রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দুপক্ষের গোলাগুলিতে নিহত বেড়ে ৭
jugantor
রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দুপক্ষের গোলাগুলিতে নিহত বেড়ে ৭

  যুগান্তর প্রতিবেদন, কক্সবাজার   

২২ অক্টোবর ২০২১, ১০:০৪:১৩  |  অনলাইন সংস্করণ

উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্প

কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দুপক্ষের গোলাগুলি ও সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে সাতজন হয়েছে।

এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ১০ জন। তাদের মধ্যে চারজনকে রোহিঙ্গা ক্যাম্পের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার ভোরে উখিয়ার ১৮নং ক্যাম্পে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন— আজিজুল হক (২২), ইব্রাহিম (১৭), মো. আমিন (৩০), মো. ইদ্রিস (৩২), হাফেজ নুর হালিম (৪৫), মৌলভী হামিদুল্লাহ (৫০) ও নুর কায়সার (১৫)।

এ ঘটনায় অস্ত্রসহ মুজিবুর রহমান নামে একজনকে আটক করেছেন ৮ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের সদস্যরা।

৮ আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়নের এসপি শিহাব কায়সার খান যুগান্তরকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ ও গোলাগুলিতে সাতজন নিহত হয়েছেন। গুলিবিদ্ধ বেশ কয়েকজন ক্যাম্পের এমএসএস হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তাদের মধ্যে অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

এসপি শিহাব আর বলেন, কী কারণে সংঘর্ষ হয়েছে তা এখনও স্পষ্ট নয়। অস্ত্রসহ একজনকে আমরা আটক করেছি। পরিস্থিতি বর্তমানে স্বাভাবিক আছে।

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দুপক্ষের গোলাগুলিতে নিহত বেড়ে ৭

 যুগান্তর প্রতিবেদন, কক্সবাজার  
২২ অক্টোবর ২০২১, ১০:০৪ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্প
উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্প। ফাইল ছবি

কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দুপক্ষের গোলাগুলি ও সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে সাতজন হয়েছে। 

এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ১০ জন। তাদের মধ্যে চারজনকে রোহিঙ্গা ক্যাম্পের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। 

শুক্রবার ভোরে উখিয়ার ১৮নং ক্যাম্পে এ ঘটনা ঘটে। 

নিহতরা হলেন— আজিজুল হক (২২), ইব্রাহিম (১৭), মো. আমিন (৩০), মো. ইদ্রিস (৩২), হাফেজ নুর হালিম (৪৫), মৌলভী হামিদুল্লাহ (৫০) ও নুর কায়সার (১৫)।

এ ঘটনায় অস্ত্রসহ মুজিবুর রহমান নামে একজনকে আটক করেছেন ৮ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের সদস্যরা।

৮ আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়নের এসপি শিহাব কায়সার খান যুগান্তরকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ ও গোলাগুলিতে সাতজন নিহত হয়েছেন। গুলিবিদ্ধ বেশ কয়েকজন ক্যাম্পের এমএসএস হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তাদের মধ্যে অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

এসপি শিহাব আর বলেন, কী কারণে সংঘর্ষ হয়েছে তা এখনও স্পষ্ট নয়। অস্ত্রসহ একজনকে আমরা আটক করেছি। পরিস্থিতি বর্তমানে স্বাভাবিক আছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন