চরের ৬০০০ ভোটার এলাকা ছাড়া!
jugantor
চরের ৬০০০ ভোটার এলাকা ছাড়া!

  নরসিংদী প্রতিনিধি  

০৭ নভেম্বর ২০২১, ১৮:৩৩:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

নরসিংদীর দুর্গম চরাঞ্চল চরদিঘলদীতে ৩ চেয়ারম্যান প্রার্থী, ১৫ মেম্বার প্রার্থী, স্থানীয় আওয়ামী লীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকসহ ১২০০ পরিবারের প্রায় ৬০০০ ভোটার এলাকা ছাড়া করার অভিযোগে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছেন এলাকাবাসী।

মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল শেষে সদর আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম (বীরপ্রতীক), নরসিংদী জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা, জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার উপ-পরিচালক, ডিজিএফআই, নরসিংদী সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও র্যা ব-১১ দপ্তরে অভিযোগ দাখিল করেছেন তারা। এ সময় সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবিসহ এলাকায় ফিরে যেতে প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, আগামী ২৮ নভেম্বর আসন্ন চরদিঘলদী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন আওয়ামী লীগের ৪ নেতা। পরে নৌকার দলীয় মনোনয়ন পান দেলোয়ার হোসেন শাহীন। এতে নাখোশ স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা। এরই ফলশ্রুতিতে আওয়ামী লীগ থেকে আরও তিনজন প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী নির্বাচনে অংশ নেন। নির্বাচনী বৈতরণী পার হতে নৌকার দলীয় মনোনয়ন পান দেলোয়ার হোসেন শাহীন।

এরই মধ্যে আওয়ামী লীগের লোকজন স্বতন্ত্র নির্বাচনে অংশ নেওয়া চরদিঘলদী ইউনিয়ন যুবদল সভাপতি ও বিগত নির্বাচনে ধানের শীষের চেয়ারম্যান প্রার্থী ইউনুস ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীদের সঙ্গে হাত মেলায়। পরে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের প্রচারণায় বাধা দেয়াসহ তাদের বাড়িঘরে হামলা ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করে এলাকা ছাড়া করে।

বক্তারা আরও বলেন, আমরা সুষ্ঠু নির্বাচন চাই। সুষ্ঠুভাবে প্রচারণা ও ভোটাধিকার প্রয়োগের দাবি জানান তারা।

মানববন্ধনে অংশ নেন- স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল জলিল মিয়া, স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী আমির হোসেন, স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী পারভেজ মিয়া, ইউপি সদস্য প্রার্থী মুশিদুল হক সরকার, শেখ ফরিদ, নুলল ইসলাম মাধু, মো. মালুম মিয়া, খলিল মিয়া, শাহিদ মিয়া প্রমুখ।

চরের ৬০০০ ভোটার এলাকা ছাড়া!

 নরসিংদী প্রতিনিধি 
০৭ নভেম্বর ২০২১, ০৬:৩৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নরসিংদীর দুর্গম চরাঞ্চল চরদিঘলদীতে ৩ চেয়ারম্যান প্রার্থী, ১৫ মেম্বার প্রার্থী, স্থানীয় আওয়ামী লীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকসহ ১২০০ পরিবারের প্রায় ৬০০০ ভোটার এলাকা ছাড়া করার অভিযোগে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছেন এলাকাবাসী।

মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল শেষে সদর আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম (বীরপ্রতীক), নরসিংদী জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা, জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার উপ-পরিচালক, ডিজিএফআই, নরসিংদী সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও র্যা ব-১১ দপ্তরে অভিযোগ দাখিল করেছেন তারা। এ সময় সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবিসহ এলাকায় ফিরে যেতে প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, আগামী ২৮ নভেম্বর আসন্ন চরদিঘলদী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন আওয়ামী লীগের ৪ নেতা। পরে নৌকার দলীয় মনোনয়ন পান দেলোয়ার হোসেন শাহীন। এতে নাখোশ স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা। এরই ফলশ্রুতিতে আওয়ামী লীগ থেকে আরও তিনজন প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী নির্বাচনে অংশ নেন। নির্বাচনী বৈতরণী পার হতে নৌকার দলীয় মনোনয়ন পান দেলোয়ার হোসেন শাহীন।

এরই মধ্যে আওয়ামী লীগের লোকজন স্বতন্ত্র নির্বাচনে অংশ নেওয়া চরদিঘলদী ইউনিয়ন যুবদল সভাপতি ও বিগত নির্বাচনে ধানের শীষের চেয়ারম্যান প্রার্থী  ইউনুস ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীদের সঙ্গে হাত মেলায়। পরে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের প্রচারণায় বাধা দেয়াসহ তাদের বাড়িঘরে হামলা ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করে এলাকা ছাড়া করে।

বক্তারা আরও বলেন, আমরা সুষ্ঠু নির্বাচন চাই। সুষ্ঠুভাবে প্রচারণা ও ভোটাধিকার প্রয়োগের দাবি জানান তারা।

মানববন্ধনে অংশ নেন- স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল জলিল মিয়া, স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী আমির হোসেন, স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী পারভেজ মিয়া, ইউপি সদস্য প্রার্থী মুশিদুল হক সরকার, শেখ ফরিদ, নুলল ইসলাম মাধু, মো. মালুম মিয়া, খলিল মিয়া, শাহিদ মিয়া প্রমুখ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন