নোয়াখালীতে আ.লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা
jugantor
নোয়াখালীতে আ.লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

  নোয়াখালী প্রতিনিধি  

২৮ অক্টোবর ২০২১, ০৮:৩৮:৪১  |  অনলাইন সংস্করণ

কুপিয়ে হত্যা

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলায় ছায়েদ ভূঞা রিপন (৫০) নামে এক আওয়ামী লীগ ও পরিবহণ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ সময় দুর্বৃত্তরা তার কাছ থেকে আড়াই লাখ টাকা লুট করে নিয়ে যায় বলে জানা গেছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ৬টার দিকে উপজেলার মিরওয়ারিশপুর ইউনিয়নের বারইয়ার হাটসংলগ্ন গাছতলা নামক এলাকা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

এর আগে বুধবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে দুর্বৃত্তরা তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা করে তার বাড়ির ১০০ গজ আগে মরদেহ ফেলে যায়।

নিহত আবু ছায়েদ ভূঞা রিপন (৫০) উপজেলার মিরওয়ারিশ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ১নং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও একই ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের তালুয়া চাঁদপুর গ্রামের ভূঞাবাড়ির মৃত রফিক উল্লা ভূঞার ছেলে।

নিহতের ছেলে ইমরান হোসেন জানান, লাল-সবুজ বাস পরিবহণের বেগমগঞ্জ চৌরাস্তা বাস কাউন্টারের ম্যানেজার ছিলেন বাবা। বুধবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে বেগমগঞ্জের চৌরাস্তার লাল-সবুজ বাস কাউন্টার থেকে মোটরসাইকেলে বাড়ি ফিরছিলেন তিনি।

পথে কে বা কারা বাবাকে প্রথমে চলন্ত মোটরসাইকেলে মাথায় কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। এর পর মোটরসাইকেল থেকে পড়ে গেলে হাতে,পায়ে কুপিয়ে পায়ের রগ কেটে হত্যা করে বারইয়ারহাট বাজারসংলগ্ন একটি বাড়ির দরজায় মরদেহ রেখে চলে যায়।

ইমরান হোসেন আরও জানান, আমার অসুস্থ কাকা উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় যাওয়ার কথা ছিল। তার চিকিৎসার আড়াই লাখ টাকা এ সময় বাবার সঙ্গে ছিল। ওই টাকাও দুর্বৃত্তরা লুটে নেয়।

বেগমগঞ্জ থানার ওসি মীর জাহেদুল হক রনি জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করেছে। সুরতহাল শেষে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হচ্ছে।

তবে তাৎক্ষণিকভাবে এ হত্যাকাণ্ডের কোনো কারণ জানা যায়নি। অভিযোগের ভিত্তিতে বিষয়টি খতিয়ে দেখে দ্রুত অপরাধীদের আইনের আওতায় আনা হবে বলে জানান ওসি।

নোয়াখালীতে আ.লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

 নোয়াখালী প্রতিনিধি 
২৮ অক্টোবর ২০২১, ০৮:৩৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কুপিয়ে হত্যা
ফাইল ছবি

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলায় ছায়েদ ভূঞা রিপন (৫০) নামে এক আওয়ামী লীগ ও পরিবহণ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ সময় দুর্বৃত্তরা তার কাছ থেকে আড়াই লাখ টাকা লুট করে নিয়ে যায় বলে জানা গেছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ৬টার দিকে উপজেলার মিরওয়ারিশপুর ইউনিয়নের বারইয়ার হাটসংলগ্ন গাছতলা নামক এলাকা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

এর আগে বুধবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে দুর্বৃত্তরা তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা করে তার বাড়ির ১০০ গজ আগে মরদেহ ফেলে যায়।

নিহত আবু ছায়েদ ভূঞা রিপন (৫০) উপজেলার মিরওয়ারিশ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ১নং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও একই ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের তালুয়া চাঁদপুর গ্রামের ভূঞাবাড়ির মৃত রফিক উল্লা ভূঞার ছেলে।

নিহতের ছেলে ইমরান হোসেন জানান, লাল-সবুজ বাস পরিবহণের বেগমগঞ্জ চৌরাস্তা বাস কাউন্টারের ম্যানেজার ছিলেন বাবা। বুধবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে বেগমগঞ্জের চৌরাস্তার লাল-সবুজ বাস কাউন্টার থেকে মোটরসাইকেলে বাড়ি ফিরছিলেন তিনি।

পথে কে বা কারা বাবাকে প্রথমে চলন্ত মোটরসাইকেলে মাথায় কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। এর পর মোটরসাইকেল থেকে পড়ে গেলে হাতে,পায়ে কুপিয়ে পায়ের রগ কেটে হত্যা করে বারইয়ারহাট বাজারসংলগ্ন একটি বাড়ির দরজায় মরদেহ রেখে চলে যায়। 

ইমরান হোসেন আরও জানান, আমার অসুস্থ কাকা উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় যাওয়ার কথা ছিল। তার চিকিৎসার আড়াই লাখ টাকা এ সময় বাবার সঙ্গে ছিল। ওই টাকাও দুর্বৃত্তরা লুটে নেয়।

বেগমগঞ্জ থানার ওসি মীর জাহেদুল হক রনি জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করেছে। সুরতহাল শেষে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হচ্ছে।

তবে তাৎক্ষণিকভাবে এ হত্যাকাণ্ডের কোনো কারণ জানা যায়নি। অভিযোগের ভিত্তিতে বিষয়টি খতিয়ে দেখে দ্রুত অপরাধীদের আইনের আওতায় আনা হবে বলে জানান ওসি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন