বাড়িতে বাবার লাশ রেখে এসএসসি পরীক্ষায় সিনথিয়া
jugantor
বাড়িতে বাবার লাশ রেখে এসএসসি পরীক্ষায় সিনথিয়া

  পলাশ (নরসিংদী) প্রতিনিধি  

১৪ নভেম্বর ২০২১, ১৬:০৬:১৭  |  অনলাইন সংস্করণ

নরসিংদীর পলাশে এসএসসি পরীক্ষার্থী সিনথিয়া কবির বাড়িতে বাবার লাশ রেখে চোখে অশ্রু নিয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে।

বাবাকে হারিয়ে অনেকটা নির্বাক হয়েও সহপাঠী ও কেন্দ্র সচিবের সহযোগিতায় ঘোড়াশাল ডা. নজরুল বিন নূর মহসিন বালিকা বিদ্যালয় ও কলেজে ওই ছাত্রী রোববার এসএসসির প্রথম দিনের পরীক্ষায় অংশ নেয়।

সিনথিয়া কবিরের বাবার মৃত্যুর খবরে পরীক্ষা কেন্দ্রে এক শোকের ছায়া নেমে আসে। এক হাতে চোখ মুছে ও অন্য হাতে খাতায় লিখতে দেখা গেছে সিনথিয়া কবিরকে। সিনথিয়া কবির পলাশের ঘোড়াশাল পৌর এলাকার জনতা আদর্শ বিদ্যাপীঠের ছাত্রী।

রোববার ফজরের নামাজের পর সিনথিয়া কবিরের বাবা হুমায়ুন কবির (৪৯) মৃত্যুবরণ করেন। হুমায়ুন কবির উপজেলার ঘোড়াশাল পৌর এলাকার পলাশ কুটিরপাড়া এলাকার মৃত মোখলেছ সরদারের ছেলে।

নিহতের স্বজনরা জানান, হুমায়ুন কবির হার্টএটাক করে রোববার ভোরে নিজ বাড়িতে মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুর পর বাবা হারা সিনথিয়া এসএসসি পরীক্ষা দিতে ঘোড়াশাল নূর মহসিন বালিকা বিদ্যালয় ও কলেজের পরীক্ষা কেন্দ্রে পরীক্ষা দিতে বসেছে।

ডা. নূর মহসিন বালিকা বিদ্যালয় ও কলেজর অধ্যক্ষ ও পরীক্ষা কেন্দ্রের কেন্দ্র সচিব রিনা নাসরিন জানান, পরীক্ষার্থী সিনথিয়া কবিরের বাবার মৃত্যুর বিষয়টি আমরা অবগত আছি। তার জন্য কোনো বিশেষ ব্যবস্থায় পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে না। সে সবার সঙ্গে স্বাভাবিকভাবেই পরীক্ষা দিচ্ছে। আমরা মনে করি বিশেষ কোনো ব্যবস্থা ছাড়া সবার সঙ্গে পরীক্ষা দিলে তার জন্য ভালো হবে। আমরাও তাকে সান্তনা ও উৎসাহ দিয়েছি পরীক্ষা দিতে এবং তার দিকে সার্বক্ষণিক নজর রাখা হয়েছে।

বাড়িতে বাবার লাশ রেখে এসএসসি পরীক্ষায় সিনথিয়া

 পলাশ (নরসিংদী) প্রতিনিধি 
১৪ নভেম্বর ২০২১, ০৪:০৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নরসিংদীর পলাশে এসএসসি পরীক্ষার্থী সিনথিয়া কবির বাড়িতে বাবার লাশ রেখে চোখে অশ্রু নিয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে।

বাবাকে হারিয়ে অনেকটা নির্বাক হয়েও সহপাঠী ও কেন্দ্র সচিবের সহযোগিতায় ঘোড়াশাল ডা. নজরুল বিন নূর মহসিন বালিকা বিদ্যালয় ও কলেজে ওই ছাত্রী রোববার এসএসসির প্রথম দিনের পরীক্ষায় অংশ নেয়।

সিনথিয়া কবিরের বাবার মৃত্যুর খবরে পরীক্ষা কেন্দ্রে এক শোকের ছায়া নেমে আসে। এক হাতে চোখ মুছে ও অন্য হাতে খাতায় লিখতে দেখা গেছে সিনথিয়া কবিরকে। সিনথিয়া কবির পলাশের ঘোড়াশাল পৌর এলাকার জনতা আদর্শ বিদ্যাপীঠের ছাত্রী।

রোববার ফজরের নামাজের পর সিনথিয়া কবিরের বাবা হুমায়ুন কবির (৪৯) মৃত্যুবরণ করেন। হুমায়ুন কবির উপজেলার ঘোড়াশাল পৌর এলাকার পলাশ কুটিরপাড়া এলাকার মৃত মোখলেছ সরদারের ছেলে।

নিহতের স্বজনরা জানান, হুমায়ুন কবির হার্টএটাক করে রোববার ভোরে নিজ বাড়িতে মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুর পর বাবা হারা সিনথিয়া এসএসসি পরীক্ষা দিতে ঘোড়াশাল নূর মহসিন বালিকা বিদ্যালয় ও কলেজের পরীক্ষা কেন্দ্রে পরীক্ষা দিতে বসেছে।

ডা. নূর মহসিন বালিকা বিদ্যালয় ও কলেজর অধ্যক্ষ ও পরীক্ষা কেন্দ্রের কেন্দ্র সচিব রিনা নাসরিন জানান, পরীক্ষার্থী সিনথিয়া কবিরের বাবার মৃত্যুর বিষয়টি আমরা অবগত আছি। তার জন্য কোনো বিশেষ ব্যবস্থায় পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে না। সে সবার সঙ্গে স্বাভাবিকভাবেই পরীক্ষা দিচ্ছে। আমরা মনে করি বিশেষ কোনো ব্যবস্থা ছাড়া সবার সঙ্গে পরীক্ষা দিলে তার জন্য ভালো হবে। আমরাও তাকে সান্তনা ও উৎসাহ দিয়েছি পরীক্ষা দিতে এবং তার দিকে সার্বক্ষণিক নজর রাখা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন