ক্যান্সারের কাছে হার মানলেন সাংবাদিক শ্যামল
jugantor
ক্যান্সারের কাছে হার মানলেন সাংবাদিক শ্যামল

  রাজবাড়ী প্রতিনিধি  

৩১ অক্টোবর ২০২১, ২২:৫৪:২৯  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজবাড়ীতে ক্যান্সারের কাছে হার মানলেন ইত্তেফাকের সাবেক রাজবাড়ী জেলা প্রতিনিধি সাংবাদিক শ্যামল মজুমদার (৭১)। রোববার সকাল ৮টার দিকে অসুস্থ অবস্থায় নিজ বাসভাবনে মৃত্যুবরণ করেন তিনি।

শ্যামল মজুমদারের বাড়ি শহরের ভাজনচালা এলাকায়। তার মৃত্যুতে রাজবাড়ীর গণমাধ্যকর্মীদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

শ্যামল মজুমদার ১৯৭২ সাল থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত দীর্ঘ ৪১ বছর ধরে দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকায় দায়িত্ব পালন করেছেন। ২০১৩ সালে তিনি অসুস্থ হলে ইত্তেফাক কর্তৃপক্ষ তাকে অব্যাহতি প্রদান করেন। এরপর সাংবাদিকতা থেকে সরে যান তিনি। এছাড়াও তিনি রাজবাড়ী প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বও পালন করেন।

মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, পুত্র ও কন্যা রেখে গেছেন। বিকাল ৩টায় রাজবাড়ী পৌর মহাশ্মশানে তার শেষকৃত্য অনুষ্ঠিত হয়।

শ্যামল মজুমদারের পুত্র তুষার মজুমদার বলেন, আমার বাবা ২০১৩ সালে ক্যান্সারে আক্রান্ত হন। বিভিন্ন সময়ে হাসপাতালসহ বাড়িতে রেখে চিকিৎসা করা হয়। গত শনিবার মাঝরাত থেকে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। সকালে হাসপাতালে নেওয়ার প্রস্তুতির সময় তিনি মারা যান।

শ্যামল মজুমদারের সহকর্মী ও দৈনিক সংবাদের রাজবাড়ী জেলা প্রতিনিধি এম দেলোয়ার হোসেন বলেন, শ্যামল মজুমদার সাংবাদিকদের জন্য আদর্শ। তিনি তার পেশাগত দায়িত্ব পালনে অবহেলা করেননি। বিভিন্ন প্রতিকূলতার মাঝেও তিনি নিজের পেশার প্রতি শ্রদ্ধাশীল ছিলেন।

শ্যামল মজুমদারের মৃত্যুতে রাজবাড়ী-২ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. জিল্লুল হাকিম, সাধারণ সম্পাদক কাজী ইরাদত আলী, রাজবাড়ী প্রেস ক্লাবের সভাপতি অ্যাডভোকেট খান মো. জহুরুল হক, সাধারণ সম্পাদক খোন্দকার আব্দুল মতিনসহ গণমাধ্যমকর্মীরা শোকার্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

ক্যান্সারের কাছে হার মানলেন সাংবাদিক শ্যামল

 রাজবাড়ী প্রতিনিধি 
৩১ অক্টোবর ২০২১, ১০:৫৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজবাড়ীতে ক্যান্সারের কাছে হার মানলেন ইত্তেফাকের সাবেক রাজবাড়ী জেলা প্রতিনিধি সাংবাদিক শ্যামল মজুমদার (৭১)। রোববার সকাল ৮টার দিকে অসুস্থ অবস্থায় নিজ বাসভাবনে মৃত্যুবরণ করেন তিনি।

শ্যামল মজুমদারের বাড়ি শহরের ভাজনচালা এলাকায়। তার মৃত্যুতে রাজবাড়ীর গণমাধ্যকর্মীদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

শ্যামল মজুমদার ১৯৭২ সাল থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত দীর্ঘ ৪১ বছর ধরে দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকায় দায়িত্ব পালন করেছেন। ২০১৩ সালে তিনি অসুস্থ হলে ইত্তেফাক কর্তৃপক্ষ তাকে অব্যাহতি প্রদান করেন। এরপর সাংবাদিকতা থেকে সরে যান তিনি। এছাড়াও তিনি রাজবাড়ী প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বও পালন করেন।

মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, পুত্র ও কন্যা রেখে গেছেন। বিকাল ৩টায় রাজবাড়ী পৌর মহাশ্মশানে তার শেষকৃত্য অনুষ্ঠিত হয়।

শ্যামল মজুমদারের পুত্র তুষার মজুমদার বলেন, আমার বাবা ২০১৩ সালে ক্যান্সারে আক্রান্ত হন। বিভিন্ন সময়ে হাসপাতালসহ বাড়িতে রেখে চিকিৎসা করা হয়। গত শনিবার মাঝরাত থেকে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। সকালে হাসপাতালে নেওয়ার প্রস্তুতির সময় তিনি মারা যান।

শ্যামল মজুমদারের সহকর্মী ও দৈনিক সংবাদের রাজবাড়ী জেলা প্রতিনিধি এম দেলোয়ার হোসেন বলেন, শ্যামল মজুমদার সাংবাদিকদের জন্য আদর্শ। তিনি তার পেশাগত দায়িত্ব পালনে অবহেলা করেননি। বিভিন্ন প্রতিকূলতার মাঝেও তিনি নিজের পেশার প্রতি শ্রদ্ধাশীল ছিলেন।

শ্যামল মজুমদারের মৃত্যুতে রাজবাড়ী-২ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. জিল্লুল হাকিম, সাধারণ সম্পাদক কাজী ইরাদত আলী, রাজবাড়ী প্রেস ক্লাবের সভাপতি অ্যাডভোকেট খান মো. জহুরুল হক, সাধারণ সম্পাদক খোন্দকার আব্দুল মতিনসহ গণমাধ্যমকর্মীরা শোকার্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন