প্রার্থীর পক্ষে কাজ না করায় টাকা দাবি মারধর
jugantor
প্রার্থীর পক্ষে কাজ না করায় টাকা দাবি মারধর

  শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি  

১৪ নভেম্বর ২০২১, ২০:১০:৪৯  |  অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ার শেরপুরের মির্জাপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী মো. মিন্টু মিয়ার পক্ষে কাজ না করায় পরিতোষ চন্দ্র সরকারের কাছে চাঁদা দাবি করা হয়েছে। দাবিকৃত চাঁদার টাকা না পেয়ে রোববার সকালে পরাজিত ইউপি সদস্য মিন্টু মিয়া তাকে মারধর করে বলে অভিযোগ উঠেছে।

জানা যায়, সদ্যসমাপ্ত দ্বিতীয় ধাপের নির্বাচনে উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের তালতা গ্রামের শ্রী অমুল্য চন্দ্র সরকারের ছেলে শ্রী পরিতোষ চন্দ্র সরকার ১নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী মো. মিন্টু মিয়ার পক্ষে নির্বাচনী কাজ না করে সংরক্ষিত মহিলা ইউপি সদস্য মোছা. মিনু খাতুনের পক্ষে নির্বাচনী কাজ করেন। মিন্টু মিয়া নির্বাচনে হেরে যান।

এতে সে ক্ষুব্ধ হয়ে গত শনিবার বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে মোবাইল ফোনে পরিতোষকে তালতা বাজার এলাকায় ডেকে এনে ৫০ হাজার টাকা দাবি করেন। দাবিকৃত টাকা না দেওয়ায় রোববার সকাল ১০টার দিকে পরাজিত প্রার্থী মিন্টু, সাত্তারসহ ৪-৫ জন সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্র ও লাঠিসোটা নিয়ে পরিতোষের বাড়িতে গিয়ে তাকে বেধড়ক মারধর করেন। এ ঘটনায় শেরপুর থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে আহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে।

আহতের পিতা অমুল্য চন্দ্র সরকার বলেন, আমার ছেলে পরিতোষকে ডেকে নিয়ে অন্যায়ভাবে ৫০ হাজার টাকা দাবি ও মারধর করে মিন্টু ও সাত্তাররা।

এ ব্যাপারে শেরপুর থানার ওসি শহিদুল ইসলাম বলেন, অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

প্রার্থীর পক্ষে কাজ না করায় টাকা দাবি মারধর

 শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি 
১৪ নভেম্বর ২০২১, ০৮:১০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ার শেরপুরের মির্জাপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী মো. মিন্টু মিয়ার পক্ষে কাজ না করায় পরিতোষ চন্দ্র সরকারের কাছে চাঁদা দাবি করা হয়েছে। দাবিকৃত চাঁদার টাকা না পেয়ে রোববার সকালে পরাজিত ইউপি সদস্য মিন্টু মিয়া তাকে মারধর করে বলে অভিযোগ উঠেছে।

জানা যায়, সদ্যসমাপ্ত দ্বিতীয় ধাপের নির্বাচনে উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের তালতা গ্রামের শ্রী অমুল্য চন্দ্র সরকারের ছেলে শ্রী পরিতোষ চন্দ্র সরকার ১নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী মো. মিন্টু মিয়ার পক্ষে নির্বাচনী কাজ না করে সংরক্ষিত মহিলা ইউপি সদস্য মোছা. মিনু খাতুনের পক্ষে নির্বাচনী কাজ করেন। মিন্টু মিয়া নির্বাচনে হেরে যান।

এতে সে ক্ষুব্ধ হয়ে গত শনিবার বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে মোবাইল ফোনে পরিতোষকে তালতা বাজার এলাকায় ডেকে এনে ৫০ হাজার টাকা দাবি করেন। দাবিকৃত টাকা না দেওয়ায় রোববার সকাল ১০টার দিকে পরাজিত প্রার্থী মিন্টু, সাত্তারসহ ৪-৫ জন সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্র ও লাঠিসোটা নিয়ে পরিতোষের বাড়িতে গিয়ে তাকে বেধড়ক মারধর করেন। এ ঘটনায় শেরপুর থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে আহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে।

আহতের পিতা অমুল্য চন্দ্র সরকার বলেন, আমার ছেলে পরিতোষকে ডেকে নিয়ে অন্যায়ভাবে ৫০ হাজার টাকা দাবি ও মারধর করে মিন্টু ও সাত্তাররা।

এ ব্যাপারে শেরপুর থানার ওসি শহিদুল ইসলাম বলেন, অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন