বিয়ের দাবিতে বাড়িতে প্রেমিকার অনশন, পলাতক প্রেমিক
jugantor
বিয়ের দাবিতে বাড়িতে প্রেমিকার অনশন, পলাতক প্রেমিক

  চরফ্যাশন দক্ষিণ (ভোলা) প্রতিনিধি  

০৩ নভেম্বর ২০২১, ২২:২৩:৪৩  |  অনলাইন সংস্করণ

শশীভূষণ থানা

চরফ্যাশন উপজেলার শশীভূষণে বিয়ের দাবিতে বিষের কৌটা সঙ্গে নিয়ে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন শুরু করেন কিশোরী। তাকে মঙ্গলবার রাত ৩টায় শশীভূষণ থানা পুলিশ উদ্ধার করেছে। এ ঘটনার পর থেকে প্রেমিক গা-ঢাকা দিয়েছেন।

থানা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে উপজেলার শশীভূষণ থানার এওয়াজপুর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডে এওয়াজপুর গ্রামে প্রেমিকের বাড়িতে এ ঘটনাটি ঘটছে। প্রেমিক মো. খুসবুল্লাহ (২০) শশীভূষণ থানার এওয়াজপুর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের এওয়াজপুর গ্রামের মো. জুলফিকার আলী ভুট্টোর ছেলে।

অনশনরত ওই কিশোরী ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী। এ ঘটনার পর থেকে প্রেমিক খুসবুল্লাহ গা-ঢাকা দিয়েছেন। এ ঘটনায় ওই এলাকার সাধারণ মানুষের মধ্যে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

খুসবুল্লাহর পিতা মো. জুলফিকার আলী ভুট্টো কোনো বক্তব্য দিতে রাজি হননি।

এ বিষয়ে এওয়াজপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রভাষক মাহাবুব আলম খোকন বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। মেয়েটি নবম শ্রেণিতে পড়ে, তার পরিবারের সদস্যদের খবর দেওয়া হয়েছে।

শশীভূষণ থানার ওসি মো. মিজানুর রহমান পাটোয়ারী বলেন, মঙ্গলবার রাতে তাকে উদ্ধার করে শশীভূষণ থানায় আনা হয়েছে। অভিযোগ করলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বিয়ের দাবিতে বাড়িতে প্রেমিকার অনশন, পলাতক প্রেমিক

 চরফ্যাশন দক্ষিণ (ভোলা) প্রতিনিধি 
০৩ নভেম্বর ২০২১, ১০:২৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
শশীভূষণ থানা
ফাইল ছবি

চরফ্যাশন উপজেলার শশীভূষণে বিয়ের দাবিতে বিষের কৌটা সঙ্গে নিয়ে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন শুরু করেন কিশোরী। তাকে মঙ্গলবার রাত ৩টায় শশীভূষণ থানা পুলিশ উদ্ধার করেছে। এ ঘটনার পর থেকে প্রেমিক গা-ঢাকা দিয়েছেন।

থানা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে উপজেলার শশীভূষণ থানার এওয়াজপুর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডে এওয়াজপুর গ্রামে প্রেমিকের বাড়িতে এ ঘটনাটি ঘটছে। প্রেমিক মো. খুসবুল্লাহ (২০) শশীভূষণ থানার এওয়াজপুর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের এওয়াজপুর গ্রামের মো. জুলফিকার আলী ভুট্টোর ছেলে।

অনশনরত ওই কিশোরী ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী। এ ঘটনার পর থেকে প্রেমিক খুসবুল্লাহ গা-ঢাকা দিয়েছেন। এ ঘটনায় ওই এলাকার সাধারণ মানুষের মধ্যে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

খুসবুল্লাহর পিতা মো. জুলফিকার আলী ভুট্টো কোনো বক্তব্য দিতে রাজি হননি।

এ বিষয়ে এওয়াজপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রভাষক মাহাবুব আলম খোকন বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। মেয়েটি নবম শ্রেণিতে পড়ে, তার পরিবারের সদস্যদের খবর দেওয়া হয়েছে।

শশীভূষণ থানার ওসি মো. মিজানুর রহমান পাটোয়ারী বলেন, মঙ্গলবার রাতে তাকে উদ্ধার করে শশীভূষণ থানায় আনা হয়েছে। অভিযোগ করলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন