হাত-পায়ের রগ কেটে ব্যবসায়ীকে হত্যা
jugantor
হাত-পায়ের রগ কেটে ব্যবসায়ীকে হত্যা

  ইন্দুরকানী (পিরোজপুর) প্রতিনিধি  

২৯ অক্টোবর ২০২১, ১৯:৩৬:৩৬  |  অনলাইন সংস্করণ

পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে পূর্বশত্রুতার জের ধরে এক সুপারি ব্যবসায়ীকে হাত-পায়ের রগ কেটে এবং এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষরা। বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার রামচন্দ্রপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ইন্দুরকানী উপজেলার পার্শ্ববর্তী মোড়েলগঞ্জ উপজেলার চন্ডিপুর গ্রামের আমজাদ হোসেন হাওলাদারের ছেলে মো. জাকির হোসেন হাওলাদার (৫০) পত্তাশী বাজার থেকে নিজ বাড়িতে ফেরার পথে রামচন্দ্রপুর-চন্ডিপুর সীমান্তবর্তী এলাকায় একদল সন্ত্রাসী তাকে হাত-পায়ের রগ কেটে এবং এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর আহত করে ফেলে রেখে যায়।

পরে খবর পেয়ে স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর মারা যায়। মৃত্যুর খবর শুনে পিরোজপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ছাইদুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

নিহতের ছেলে মো. ইমরান হাওলাদার বলেন, বৃহস্পতিবার পত্তাশী বাজারে সুপারি রেখে বাড়ি ফেরার পথে পূর্বশত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষ ইউপি সদস্য যুবলীগ নেতা মো. সোহেল খান ও রাসেল মোল্লার নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী আমার বাবার হাত-পায়ের রগ কেটে দেয় এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে রামচন্দ্রপুর এলাকায় ফেলে রেখে যায়। পরে আমরা খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতলে নেওয়ার পথে মারা যায়।

ইন্দুরকানী থানার ওসি মো. হুমায়ূন কবির বলেন, এ ঘটনায় এখনো কোনো অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্তসাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

হাত-পায়ের রগ কেটে ব্যবসায়ীকে হত্যা

 ইন্দুরকানী (পিরোজপুর) প্রতিনিধি 
২৯ অক্টোবর ২০২১, ০৭:৩৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে পূর্বশত্রুতার জের ধরে এক সুপারি ব্যবসায়ীকে হাত-পায়ের রগ কেটে এবং এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষরা। বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার রামচন্দ্রপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ইন্দুরকানী উপজেলার পার্শ্ববর্তী মোড়েলগঞ্জ উপজেলার চন্ডিপুর গ্রামের আমজাদ হোসেন হাওলাদারের ছেলে মো. জাকির হোসেন হাওলাদার (৫০) পত্তাশী বাজার থেকে নিজ বাড়িতে ফেরার পথে রামচন্দ্রপুর-চন্ডিপুর সীমান্তবর্তী এলাকায় একদল সন্ত্রাসী তাকে হাত-পায়ের রগ কেটে এবং এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর আহত করে ফেলে রেখে যায়। 

পরে খবর পেয়ে স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর মারা যায়। মৃত্যুর খবর শুনে পিরোজপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ছাইদুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

নিহতের ছেলে মো. ইমরান হাওলাদার বলেন, বৃহস্পতিবার পত্তাশী বাজারে সুপারি রেখে বাড়ি ফেরার পথে পূর্বশত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষ ইউপি সদস্য যুবলীগ নেতা মো. সোহেল খান ও রাসেল মোল্লার নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী আমার বাবার হাত-পায়ের রগ কেটে দেয় এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে রামচন্দ্রপুর এলাকায় ফেলে রেখে যায়। পরে আমরা খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতলে নেওয়ার পথে মারা যায়।

ইন্দুরকানী থানার ওসি মো. হুমায়ূন কবির বলেন, এ ঘটনায় এখনো কোনো অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্তসাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন