চার খুনের আসামি গ্রেফতার দাবিতে মানববন্ধনে পুলিশের বাধা
jugantor
চার খুনের আসামি গ্রেফতার দাবিতে মানববন্ধনে পুলিশের বাধা

  মাগুরা প্রতিনিধি  

২৪ অক্টোবর ২০২১, ২০:৩৮:৩০  |  অনলাইন সংস্করণ

মাগুরায় নির্বাচন নিয়ে ৪ খুনের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার দাবিতে রোববার দুপুরে গ্রামবাসীর পক্ষ থেকে আয়োজিত মানববন্ধন পুলিশের বাধার কারণে অনুষ্ঠিত হয়নি বলে অভিযোগ উঠেছে। তবে গ্রামবাসীর এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে পুলিশ।

১৫ অক্টোবর মাগুরার সদর উপজেলার জগদল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের প্রার্থী নিয়ে জগদল-সৈয়দ রূপাটি গ্রামে প্রতিপক্ষের হামলায় একই পরিবারের কবির মোল্যা, সবুর মোল্যা, আবদুর রহমান মোল্যা ও পাশের গ্রামের ইমরান নামে ৪ জন নিহত হন। এ ঘটনার পর মোট ১১০ জনকে আসামি করে থানায় পৃথক দুটি মামলায় হয়েছে।

তবে মামলা দায়েরের পর এখন পর্যন্ত হত্যাকাণ্ডে জড়িতরা গ্রেফতার না হওয়ায় গ্রামবাসীর পক্ষ থেকে রোববার দুপুরে মাগুরা শহরে মানববন্ধন আয়োজন করা হয়। দুপুর ১টার দিকে তারা প্রেস ক্লাবের সামনে জড়ো হতে থাকলে পুলিশ তাদের মানববন্ধন না করার জন্য জানিয়ে যায় বলে সেখানে উপস্থিত নিহতদের পরিবারের সদস্যরা অভিযোগ করেন।

হামলায় নিহত সবুর মোল্যার ভাতিজা মাহফুজ ইয়াসমিন জানান, ঘটনার পর ৯ দিন পেরিয়ে গেছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত হত্যাকাণ্ডে জড়িত কাউকে পুলিশ আটক করতে পারেনি। তারা এলাকায় নির্বিঘ্নে ঘুরে বেড়াচ্ছে। নির্বাচনী কর্মকাণ্ডেও অংশ নিচ্ছে বলে জানি। কিন্তু পুলিশের উল্লেখযোগ্য তৎপরতা দেখা যায়নি। যে কারণেই মানববন্ধন করতে চেয়েছি। অথচ প্রেস ক্লাবের সামনে জড়ো হলে আসামি আটকের জন্য ৫ দিন সময় চেয়ে মানববন্ধন সমাবেশ করতে নিষেধ করেন সদর থানার ওসি।

তবে মাগুরা সদর থানার ওসি মনজুরুল আলম মানববন্ধন করতে বাধা দেয়ার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, হত্যাকাণ্ডের পর ৪ জনকে আটক করা হয়েছে; যারা এজাহারভুক্ত আসামি। এছাড়া অন্য আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশ সচেষ্ট রয়েছে।

চার খুনের আসামি গ্রেফতার দাবিতে মানববন্ধনে পুলিশের বাধা

 মাগুরা প্রতিনিধি 
২৪ অক্টোবর ২০২১, ০৮:৩৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মাগুরায় নির্বাচন নিয়ে ৪ খুনের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার দাবিতে রোববার দুপুরে গ্রামবাসীর পক্ষ থেকে আয়োজিত মানববন্ধন পুলিশের বাধার কারণে অনুষ্ঠিত হয়নি বলে অভিযোগ উঠেছে। তবে গ্রামবাসীর এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে পুলিশ।

১৫ অক্টোবর মাগুরার সদর উপজেলার জগদল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের প্রার্থী নিয়ে জগদল-সৈয়দ রূপাটি গ্রামে প্রতিপক্ষের হামলায় একই পরিবারের কবির মোল্যা, সবুর মোল্যা, আবদুর রহমান মোল্যা ও পাশের গ্রামের ইমরান নামে ৪ জন নিহত হন। এ ঘটনার পর মোট ১১০ জনকে আসামি করে থানায় পৃথক দুটি মামলায় হয়েছে।

তবে মামলা দায়েরের পর এখন পর্যন্ত হত্যাকাণ্ডে জড়িতরা গ্রেফতার না হওয়ায় গ্রামবাসীর পক্ষ থেকে রোববার দুপুরে মাগুরা শহরে মানববন্ধন আয়োজন করা হয়। দুপুর ১টার দিকে তারা প্রেস ক্লাবের সামনে জড়ো হতে থাকলে পুলিশ তাদের মানববন্ধন না করার জন্য জানিয়ে যায় বলে সেখানে উপস্থিত নিহতদের পরিবারের সদস্যরা অভিযোগ করেন।

হামলায় নিহত সবুর মোল্যার ভাতিজা মাহফুজ ইয়াসমিন জানান, ঘটনার পর ৯ দিন পেরিয়ে গেছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত হত্যাকাণ্ডে জড়িত কাউকে পুলিশ আটক করতে পারেনি। তারা এলাকায় নির্বিঘ্নে ঘুরে বেড়াচ্ছে। নির্বাচনী কর্মকাণ্ডেও অংশ নিচ্ছে বলে জানি। কিন্তু পুলিশের উল্লেখযোগ্য তৎপরতা দেখা যায়নি। যে কারণেই মানববন্ধন করতে চেয়েছি। অথচ প্রেস ক্লাবের সামনে জড়ো হলে আসামি আটকের জন্য ৫ দিন সময় চেয়ে মানববন্ধন সমাবেশ করতে নিষেধ করেন সদর থানার ওসি।

তবে মাগুরা সদর থানার ওসি মনজুরুল আলম মানববন্ধন করতে বাধা দেয়ার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, হত্যাকাণ্ডের পর ৪ জনকে আটক করা হয়েছে; যারা এজাহারভুক্ত আসামি। এছাড়া অন্য আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশ সচেষ্ট রয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন