মাদকসেবীদের হামলায় কলেজ শিক্ষকসহ আহত ৩
jugantor
মাদকসেবীদের হামলায় কলেজ শিক্ষকসহ আহত ৩

  মুলাদী (বরিশাল) প্রতিনিধি  

২৫ অক্টোবর ২০২১, ২২:৩৭:৫৮  |  অনলাইন সংস্করণ

বরিশালের মুলাদীতে মাদকসেবীদের হামলায় কলেজ শিক্ষকসহ ৩জন আহত হয়েছেন। সোমবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার গাছুয়া ইউনিয়নের বলরামপুর নতুন বাজার এলাকায় অধ্যাপক শরীয়ত উল্লাহ ও তার স্ত্রীর ওপর হামলা চালায় মাদকসেবীরা।

এতে তিনি, তার স্ত্রী ও ভাতিজা আহত হয়। এই ঘটনায় মুলাদী থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।
মাদকসেবীদের ব্যবসা ও সেবনে বাধা দেওয়ায় এই হামলা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন ওই শিক্ষক।

অধ্যাপক শরীয়ত উল্লাহ বরিশাল তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া মহিলা কলেজে শিক্ষকতা করেন। তার বাড়ি গাছুয়া ইউনিয়নের বলরামপুর গ্রামের বাসিন্দা। তিনি বিডিসিএইচ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি।

অধ্যাপক শরীয়ত উল্লাহ জানান, দীর্ঘ দিন ধরে এলাকার কিছু বখাটে ও নেশাগ্রস্থরা বিডিসিএইচ মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও নতুন বাজারে প্রকাশ্যে মাদকের ব্যবসা ও সেবন করে। বাড়িতে আসলে তাদের মাদক বিক্রি ও সেবনে বাঁধা দিতাম। এতে বখাটেরা ক্ষিপ্ত হয়। তারা দীর্ঘ দিন ধরে হামলার পরিকল্পনা করে আসছিলো।

সোমবার অধ্যাপক শরীয়ত উল্লাহ ও তার স্ত্রী বিডিসিএইচ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি ফাহিমা সাবরিন বিদ্যালয় থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। সকাল ১০টার দিকে তারা বাড়ির সামনে ব্রিজের কাছে পৌঁছলে মনির হোসেন, দেলোয়ার হোসেন, মিলন, বশির উদ্দীনসহ ৮-৯জন বখাটে মোটরসাইকেল নিয়ে তাদের পথরোধ করে। এসময় বখাটেরা অতর্কিত হামলা চালিয়ে অধ্যাপক শরীয়ত উল্লাহ ও তার স্ত্রীকে আহত করে।

খবর পেয়ে মুলাদী থানা পুলিশ তাদের উদ্ধার করে মুলাদী হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ ঘটনায় অধ্যাপক শরীয়ত উল্লাহ বাদী হয়ে ৯জনের বিরুদ্ধ মামলা দায়ের করেছেন।

এব্যাপারে মুলাদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এসএম মাকসুদুর রহমান জানান, কলেজ শিক্ষক ও তার স্ত্রীর ওপর হামলার বিষয়ে লিখিত পেয়েছি। তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মাদকসেবীদের হামলায় কলেজ শিক্ষকসহ আহত ৩

 মুলাদী (বরিশাল) প্রতিনিধি 
২৫ অক্টোবর ২০২১, ১০:৩৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বরিশালের মুলাদীতে মাদকসেবীদের হামলায় কলেজ শিক্ষকসহ ৩জন আহত হয়েছেন। সোমবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার গাছুয়া ইউনিয়নের বলরামপুর নতুন বাজার এলাকায় অধ্যাপক শরীয়ত উল্লাহ ও তার স্ত্রীর ওপর হামলা চালায় মাদকসেবীরা। 

এতে তিনি, তার স্ত্রী ও ভাতিজা আহত হয়। এই ঘটনায় মুলাদী থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। 
মাদকসেবীদের ব্যবসা ও সেবনে বাধা দেওয়ায় এই হামলা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন ওই শিক্ষক। 

অধ্যাপক শরীয়ত উল্লাহ বরিশাল তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া মহিলা কলেজে শিক্ষকতা করেন। তার বাড়ি গাছুয়া ইউনিয়নের বলরামপুর গ্রামের বাসিন্দা। তিনি বিডিসিএইচ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি। 

অধ্যাপক শরীয়ত উল্লাহ জানান, দীর্ঘ দিন ধরে এলাকার কিছু বখাটে ও নেশাগ্রস্থরা বিডিসিএইচ মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও নতুন বাজারে প্রকাশ্যে মাদকের ব্যবসা ও সেবন করে। বাড়িতে আসলে তাদের মাদক বিক্রি ও সেবনে বাঁধা দিতাম। এতে বখাটেরা ক্ষিপ্ত হয়। তারা দীর্ঘ দিন ধরে হামলার পরিকল্পনা করে আসছিলো। 

সোমবার অধ্যাপক শরীয়ত উল্লাহ ও তার স্ত্রী বিডিসিএইচ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি ফাহিমা সাবরিন বিদ্যালয় থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। সকাল ১০টার দিকে তারা বাড়ির সামনে ব্রিজের কাছে পৌঁছলে মনির হোসেন, দেলোয়ার হোসেন, মিলন, বশির উদ্দীনসহ ৮-৯জন বখাটে মোটরসাইকেল নিয়ে তাদের পথরোধ করে। এসময় বখাটেরা অতর্কিত হামলা চালিয়ে অধ্যাপক শরীয়ত উল্লাহ ও তার স্ত্রীকে আহত করে। 

খবর পেয়ে মুলাদী থানা পুলিশ তাদের উদ্ধার করে মুলাদী হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ ঘটনায় অধ্যাপক শরীয়ত উল্লাহ বাদী হয়ে ৯জনের বিরুদ্ধ মামলা দায়ের করেছেন। 

এব্যাপারে মুলাদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এসএম মাকসুদুর রহমান জানান, কলেজ শিক্ষক ও তার স্ত্রীর ওপর হামলার বিষয়ে লিখিত পেয়েছি। তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন