আধিপত্য নিয়ে সংঘর্ষে আরেকজনের মৃত্যু
jugantor
আধিপত্য নিয়ে সংঘর্ষে আরেকজনের মৃত্যু

  দিরাই (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২৩ অক্টোবর ২০২১, ১৮:৩৫:৪৭  |  অনলাইন সংস্করণ

সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার ভাটিপাড়া ইউনিয়নে জলমহাল কেন্দ্র করে গ্রামের দুইপক্ষের আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সংঘর্ষে আহত শিরু মিয়া তালুকদার নামে আরেকজন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। তিনি ভাটিপাড়া নয়াহটি গ্রামের মৃত সুন্দর আলীর পুত্র। তিনি রুবেল মেম্বার ও শাহ আলম দ্বীপের পক্ষের লোক। শনিবার নিজ বাড়িতে তিনি মারা যান।

এ নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনায় দুইজন নিহত হয়েছেন। গত ১৮ অক্টোবর উভয়পক্ষের অন্তত অর্ধশত লোক আহত হন, নিহত হন ভাটিপাড়া গ্রামের আব্দুস সহিদের ছেলে রুহেদ মিয়া (৪৫)। তিনি কাজল নুরের পক্ষের লোক। গত সোমবার মেঘনা-বারঘর গ্রুপ জলমহাল অংশের উদীর বিল নামের জলমহাল ঘিরে গ্রামের দুইপক্ষের আধিপত্য নিয়ে সংঘর্ষ শুরু হয়। সংঘর্ষ চলে এক ঘণ্টা ধরে।

ভাটিপাড়া গ্রামের পার্শ্ববর্তী উদীর হাওড়ে মেঘনা বারঘর জলমহাল নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে কাজল নুর এবং রুবেল মেম্বার ও শাহ আলম দীপ গ্রুপের মধ্যে বিরোধ চলছিল। ঘটনার দিন ভাটিপাড়া গ্রামের কাজল নুর গ্রুপের লোকজন কাটিবাঁধ দিয়ে মাছ ধরতে গেলে জলমহাল গ্রুপের মালিক পক্ষ রুবেল মেম্বার ও শাহ আলম দ্বীপের লোকজন বাধা দিলে সংঘর্ষ শুরু হয়। উভয়পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়।

ওসি তদন্ত আকরাম হোসেন জানান, আমি ঘটনাস্থলে আছি, শিরু মিয়া তালুকদারের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আধিপত্য নিয়ে সংঘর্ষে আরেকজনের মৃত্যু

 দিরাই (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি  
২৩ অক্টোবর ২০২১, ০৬:৩৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার ভাটিপাড়া ইউনিয়নে জলমহাল কেন্দ্র করে গ্রামের দুইপক্ষের আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সংঘর্ষে আহত শিরু মিয়া তালুকদার নামে আরেকজন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। তিনি ভাটিপাড়া নয়াহটি গ্রামের মৃত সুন্দর আলীর পুত্র। তিনি রুবেল মেম্বার ও শাহ আলম দ্বীপের পক্ষের লোক। শনিবার নিজ বাড়িতে তিনি মারা যান।

এ নিয়ে সংঘর্ষের  ঘটনায় দুইজন নিহত হয়েছেন। গত ১৮ অক্টোবর  উভয়পক্ষের অন্তত অর্ধশত লোক আহত হন, নিহত হন ভাটিপাড়া গ্রামের আব্দুস সহিদের ছেলে রুহেদ মিয়া (৪৫)। তিনি কাজল নুরের পক্ষের লোক। গত সোমবার মেঘনা-বারঘর গ্রুপ জলমহাল অংশের উদীর বিল নামের জলমহাল ঘিরে গ্রামের দুইপক্ষের আধিপত্য নিয়ে সংঘর্ষ শুরু হয়। সংঘর্ষ চলে এক ঘণ্টা ধরে। 

ভাটিপাড়া গ্রামের পার্শ্ববর্তী উদীর হাওড়ে মেঘনা বারঘর জলমহাল নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে কাজল নুর এবং রুবেল মেম্বার ও শাহ আলম দীপ গ্রুপের মধ্যে বিরোধ চলছিল। ঘটনার দিন ভাটিপাড়া গ্রামের কাজল নুর গ্রুপের লোকজন কাটিবাঁধ দিয়ে মাছ ধরতে গেলে জলমহাল গ্রুপের মালিক পক্ষ রুবেল মেম্বার ও শাহ আলম দ্বীপের লোকজন বাধা দিলে সংঘর্ষ শুরু হয়। উভয়পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। 

ওসি তদন্ত আকরাম হোসেন জানান,  আমি ঘটনাস্থলে আছি, শিরু মিয়া তালুকদারের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন