নিখোঁজের ১৪ দিন পর খালে গৃহবধূর অর্ধগলিত লাশ
jugantor
নিখোঁজের ১৪ দিন পর খালে গৃহবধূর অর্ধগলিত লাশ

  বাউফল ও দক্ষিণ (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি  

১৩ নভেম্বর ২০২১, ০১:১০:০৩  |  অনলাইন সংস্করণ

পটুয়াখালীর বাউফলে নিখোঁজের ১৪ দিন পর ফেরদৌসী বেগম (৩২) নামের এক গৃহবধূর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার দাসপাড়া ইউনিয়নের ফয়জর আলী মৃধা বাড়ি সংলগ্ন খাল থেকে ভাসমান অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

ফেরদৌসী বেগম দাসপাড়া ইউনিয়নের খেজুরবাড়িয়া গ্রামের জাকির মৃধার স্ত্রী। তাদের মোট ৪ সন্তান রয়েছে। ছোট সন্তান দুধের শিশু।

পুলিশ জানায়, গত ২৯ অক্টোবর বাড়ি থেকে ডাক্তার দেখানোর কথা বলে বাউফল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যান ফেরদৌসী বেগম। এরপর আর তিনি বাড়ি ফেরেননি। এ বিষয়টি জানিয়ে ফেরদৌসীর স্বামী বাউফল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

শুক্রবার বিকালে এলাকাবাসী খালে একটি লাশ ভাসতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ফেরদৌসীর আত্মীয় স্বজনকে খবর দিয়ে লাশ শনাক্ত করে। লাশটি উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য পটুয়াখালী হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়।

ফেরদৌসীর স্বামী জাকির মৃধা একটি বেকারি কারখানার কর্মচারী। ফেরদৌসী বেগম হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছে কিনা তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

বাউফল থানার ওসি আল মামুন বলেন, ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পেলে এ বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যাবে।

নিখোঁজের ১৪ দিন পর খালে গৃহবধূর অর্ধগলিত লাশ

 বাউফল ও দক্ষিণ (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি 
১৩ নভেম্বর ২০২১, ০১:১০ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পটুয়াখালীর বাউফলে নিখোঁজের ১৪ দিন পর ফেরদৌসী বেগম (৩২) নামের এক গৃহবধূর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার দাসপাড়া ইউনিয়নের ফয়জর আলী মৃধা বাড়ি সংলগ্ন খাল থেকে ভাসমান অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

ফেরদৌসী বেগম দাসপাড়া ইউনিয়নের খেজুরবাড়িয়া গ্রামের জাকির মৃধার স্ত্রী। তাদের মোট ৪ সন্তান রয়েছে। ছোট সন্তান দুধের শিশু।

পুলিশ জানায়, গত ২৯ অক্টোবর বাড়ি থেকে ডাক্তার দেখানোর কথা বলে বাউফল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যান ফেরদৌসী বেগম। এরপর আর তিনি বাড়ি ফেরেননি। এ বিষয়টি জানিয়ে ফেরদৌসীর স্বামী বাউফল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

শুক্রবার বিকালে এলাকাবাসী খালে একটি লাশ ভাসতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ফেরদৌসীর আত্মীয় স্বজনকে খবর দিয়ে লাশ শনাক্ত করে। লাশটি উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য পটুয়াখালী হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়।

ফেরদৌসীর স্বামী জাকির মৃধা একটি বেকারি কারখানার কর্মচারী। ফেরদৌসী বেগম হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছে কিনা তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

বাউফল থানার ওসি আল মামুন বলেন, ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পেলে এ বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যাবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন