আ.লীগ নেতা খুন: জবানবন্দিতে চাঞ্চল্যকর তথ্য দিল আসামি
jugantor
আ.লীগ নেতা খুন: জবানবন্দিতে চাঞ্চল্যকর তথ্য দিল আসামি

  নোয়াখালী প্রতিনিধি  

৩১ অক্টোবর ২০২১, ১১:৫২:২১  |  অনলাইন সংস্করণ

হত্যা

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে মীরওয়ারিশপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবু ছায়েদ ভূঞা রিপনকে (৪৮) কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় এক আসামি ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

আসামি রাশেদুজ্জামান অন্তর (২২) বেগমগঞ্জ উপজেলার তালুয়া চাঁদপুর গ্রামের মৃত নূর হোসেন আজগরের ছেলে।

রোববার নোয়াখালী পুলিশ সুপার (এসপি) মো. শহীদুল ইসলাম জানান, শনিবার জেলার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এমদাদুল হক ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় এ জবানবন্দি রেকর্ড করেন।

পুলিশ সুপার বলেন, আওয়ামী লীগ নেতা রিপনকে হত্যার ঘটনায় দোষ স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন আসামি। জবানবন্দিতে আসামি অনেক চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বুধবার দিবাগত গভীর রাতে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার মীরওয়ারিশপুর ইউনিয়নের বারিয়াহাট গাছতলা নামক স্থানে আবু ছায়েদ ভূঞা রিপনকে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এ সময় দুর্বৃত্তরা তার সঙ্গে থাকা আড়াই লাখ টাকা লুট করে নিয়ে যায়।

নিহত আবু সায়েদ ভূঁইয়া রিপন (৫০) উপজেলার মীরওয়ারিশ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ১নং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও একই ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের কালুয়া চাঁদপুর গ্রামের ভূঁইয়াবাড়ির মৃত রফিক ভূঁইয়ার ছেলে।

বৃহস্পতিবার সকালে পুলিশ নিহতের বাড়ির সংলগ্ন মীরওয়ারিশপুর ইউনিয়নের বারিয়াহাট গাছতলা নামক এলাকা থেকে মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

তবে তাৎক্ষণিক পুলিশ এবং নিহতের পরিবার এ হত্যাকাণ্ডের কোনো কারণ জানাতে পারেনি। পরে এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী পারভীন আক্তার বাদী হয়ে গত শুক্রবার বিকালে বেগমগঞ্জ মডেল থানায় মামলা করেন। মামলায় পাঁচজনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত পরিচয়ের আরও ৭-৮ জনকে আসামি করা হয়েছে।

আ.লীগ নেতা খুন: জবানবন্দিতে চাঞ্চল্যকর তথ্য দিল আসামি

 নোয়াখালী প্রতিনিধি 
৩১ অক্টোবর ২০২১, ১১:৫২ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
হত্যা
ফাইল ছবি

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে মীরওয়ারিশপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবু ছায়েদ ভূঞা রিপনকে (৪৮) কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় এক আসামি ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

আসামি রাশেদুজ্জামান অন্তর (২২) বেগমগঞ্জ উপজেলার তালুয়া চাঁদপুর গ্রামের মৃত নূর হোসেন আজগরের ছেলে।

রোববার নোয়াখালী পুলিশ সুপার (এসপি) মো. শহীদুল ইসলাম জানান, শনিবার জেলার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এমদাদুল হক ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় এ জবানবন্দি রেকর্ড করেন। 

পুলিশ সুপার বলেন, আওয়ামী লীগ নেতা রিপনকে হত্যার ঘটনায় দোষ স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন আসামি। জবানবন্দিতে আসামি অনেক চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বুধবার দিবাগত গভীর রাতে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার মীরওয়ারিশপুর ইউনিয়নের বারিয়াহাট গাছতলা নামক স্থানে আবু ছায়েদ ভূঞা রিপনকে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এ সময় দুর্বৃত্তরা তার সঙ্গে থাকা আড়াই লাখ টাকা লুট করে নিয়ে যায়।

নিহত আবু সায়েদ ভূঁইয়া রিপন (৫০) উপজেলার মীরওয়ারিশ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ১নং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও একই ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের কালুয়া চাঁদপুর গ্রামের ভূঁইয়াবাড়ির মৃত রফিক ভূঁইয়ার ছেলে। 

বৃহস্পতিবার সকালে পুলিশ নিহতের বাড়ির সংলগ্ন মীরওয়ারিশপুর ইউনিয়নের বারিয়াহাট গাছতলা নামক এলাকা থেকে মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। 

তবে তাৎক্ষণিক পুলিশ এবং নিহতের পরিবার এ হত্যাকাণ্ডের কোনো কারণ জানাতে পারেনি। পরে এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী পারভীন আক্তার বাদী হয়ে গত শুক্রবার বিকালে বেগমগঞ্জ মডেল থানায় মামলা করেন। মামলায় পাঁচজনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত পরিচয়ের আরও ৭-৮ জনকে আসামি করা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন