‘টাকা আয় করতে চাইলে যুব মহিলা লীগে আসবেন না’
jugantor
‘টাকা আয় করতে চাইলে যুব মহিলা লীগে আসবেন না’

  রংপুর ব্যুরো  

২৪ অক্টোবর ২০২১, ২১:৫২:০৬  |  অনলাইন সংস্করণ

যুব মহিলা লীগ রংপুর জেলার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক অপু উকিল

বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক অপু উকিল বলেছেন, এই যুব মহিলা লীগকে আমি আমার সন্তানের মতো করে সাজিয়েছি। একজন মা যেমন তার সন্তানের অমঙ্গল চান না, আমিও তেমনি আপনাদের অমঙ্গল চাই না। সুতরাং যারা কমিটিতে এসে টাকা আয় করতে চান তারা আমাদের সংগঠনে আসবেন না। এখানে আসলে সংগঠনকে মেধা ও শ্রম দিতে হয়। সততার মধ্য দিয়ে সংগঠনকে গড়ে তুলতে হয়।

রোববার দুপুরে রংপুর চেম্বার মিলনায়তনে বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগ রংপুর জেলার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের উদ্বোধনী বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এক-এগারোর কথা স্মরণ করে অপু উকিল বলেন, নেত্রীকে যখন কারাগারে নেওয়া হচ্ছে তখন এই যুব মহিলা লীগের সদস্যরাই সেই গাড়ির গতিপথ রুখতে গিয়েছিলাম। সেদিন আমরাই ছিলাম সামনের সারিতে। নেত্রীর মুক্তির জন্য আন্দোলন করতে গিয়ে ৭ মাসের দুধের শিশুকে রেখে জেল খেটেছেন আমার সদস্যরা।

বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগ রংপুর জেলা কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট ফেরদৌসী রহমানের সভাপতিত্বে ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও সাবেক সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়া প্রধান অতিথি ও বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগের সহ-সভাপতি সারমিন জাহান মেরি প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

এ ছাড়াও বক্তব্য রাখেন- রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মমতাজ উদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রেজাউল করিম রাজু, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি মণ্ডল, যুব মহিলা লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সাইকা জাহিদ রিপা, নাসিমা আক্তার হ্যাপি, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন মণ্ডল মওলা, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু তালহা বিপ্লব, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মেহেদী হাসান সিদ্দিকী রনি, জেলা যুব মহিলা লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়াহীদা মুন্নি প্রমুখ।

সম্মেলনে জানানো হয়, যারা প্রার্থী হবেন প্রত্যেকে নিজ নিজ বায়োডাটা আগামী ৭ দিনের মধ্যে জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ও উপ-দপ্তর সম্পাদকের কাছে জমা দিবেন; তারা যাচাই-বাছাই করে প্রতিবেদন আকারে কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে পাঠাবেন। এরপর রংপুর জেলা যুব মহিলা লীগের কমিটি ঘোষণা করা হবে।

‘টাকা আয় করতে চাইলে যুব মহিলা লীগে আসবেন না’

 রংপুর ব্যুরো 
২৪ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৫২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
যুব মহিলা লীগ রংপুর জেলার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক অপু উকিল
যুব মহিলা লীগ রংপুর জেলার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক অপু উকিল

বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক অপু উকিল বলেছেন, এই যুব মহিলা লীগকে আমি আমার সন্তানের মতো করে সাজিয়েছি। একজন মা যেমন তার সন্তানের অমঙ্গল চান না, আমিও তেমনি আপনাদের অমঙ্গল চাই না। সুতরাং যারা কমিটিতে এসে টাকা আয় করতে চান তারা আমাদের সংগঠনে আসবেন না। এখানে আসলে সংগঠনকে মেধা ও শ্রম দিতে হয়। সততার মধ্য দিয়ে সংগঠনকে গড়ে তুলতে হয়।

রোববার দুপুরে রংপুর চেম্বার মিলনায়তনে বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগ রংপুর জেলার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের উদ্বোধনী বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এক-এগারোর কথা স্মরণ করে অপু উকিল বলেন, নেত্রীকে যখন কারাগারে নেওয়া হচ্ছে তখন এই যুব মহিলা লীগের সদস্যরাই সেই গাড়ির গতিপথ রুখতে গিয়েছিলাম। সেদিন আমরাই ছিলাম সামনের সারিতে। নেত্রীর মুক্তির জন্য আন্দোলন করতে গিয়ে ৭ মাসের দুধের শিশুকে রেখে জেল খেটেছেন আমার সদস্যরা।

বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগ রংপুর জেলা কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট ফেরদৌসী রহমানের সভাপতিত্বে ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও সাবেক সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়া প্রধান অতিথি ও বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগের সহ-সভাপতি সারমিন জাহান মেরি প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

এ ছাড়াও বক্তব্য রাখেন- রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মমতাজ উদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রেজাউল করিম রাজু, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি মণ্ডল, যুব মহিলা লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সাইকা জাহিদ রিপা, নাসিমা আক্তার হ্যাপি, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন মণ্ডল মওলা, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু তালহা বিপ্লব, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মেহেদী হাসান সিদ্দিকী রনি, জেলা যুব মহিলা লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়াহীদা মুন্নি প্রমুখ।

সম্মেলনে জানানো হয়, যারা প্রার্থী হবেন প্রত্যেকে নিজ নিজ বায়োডাটা আগামী ৭ দিনের মধ্যে জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ও উপ-দপ্তর সম্পাদকের কাছে জমা দিবেন; তারা যাচাই-বাছাই করে প্রতিবেদন আকারে কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে পাঠাবেন। এরপর রংপুর জেলা যুব মহিলা লীগের কমিটি ঘোষণা করা হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন