তালগাছ নিয়ে কাড়াকাড়ি, নারী প্রার্থী লাঞ্ছিত
jugantor
তালগাছ নিয়ে কাড়াকাড়ি, নারী প্রার্থী লাঞ্ছিত

  হোমনা (কুমিল্লা) প্রতিনিধি  

১৩ নভেম্বর ২০২১, ১৮:৫১:৪০  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার হোমনায় তালগাছ প্রতীক নিয়ে বাগবিতণ্ডায় এক নারী প্রার্থী লাঞ্ছিত হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শুক্রবার আছাদপুর ইউনিয়নের ৩নং সংরক্ষিত নারী প্রার্থী সামসুন নাহার তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী মিনারা বেগমের লোকজন কর্তৃক লাঞ্ছিত হয়েছেন বলে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপস্থিত হয়ে আছাদপুর ইউনিয়নের ৩নং সংরক্ষিত নারী আসনের প্রার্থী সামসুন নাহার ও মিনারা বেগম দুজনেই তালগাছ প্রতীক বরাদ্দ চান। এ নিয়ে নির্বাচন কর্মকর্তা লটারি দিতে চাইলে মিনারা বেগমের লোকজন ভেতরেই হট্টগোল শুরু করে লটারিতে বাধা দেয়।

পরে নির্বাচন কর্মকর্তার অনুরোধে মিনারা বেগম তালগাছ এবং সামসুন নাহার সূর্যমুখী ফুল প্রতীক মেনে নেন। পরবর্তীতে হলরুম থেকে বাহির হলে মিনারা বেগমের ভাই জয়নাল মিয়ার নেতৃত্বে কয়েকজন বহিরাগত লোক নারী প্রার্থী সামসুন নাহারকে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর জন্য হুমকি প্রদর্শন করে একপর্যায়ে তাকে লাঞ্ছিত ও শ্লীলতাহানি করে।

এ বিষয়ে মিনারা বেগম বলেন, আমি গত নির্বাচনে তালগাছ মার্কায় নির্বাচন করে পাস করেছি। তাই তাকে তালগাছ মার্কাটি আমাকে ছেড়ে দেওয়ার অনুরোধ করেছি। সে রাজি না হওয়ায় এ নিয়ে হট্টগোল হয়েছে। কোনো লাঞ্ছিতের ঘটনা ঘটেনি।

হোমনা থানার ওসি মো. আবুল কায়েস আকন্দ বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তালগাছ নিয়ে কাড়াকাড়ি, নারী প্রার্থী লাঞ্ছিত

 হোমনা (কুমিল্লা) প্রতিনিধি 
১৩ নভেম্বর ২০২১, ০৬:৫১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার হোমনায় তালগাছ প্রতীক নিয়ে বাগবিতণ্ডায় এক নারী প্রার্থী লাঞ্ছিত হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

শুক্রবার আছাদপুর ইউনিয়নের ৩নং সংরক্ষিত নারী প্রার্থী সামসুন নাহার তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী মিনারা বেগমের লোকজন কর্তৃক লাঞ্ছিত হয়েছেন বলে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। 

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপস্থিত হয়ে আছাদপুর ইউনিয়নের ৩নং সংরক্ষিত নারী আসনের প্রার্থী সামসুন নাহার ও মিনারা বেগম দুজনেই তালগাছ প্রতীক বরাদ্দ চান। এ নিয়ে নির্বাচন কর্মকর্তা লটারি দিতে চাইলে মিনারা বেগমের লোকজন ভেতরেই হট্টগোল শুরু করে লটারিতে বাধা দেয়।

পরে নির্বাচন কর্মকর্তার অনুরোধে মিনারা বেগম তালগাছ এবং সামসুন নাহার সূর্যমুখী ফুল প্রতীক মেনে নেন। পরবর্তীতে হলরুম থেকে বাহির হলে মিনারা বেগমের ভাই জয়নাল মিয়ার নেতৃত্বে কয়েকজন বহিরাগত লোক নারী প্রার্থী সামসুন নাহারকে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর জন্য হুমকি প্রদর্শন করে একপর্যায়ে তাকে লাঞ্ছিত ও শ্লীলতাহানি করে।

এ বিষয়ে মিনারা বেগম বলেন, আমি গত নির্বাচনে তালগাছ মার্কায় নির্বাচন করে পাস করেছি। তাই তাকে তালগাছ মার্কাটি আমাকে ছেড়ে দেওয়ার অনুরোধ করেছি। সে রাজি না হওয়ায় এ নিয়ে হট্টগোল হয়েছে। কোনো লাঞ্ছিতের ঘটনা ঘটেনি।

হোমনা থানার ওসি মো. আবুল কায়েস আকন্দ বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন