স্বতন্ত্র প্রার্থীসহ ১০ জনকে কুপিয়ে জখম, কাউন্সিলর আটক
jugantor
স্বতন্ত্র প্রার্থীসহ ১০ জনকে কুপিয়ে জখম, কাউন্সিলর আটক

  পটুয়াখালী ও দক্ষিণ প্রতিনিধি  

৩০ অক্টোবর ২০২১, ০২:০৪:১৯  |  অনলাইন সংস্করণ

পটুয়াখালীর লোহালিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী ও তার কর্মী-সমর্থকদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে আনারস প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী জুয়েল মৃধাসহ ১০ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে ৫ জনকে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে সদর উপজেলার লোহালিয়া ইউনিয়নের লোহালিয়া খেয়া ঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এদিকে হামলার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে পটুয়াখালী পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিল ও নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর ছোট ভাই রেজাউল হাসান লাবুকে জিজ্ঞাসাবাদের পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। কাউন্সিলর লাবুকে আটকের খবরে থানা এলাকায় স্থানীয়রা বিক্ষোভ করেছেন।

আহত স্বতন্ত্র প্রার্থী জুয়েল মৃধা বলেন, সন্ধ্যায় নির্বাচনী প্রচারণা শেষে আমার সমর্থকদের নিয়ে পটুয়াখালীতে যাচ্ছিলাম। এ সময় লোহালিয়া খেয়াঘাট এলাকায় রেজাউল হাসান লাবুসহ ২০-৩০ জন দুর্বৃত্ত তাদের ধাওয়া করে। পরে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে আমাদের ওপর হামলা চালায় তারা।

এ বিষয়ে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে ও নৌকা প্রার্থীর ছোট ভাইকে লাবু তালুকদারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ হেফাজতে আনা হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পটুয়াখালী সদর থানা এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

স্বতন্ত্র প্রার্থীসহ ১০ জনকে কুপিয়ে জখম, কাউন্সিলর আটক

 পটুয়াখালী ও দক্ষিণ প্রতিনিধি 
৩০ অক্টোবর ২০২১, ০২:০৪ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পটুয়াখালীর লোহালিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী ও তার কর্মী-সমর্থকদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে আনারস প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী জুয়েল মৃধাসহ ১০ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে ৫ জনকে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে সদর উপজেলার লোহালিয়া ইউনিয়নের লোহালিয়া খেয়া ঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

এদিকে হামলার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে পটুয়াখালী পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিল ও নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর ছোট ভাই রেজাউল হাসান লাবুকে জিজ্ঞাসাবাদের পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। কাউন্সিলর লাবুকে আটকের খবরে থানা এলাকায় স্থানীয়রা বিক্ষোভ করেছেন। 

আহত স্বতন্ত্র প্রার্থী জুয়েল মৃধা বলেন, সন্ধ্যায় নির্বাচনী প্রচারণা শেষে আমার সমর্থকদের নিয়ে পটুয়াখালীতে যাচ্ছিলাম। এ সময় লোহালিয়া খেয়াঘাট এলাকায় রেজাউল হাসান লাবুসহ ২০-৩০ জন দুর্বৃত্ত তাদের ধাওয়া করে। পরে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে আমাদের ওপর হামলা চালায় তারা।

এ বিষয়ে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে ও নৌকা প্রার্থীর ছোট ভাইকে লাবু তালুকদারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ হেফাজতে আনা হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পটুয়াখালী সদর থানা এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন