‘করোনায় ঝরেপড়া শিক্ষার্থীদের হার এখনো নির্ণয় হয়নি’
jugantor
‘করোনায় ঝরেপড়া শিক্ষার্থীদের হার এখনো নির্ণয় হয়নি’

  চাঁদপুর প্রতিনিধি  

৩০ অক্টোবর ২০২১, ১৯:১৮:৪১  |  অনলাইন সংস্করণ

শিক্ষামন্ত্রী

করোনা মহামারিতে ঠিক কত ভাগ শিক্ষার্থী ঝরে পড়েছে তা এখনো নির্ণয় করা যায়নি বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। শনিবার দুপুরে চাঁদপুর শিল্পকলা একাডেমি মিলানায়তনে কমিউনিটি পুলিশিং ডে উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় তিনি এ তথ্য জানান।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে ৯০ ভাগের বেশি শিক্ষার্থীর অ্যাসাইনমেন্ট জমা পাচ্ছি। তার মানে তারা ঝরে পড়েনি। এখনো অনেক বাবা-মা তাদের সন্তানদের স্কুলে পাঠানো নিয়ে ভয়ে আছেন। যার ফলে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতির হার এখনো শতভাগ নয়। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে গেলে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি আরও বৃদ্ধি পাবে।

দীপু মনি বলেন, আমরা এখনো ঠিক বলতে পারছি না কতসংখ্যক শিশু ঝরে পড়েছে। তবে কিছু হয়তো ঝরে পড়েছে। যাদের একটু আর্থিক সমস্যা রয়েছে, তারা ছেলেমেয়েদের কাজে লাগিয়ে দিয়েছে। বিশেষ করে মেয়েদের ক্ষেত্রে হয়তো কারও বাল্যবিয়ে হয়ে গেছে। যদিও বাল্যবিয়ে হওয়া উচিত ছিল না এবং এজন্য আইনত যে ব্যবস্থা নেওয়ার সেটা নেওয়া উচিত। মন্ত্রী এ সময় বলেন, সেই মেয়েরা যেখানেই থাকুক তারা যেন স্কুলে ফিরে আসে। তাদের পড়াশুনার সুযোগ তৈরি করে দিতে শিক্ষকদের বিশেষভাবে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

চাঁদপুর পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন- ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক দাউদ হোসেন চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নাছির উদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল, চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র জিল্লুর রহমান জুয়েল, জেলা কমিউনি পুলিশের সভাপতি ডা. এসএম সহিদ উল্লাহ, চাঁদপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটওয়ারী, স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত নারী মুক্তিযোদ্ধা ডা. সৈয়দা বদরুন নাহার চৌধুরী।

ডা. পীযূষ কান্তি বড়ুয়ার পরিচালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুদীপ্ত রায়, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আসিফ মহীউদ্দীন, চাঁদপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সানজিদা শাহনাজ, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সুভাষ চন্দ্র রায়, জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি বিনয় ভূষণ মজুমদার, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক তাফাজ্জল হোসেন পাটওয়ারী প্রমুখ।

‘করোনায় ঝরেপড়া শিক্ষার্থীদের হার এখনো নির্ণয় হয়নি’

 চাঁদপুর প্রতিনিধি 
৩০ অক্টোবর ২০২১, ০৭:১৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
শিক্ষামন্ত্রী
ফাইল ছবি

করোনা মহামারিতে ঠিক কত ভাগ শিক্ষার্থী ঝরে পড়েছে তা এখনো নির্ণয় করা যায়নি বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। শনিবার দুপুরে চাঁদপুর শিল্পকলা একাডেমি মিলানায়তনে কমিউনিটি পুলিশিং ডে উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় তিনি এ তথ্য জানান। 

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে ৯০ ভাগের বেশি শিক্ষার্থীর অ্যাসাইনমেন্ট জমা পাচ্ছি। তার মানে তারা ঝরে পড়েনি। এখনো অনেক বাবা-মা তাদের সন্তানদের স্কুলে পাঠানো নিয়ে ভয়ে আছেন। যার ফলে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতির হার এখনো শতভাগ নয়। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে গেলে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি আরও বৃদ্ধি পাবে।

দীপু মনি বলেন, আমরা এখনো ঠিক বলতে পারছি না কতসংখ্যক শিশু ঝরে পড়েছে। তবে কিছু হয়তো ঝরে পড়েছে। যাদের একটু আর্থিক সমস্যা রয়েছে, তারা ছেলেমেয়েদের কাজে লাগিয়ে দিয়েছে। বিশেষ করে মেয়েদের ক্ষেত্রে হয়তো কারও বাল্যবিয়ে হয়ে গেছে। যদিও বাল্যবিয়ে হওয়া উচিত ছিল না এবং এজন্য আইনত যে ব্যবস্থা নেওয়ার সেটা নেওয়া উচিত। মন্ত্রী এ সময় বলেন, সেই মেয়েরা যেখানেই থাকুক তারা যেন স্কুলে ফিরে আসে। তাদের পড়াশুনার সুযোগ তৈরি করে দিতে শিক্ষকদের বিশেষভাবে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

চাঁদপুর পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন- ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক দাউদ হোসেন চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নাছির উদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল, চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র জিল্লুর রহমান জুয়েল, জেলা কমিউনি পুলিশের সভাপতি ডা. এসএম সহিদ উল্লাহ, চাঁদপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটওয়ারী, স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত নারী মুক্তিযোদ্ধা ডা. সৈয়দা বদরুন নাহার চৌধুরী। 

ডা. পীযূষ কান্তি বড়ুয়ার পরিচালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুদীপ্ত রায়, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আসিফ মহীউদ্দীন, চাঁদপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সানজিদা শাহনাজ, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সুভাষ চন্দ্র রায়, জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি বিনয় ভূষণ মজুমদার, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক তাফাজ্জল হোসেন পাটওয়ারী প্রমুখ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন