হোয়াটসঅ্যাপে ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্ন পাঠাচ্ছিলেন তিনি
jugantor
হোয়াটসঅ্যাপে ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্ন পাঠাচ্ছিলেন তিনি

  দিনাজপুর প্রতিনিধি  

২৪ অক্টোবর ২০২১, ২১:২৬:৪৬  |  অনলাইন সংস্করণ

সমন্বিত ২০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (হাবিপ্রবি) হোয়াটসঅ্যাপে প্রশ্ন পাঠানোর সময় এক ছাত্রীকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে। প্রশ্নপত্রের ছবি তুলে হোয়াটসআপের মাধ্যমে প্রেরণের সময় তাকে আটক করা হয়।

আটককৃত ওই শিক্ষার্থীর বাড়ি দিনাজপুর সদর উপজেলার কমলপুর গ্রামে। হাবিপ্রবি সূত্রে জানা যায়, গতকাল রোববার হাবিপ্রবির ড. এমএ ওয়াজেদ ভবনের ৩০৫নং কক্ষে পরীক্ষা শুরু হওয়ার কিছুক্ষণ পর ভর্তিচ্ছু ওই পরীক্ষার্থী মোবাইল ফোনে প্রশ্নপত্রের ছবি তুলে হোয়াটসআপের মাধ্যমে প্রেরণ করছিল। বিষয়টি সাধারণ শিক্ষার্থীদের চোখে পড়লে তারা হল পরিদর্শককে জানান। হল পরিদর্শক মোবাইল ফোনসহ তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে বিষয়টি স্বীকার করেন ওই পরীক্ষার্থী।

পরে হাবিপ্রবি কর্তৃপক্ষ একটি এজাহার দিয়ে ওই পরীক্ষার্থীকে দিনাজপুর কোতোয়ালি থানায় সোপর্দ করে। হাবিপ্রবির প্রক্টর প্রফেসর ড. মামুনুর রশিদ বাদী হয়ে এই এজাহার দায়ের করেন।

দিনাজপুর কোতোয়ালি থানার ওসি মোজাফ্ফর হোসেন রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় জানান, এ বিষয়ে একটি মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

হাবিপ্রবির জনসংযোগ ও প্রকাশনা শাখার পরিচালক প্রফেসর ড. শ্রীপতি সিকদার জানান, সমন্বিত ২০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় রোববার বি ইউনিটের পরীক্ষা ছিল। এই পরীক্ষায় হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিচ্ছু ৭ হাজার ২৫ জন পরীক্ষার্থীর অংশগ্রহণের কথা থাকলেও পরীক্ষায় উপস্থিত ছিল ৯৫ শতাংশ পরীক্ষার্থী। আগামী ১ নভেম্বর সি ইউনিটের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

হোয়াটসঅ্যাপে ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্ন পাঠাচ্ছিলেন তিনি

 দিনাজপুর প্রতিনিধি 
২৪ অক্টোবর ২০২১, ০৯:২৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সমন্বিত ২০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (হাবিপ্রবি) হোয়াটসঅ্যাপে প্রশ্ন পাঠানোর সময় এক ছাত্রীকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে। প্রশ্নপত্রের ছবি তুলে হোয়াটসআপের মাধ্যমে প্রেরণের সময় তাকে আটক করা হয়।

আটককৃত ওই শিক্ষার্থীর বাড়ি দিনাজপুর সদর উপজেলার কমলপুর গ্রামে। হাবিপ্রবি সূত্রে জানা যায়, গতকাল রোববার হাবিপ্রবির ড. এমএ ওয়াজেদ ভবনের ৩০৫নং কক্ষে পরীক্ষা শুরু হওয়ার কিছুক্ষণ পর ভর্তিচ্ছু ওই পরীক্ষার্থী মোবাইল ফোনে প্রশ্নপত্রের ছবি তুলে হোয়াটসআপের মাধ্যমে প্রেরণ করছিল। বিষয়টি সাধারণ শিক্ষার্থীদের চোখে পড়লে তারা হল পরিদর্শককে জানান। হল পরিদর্শক মোবাইল ফোনসহ তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে বিষয়টি স্বীকার করেন ওই পরীক্ষার্থী। 

পরে হাবিপ্রবি কর্তৃপক্ষ একটি এজাহার দিয়ে ওই পরীক্ষার্থীকে দিনাজপুর কোতোয়ালি থানায় সোপর্দ করে। হাবিপ্রবির প্রক্টর প্রফেসর ড. মামুনুর রশিদ বাদী হয়ে এই এজাহার দায়ের করেন। 

দিনাজপুর কোতোয়ালি থানার ওসি মোজাফ্ফর হোসেন রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় জানান, এ বিষয়ে একটি মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে। 

হাবিপ্রবির জনসংযোগ ও প্রকাশনা শাখার পরিচালক প্রফেসর ড. শ্রীপতি সিকদার জানান, সমন্বিত ২০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় রোববার বি ইউনিটের পরীক্ষা ছিল। এই পরীক্ষায় হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিচ্ছু ৭ হাজার ২৫ জন পরীক্ষার্থীর অংশগ্রহণের কথা থাকলেও পরীক্ষায় উপস্থিত ছিল ৯৫ শতাংশ পরীক্ষার্থী। আগামী ১ নভেম্বর সি ইউনিটের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন