নোয়াখালীর সহিংসতা: ৩২ মামলার ৬টি তদন্ত করছে সিআইডি
jugantor
নোয়াখালীর সহিংসতা: ৩২ মামলার ৬টি তদন্ত করছে সিআইডি

  নোয়াখালী প্রতিনিধি  

০৩ নভেম্বর ২০২১, ২২:৩৮:৩৫  |  অনলাইন সংস্করণ

নোয়াখালীর চৌমুহনী ও হাতিয়ায় দুর্গাপূজা উপলক্ষে সাম্প্রদায়িক সহিংসতার ৩২টি মামলার মধ্যে নোয়াখালী সিআইডি বেগমগঞ্জের ৪টি ও হাতিয়ার ২টি মামলার তদন্ত শুরু করেছে। ইতোমধ্যে ৪ আসামিকে গ্রেফতার করেছে সিআইডি।

নোয়াখালী সিআইডির পরিদর্শক রফিকুল ইসলাম জানান, নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে চৌমুহনী ও হাতিয়ায় সহিংসতার ঘটনায় ৩২টি মামলার মধ্যে বেগমগঞ্জের ৪টি ও হাতিয়ার দুটি মামলা সিআইডিকে তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

এর মধ্যে বেগমগঞ্জ থানার মামলা নং-২৭ এর তদন্ত করছেন সিআইডি পরিদর্শক গিয়াস উদ্দিন, ২৯নং মামলা তদন্ত করছেন পরিদর্শক ফরিদ উদ্দিন খন্দকার, ৩১নং মামলা তদন্ত করছেন পরিদর্শক সামছুল আরেফিন, ১৯নং মামলার তদন্ত করছেন এসআই আবু নোমান।

অন্যদিকে হাতিয়ার ১৭নং মামলা তদন্ত করছেন এসআই আবু নোমান ও ১০নং মামলা তদন্ত করছেন পরিদর্শক গিয়াস উদ্দিন মজুমদার।

পরিদর্শক রফিকুল ইসলাম জানান, এই ৬টি মামলার মধ্যে ৪টি চার দিন থেকে এবং ২টি দুই দিন ধরে তদন্তে নেমেছে সিআইডি। ইতোমধ্যে ৪ জনকে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। তদন্তের স্বার্থে তিনি আর বেশি কিছু বলতে অপারগতা প্রকাশ করেন।

উল্লেখ্য, ১৫ অক্টোবর জেলার চৌমুহনী, ছয়ানী ও হাতিয়ায় জুমার নামাজ শেষে কুমিল্লায় দুর্গাপূজা মণ্ডপে পবিত্র কুরআন অবমাননাকে কেন্দ্র করে মুসল্লিরা মিছিল বের করে ৩২টি পূজামণ্ডপ ও মন্দিরে হামলা করে ভাংচুর ও লুটপাট করে। এ ঘটনায় চৌমুহনীর ইসকন মন্দিরে ২ জন নিহতসহ জেলার বিভিন্ন স্থানে ৫০ জনের অধিক আহত হয়। বেগমগঞ্জের তৎকালীন ওসি কামরুজ্জামান সিকদারসহ ৪ পুলিশ আহত হয়েছিলেন।

নোয়াখালীর সহিংসতা: ৩২ মামলার ৬টি তদন্ত করছে সিআইডি

 নোয়াখালী প্রতিনিধি 
০৩ নভেম্বর ২০২১, ১০:৩৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নোয়াখালীর চৌমুহনী ও হাতিয়ায় দুর্গাপূজা উপলক্ষে সাম্প্রদায়িক সহিংসতার ৩২টি মামলার মধ্যে নোয়াখালী সিআইডি বেগমগঞ্জের ৪টি ও হাতিয়ার ২টি মামলার তদন্ত শুরু করেছে। ইতোমধ্যে ৪ আসামিকে গ্রেফতার করেছে সিআইডি।

নোয়াখালী সিআইডির পরিদর্শক রফিকুল ইসলাম জানান, নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে চৌমুহনী ও হাতিয়ায় সহিংসতার ঘটনায় ৩২টি মামলার মধ্যে বেগমগঞ্জের ৪টি ও হাতিয়ার দুটি মামলা সিআইডিকে তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

এর মধ্যে বেগমগঞ্জ থানার মামলা নং-২৭ এর তদন্ত করছেন সিআইডি পরিদর্শক গিয়াস উদ্দিন, ২৯নং মামলা তদন্ত করছেন পরিদর্শক ফরিদ উদ্দিন খন্দকার, ৩১নং মামলা তদন্ত করছেন পরিদর্শক সামছুল আরেফিন, ১৯নং মামলার তদন্ত করছেন এসআই আবু নোমান।

অন্যদিকে হাতিয়ার ১৭নং মামলা তদন্ত করছেন এসআই আবু নোমান ও ১০নং মামলা তদন্ত করছেন পরিদর্শক গিয়াস উদ্দিন মজুমদার। 

পরিদর্শক রফিকুল ইসলাম জানান, এই ৬টি মামলার মধ্যে ৪টি চার দিন থেকে এবং ২টি দুই দিন ধরে তদন্তে নেমেছে সিআইডি। ইতোমধ্যে ৪ জনকে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। তদন্তের স্বার্থে তিনি আর বেশি কিছু বলতে অপারগতা প্রকাশ করেন। 

উল্লেখ্য, ১৫ অক্টোবর জেলার চৌমুহনী, ছয়ানী ও হাতিয়ায় জুমার নামাজ শেষে কুমিল্লায় দুর্গাপূজা মণ্ডপে পবিত্র কুরআন অবমাননাকে কেন্দ্র করে মুসল্লিরা মিছিল বের করে ৩২টি পূজামণ্ডপ ও মন্দিরে হামলা করে ভাংচুর ও লুটপাট করে। এ ঘটনায় চৌমুহনীর ইসকন মন্দিরে ২ জন নিহতসহ জেলার বিভিন্ন স্থানে ৫০ জনের অধিক আহত হয়। বেগমগঞ্জের তৎকালীন ওসি কামরুজ্জামান সিকদারসহ ৪ পুলিশ আহত হয়েছিলেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন