক মুমিনুন নেসা তাদের খালাস প্রদানের রায় দেন।

পাবলিক প্রসিকিউটর জুবায়ের বক্ত বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, হাবিব হত্যা মামলার আসামি ১১ জন। এর মধ্যে বৃহস্পতিবার ৮ জন আদালতে হাজির ছিলেন। বাকি ৩ জন পলাতক ছিলেন। আসামিদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত না হওয়ায় আদালত খালাস প্রদান করেছেন।

খালাসপ্রাপ্তরা হচ্ছেন- ছাত্রলীগ নেতা হোসাইন মোহাম্মদ সাগর, ইলিয়াছ আহমদ পুনম, ইমরান খান, সুবায়ের আহমদ সুহেল, ময়নুল ইসলাম রুমেল, তুহিন আহমদ, নাহিদ হাসান, আওয়াল আহমদ সোহান, আশিক, সায়মন ও নয়ন। এদের মধ্যে হোসাইন মোহাম্মদ সাগরকে কয়েক দিন আগে কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য করেছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৬ সালের ১৯ জানুয়ারি সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ফটকে ছাত্রলীগকর্মী কাজী হাবিবুর রহমানের ওপর ধারালো অস্ত্রের হামলা হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে হাসপাতালে নেয়া হলেও ওই রাতেই তার মৃত্যু হয়।

হাবিব সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির বিবিএ চতুর্থ বর্ষের ছাত্র ছিলেন। তিনি কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নের রানীঘাট গ্রামের কাজী সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে। এ খুনের ঘটনায় হাবিবের ভাই কাজী জাকির হোসেন বাদী হয়ে কোতোয়ালি থানায় মামলা করেন।

ছাত্রলীগকর্মী হাবিব খুনের ১১ আসামিই খালাস

 সিলেট ব্যুরো 
২২ অক্টোবর ২০২১, ০১:২৫ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ছাত্র, ছাত্রলীগকর্মী কাজী হাবিবুর রহমান হাবিব হত্যা মামলার ১১ আসামিই খালাস পেয়েছেন। বৃহস্পতিবার সিলেটের অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক মুমিনুন নেসা তাদের খালাস প্রদানের রায় দেন।

পাবলিক প্রসিকিউটর জুবায়ের বক্ত বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, হাবিব হত্যা মামলার আসামি ১১ জন। এর মধ্যে বৃহস্পতিবার ৮ জন আদালতে হাজির ছিলেন। বাকি ৩ জন পলাতক ছিলেন। আসামিদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত না হওয়ায় আদালত খালাস প্রদান করেছেন।

খালাসপ্রাপ্তরা হচ্ছেন- ছাত্রলীগ নেতা হোসাইন মোহাম্মদ সাগর, ইলিয়াছ আহমদ পুনম, ইমরান খান, সুবায়ের আহমদ সুহেল, ময়নুল ইসলাম রুমেল, তুহিন আহমদ, নাহিদ হাসান, আওয়াল আহমদ সোহান, আশিক, সায়মন ও নয়ন। এদের মধ্যে হোসাইন মোহাম্মদ সাগরকে কয়েক দিন আগে কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য করেছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৬ সালের ১৯ জানুয়ারি সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ফটকে ছাত্রলীগকর্মী কাজী হাবিবুর রহমানের ওপর ধারালো অস্ত্রের হামলা হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে হাসপাতালে নেয়া হলেও ওই রাতেই তার মৃত্যু হয়।

হাবিব সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির বিবিএ চতুর্থ বর্ষের ছাত্র ছিলেন। তিনি কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নের রানীঘাট গ্রামের কাজী সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে। এ খুনের ঘটনায় হাবিবের ভাই কাজী জাকির হোসেন বাদী হয়ে কোতোয়ালি থানায় মামলা করেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন