নিখোঁজের চার দিন পর বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার
jugantor
নিখোঁজের চার দিন পর বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার

  বাঁশখালী( চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

২৯ অক্টোবর ২০২১, ২১:২২:৫৯  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রাম থেকে নিখোঁজের ৪ দিন পর বাঁশখালীতেবস্তাবন্দি অবস্থায় শাহ আলম নামে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার বিকালে বাঁশখালী উপজেলার পুকুরিয়া ইউনিয়ন থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয়রা জানান, প্রধান সড়কের পাশেগলায় গামছা মোড়ানো অবস্থায় একটি বস্তাবন্দি লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেওয়া হয়।পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশটি উদ্ধার করে বাঁশখালী থানায় নিয়ে যায়।

নিহত শাহ আলম কুমিল্লা জেলার দাউদকান্দি থানার বালিয়াকান্দি এলাকার চান মিয়ার ছেলে। পেশায় তিনি ড্রাইভার। তার পরিবার বর্তমানচট্টগ্রামের পশ্চিম বেপারিপাড়ায় ভাড়া বাসায় থাকে।

নিহত শাহ আলমের মেয়ে আশা আক্তারবলেন, মঙ্গলবার আমার বাবা নিখোঁজ হয়েছিল, বুধবার থানায় জিডি করতে চেয়েছিলাম।কিন্তু পুলিশ জিডি নেয়নি। বৃহস্পতিবার রাতে চট্টগ্রামের কোতোয়ালি থানায় নিখোঁজ ডায়েরি করি। শুক্রবার বিকালে বাঁশখালী থানা পুলিশের ফোন পেয়ে বাবার লাশ শনাক্ত করতে আমরা এখানে এসেছি।

এদিকে লাশ উদ্ধারের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন সিনিয়রসহকারী পুলিশ সুপার ওবাঁশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)।

এ বিষয়ে বাঁশখালী থানার ওসি মো. কামাল উদ্দিন বলেন, স্থানীয়দের খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। স্বজনরা লাশ শনাক্ত করেছেন। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য চমেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নিহতের পরিবারের পক্ষে থানায় এজাহার দেওয়া হলে মামলা নেওয়া হবে।

নিখোঁজের চার দিন পর বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার

 বাঁশখালী( চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি  
২৯ অক্টোবর ২০২১, ০৯:২২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রাম  থেকে  নিখোঁজের ৪ দিন পর বাঁশখালীতে বস্তাবন্দি অবস্থায় শাহ আলম নামে এক ব্যক্তির  লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার  বিকালে বাঁশখালী  উপজেলার পুকুরিয়া ইউনিয়ন থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয়রা জানান,  প্রধান সড়কের পাশে গলায় গামছা মোড়ানো অবস্থায় একটি বস্তাবন্দি লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেওয়া হয়। পুলিশ  ঘটনাস্থলে এসে  লাশটি উদ্ধার করে বাঁশখালী থানায় নিয়ে যায়। 
 
নিহত শাহ আলম কুমিল্লা জেলার দাউদকান্দি থানার বালিয়াকান্দি  এলাকার  চান মিয়ার ছেলে। পেশায় তিনি ড্রাইভার। তার পরিবার বর্তমান চট্টগ্রামের পশ্চিম বেপারিপাড়ায়  ভাড়া বাসায় থাকে।

নিহত শাহ আলমের  মেয়ে  আশা আক্তার বলেন, মঙ্গলবার আমার বাবা নিখোঁজ হয়েছিল, বুধবার থানায় জিডি করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু পুলিশ জিডি নেয়নি। বৃহস্পতিবার রাতে চট্টগ্রামের কোতোয়ালি থানায় নিখোঁজ ডায়েরি করি। শুক্রবার বিকালে বাঁশখালী থানা পুলিশের ফোন পেয়ে বাবার লাশ শনাক্ত করতে আমরা এখানে এসেছি।

এদিকে লাশ উদ্ধারের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার ও বাঁশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)।

এ বিষয়ে বাঁশখালী থানার ওসি মো. কামাল উদ্দিন বলেন, স্থানীয়দের খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। স্বজনরা লাশ শনাক্ত করেছেন।  লাশ ময়নাতদন্তের জন্য চমেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নিহতের পরিবারের পক্ষে থানায় এজাহার দেওয়া হলে মামলা নেওয়া হবে। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন