প্রাইভেটকার চালক হত্যা মামলায় ছয়জনের যাবজ্জীবন
jugantor
প্রাইভেটকার চালক হত্যা মামলায় ছয়জনের যাবজ্জীবন

  যুগান্তর প্রতিবেদন, মানিকগঞ্জ  

২৪ অক্টোবর ২০২১, ২২:২৪:৩১  |  অনলাইন সংস্করণ

মানিকগঞ্জে প্রাইভেটকার চালক হত্যা মামলায় ছয় আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন বিচারিক আদালত। সেই সঙ্গে দণ্ডপ্রাপ্ত প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।

রোববার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে মানিকগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক উৎপল ভট্টাচার্যের আদালতে এই রায় প্রদান করা হয়। রায় প্রদানের সময় আসামি দারোগ আলী ও আব্দুর রহিমের উপস্থিতিতে এই রায় প্রদান করা হয়।

রায়ে দণ্ডিতরা হলেন- ঢাকার সাভারের জোরলপুর কান্দারচর এলাকার চান মিয়া ছেলে হাসান মিয়া ও ইজু মিয়া, একই এলাকার আব্দুর রহমানের ছেলে আব্দুর রহিম মাহমুদ, হেমায়েতপুরের জয়নাবাড়ী এলাকার ইসমাইলের হোসেনের ছেলে মনির হোসেন, একই এলাকার ওহাব আলীর ছেলে দারোগ আলী ও বাগেরহাটের শরণখোলার থানার দক্ষিণ রাজাপুর এলাকার আবুল হোসেনের ছেলে আব্দুর রহিম।

এজাহারে বলা হয়েছে- ২০১২ সালের ১৪ জুলাই রাত ১০টার দিকে রাজধানীর মিরপুরের বাসাবাড়ি থেকে প্রাইভেটকার চালিয়ে সাভারের হেমায়েতপুরে উদ্দেশ্যে রওনা দেন চালক আনোয়ার হোসেন খোকা। এর পর রাত ১১টার দিকে তার স্ত্রী পাপিয়া আক্তার ও পরিবারের লোকজন তার মোবাইল ফোনে করলে তার মোবাইল ফোনটি অপরিচিত একজন ব্যক্তি রিসিভ করেন এবং মোবাইল ফোনটি চার্জে দিয়ে রেখে ভাড়ায় চারজন যাত্রী নিয়ে সিলেটের জাফলং গেছে।

এর দুই দিন পরে মানিকগঞ্জ সদর থানার অরঙ্গবাদ এলাকার হাকিম আলীর মৎস্য খামারের পাশ থেকে চালকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। খবর পেয়ে নিহতের পরিবারের লোকজন মর্গে গিয়ে লাশ শনাক্ত করে।

এ ঘটনায় নিহতের বড়ভাই মো. আতিকুল ইসলাম বাদী হয়ে ঢাকার মিরপুরের দারুসসালাম থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। পরে মানিকগঞ্জ সদর থানার একটি মামলা দায়ের হয়। তদন্ত শেষে ২০১৩ সালের ৬ মার্চ আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। মামলায় ১৩ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে রোববার বিকালে দুই আসামির উপস্থিতিতে এ রায় প্রদান করেন বিচারক।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ছিলেন এপিপি নিরঞ্জন বসাক এ রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। তবে আসামিপক্ষের আইনজীবী রফিকুল ইসলাম, মো. লুৎফর রহমান ও শেখ মো. নজরুল ইসলাম রায়ের বিরুদ্ধে আপিলের কথা জানিয়েছেন।

প্রাইভেটকার চালক হত্যা মামলায় ছয়জনের যাবজ্জীবন

 যুগান্তর প্রতিবেদন, মানিকগঞ্জ 
২৪ অক্টোবর ২০২১, ১০:২৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মানিকগঞ্জে প্রাইভেটকার চালক হত্যা মামলায় ছয় আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন বিচারিক আদালত। সেই সঙ্গে দণ্ডপ্রাপ্ত প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।

রোববার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে মানিকগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক উৎপল ভট্টাচার্যের আদালতে এই রায় প্রদান করা হয়। রায় প্রদানের সময় আসামি দারোগ আলী ও আব্দুর রহিমের উপস্থিতিতে এই রায় প্রদান করা হয়।

রায়ে দণ্ডিতরা হলেন- ঢাকার সাভারের জোরলপুর কান্দারচর এলাকার চান মিয়া ছেলে হাসান মিয়া ও ইজু মিয়া, একই এলাকার আব্দুর রহমানের ছেলে আব্দুর রহিম মাহমুদ, হেমায়েতপুরের জয়নাবাড়ী এলাকার ইসমাইলের হোসেনের ছেলে মনির হোসেন, একই এলাকার ওহাব আলীর ছেলে দারোগ আলী ও বাগেরহাটের শরণখোলার থানার দক্ষিণ রাজাপুর এলাকার আবুল হোসেনের ছেলে আব্দুর রহিম।

এজাহারে বলা হয়েছে- ২০১২ সালের ১৪ জুলাই রাত ১০টার দিকে রাজধানীর মিরপুরের বাসাবাড়ি থেকে প্রাইভেটকার চালিয়ে সাভারের হেমায়েতপুরে উদ্দেশ্যে রওনা দেন চালক আনোয়ার হোসেন খোকা। এর পর রাত ১১টার দিকে তার স্ত্রী পাপিয়া আক্তার ও পরিবারের লোকজন তার মোবাইল ফোনে করলে তার মোবাইল ফোনটি অপরিচিত একজন ব্যক্তি রিসিভ করেন এবং মোবাইল ফোনটি চার্জে দিয়ে রেখে ভাড়ায় চারজন যাত্রী নিয়ে সিলেটের জাফলং গেছে।

এর দুই দিন পরে মানিকগঞ্জ সদর থানার অরঙ্গবাদ এলাকার হাকিম আলীর মৎস্য খামারের পাশ থেকে চালকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। খবর পেয়ে নিহতের পরিবারের লোকজন মর্গে গিয়ে লাশ শনাক্ত করে।

এ ঘটনায় নিহতের বড়ভাই মো. আতিকুল ইসলাম বাদী হয়ে ঢাকার মিরপুরের দারুসসালাম থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। পরে মানিকগঞ্জ সদর থানার একটি মামলা দায়ের হয়। তদন্ত শেষে ২০১৩ সালের ৬ মার্চ আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। মামলায় ১৩ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে রোববার বিকালে দুই আসামির উপস্থিতিতে এ রায় প্রদান করেন বিচারক।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ছিলেন এপিপি নিরঞ্জন বসাক এ রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। তবে আসামিপক্ষের আইনজীবী রফিকুল ইসলাম, মো. লুৎফর রহমান ও শেখ মো. নজরুল ইসলাম রায়ের বিরুদ্ধে আপিলের কথা জানিয়েছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন