সুনামগঞ্জে সালিশবৈঠকে কুপিয়ে হত্যা, গৃহবধূ আটক
jugantor
সুনামগঞ্জে সালিশবৈঠকে কুপিয়ে হত্যা, গৃহবধূ আটক

  ছাতক (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি  

২১ নভেম্বর ২০২১, ১৪:১৬:২৩  |  অনলাইন সংস্করণ

কুপিয়ে হত্যা

সুনামগঞ্জের ছাতকে সালিশবৈঠকে আশিক মিয়া (৫০) নামে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

শনিবার রাতে উপজেলার জাউয়াবাজার ইউপির বানায়ত গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আশিক উপজেলার জাউয়াবাজার ইউপির বানায়ত গ্রামে মৃত নুর আলীর ছেলে।

এদিকে এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে রশিকা বেগম নামে এক গৃহবধূকে আটক করেছে পুলিশ। আটক গৃহবধূ একই গ্রামের মনর আলীর স্ত্রী।

পুলিশ ও এলাকাবাসীর সূত্রে জানা যায়, সন্ধ্যায় মাছ শিকার করতে তালামারা নৌকার চাবি চাওয়ার অপরাধে প্রথম দফা হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার জের ধরে উভয়পক্ষকে নিয়ে সালিশবৈঠকের আয়োজন করেন গ্রামবাসী। এ সালিশে অপর পক্ষের লোকজন আশিক মিয়ার মাথায় দা দিয়ে সবার সামনে কুপিয়ে আহত করে।

পরে তাকে সিলেট ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে রাতে চিকিৎসাধীন তার মৃত্যু হয়।

খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালিয়ে রশিকা বেগম নামে এক গৃহবধূকে আটক করেছে।

এ ব্যাপারে ওসি (ভারপ্রাপ্ত) মিজানুর রহমান জানান, নৌকার চাবি চাইতে গিয়ে দা দিয়ে কুপিয়ে আহত করেন প্রতিপক্ষের লোকজন। পরে সিলেট ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তার মৃত্যু হয়।

সুনামগঞ্জে সালিশবৈঠকে কুপিয়ে হত্যা, গৃহবধূ আটক

 ছাতক (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি 
২১ নভেম্বর ২০২১, ০২:১৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কুপিয়ে হত্যা
ফাইল ছবি

সুনামগঞ্জের ছাতকে সালিশবৈঠকে আশিক মিয়া (৫০) নামে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। 

শনিবার রাতে উপজেলার জাউয়াবাজার ইউপির বানায়ত গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

নিহত আশিক উপজেলার জাউয়াবাজার ইউপির বানায়ত গ্রামে মৃত নুর আলীর ছেলে।

এদিকে এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে রশিকা বেগম নামে এক গৃহবধূকে আটক করেছে পুলিশ। আটক গৃহবধূ একই গ্রামের মনর আলীর স্ত্রী।

পুলিশ ও এলাকাবাসীর সূত্রে জানা যায়, সন্ধ্যায় মাছ শিকার করতে তালামারা নৌকার চাবি চাওয়ার অপরাধে প্রথম দফা হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার জের ধরে উভয়পক্ষকে  নিয়ে সালিশবৈঠকের আয়োজন করেন গ্রামবাসী। এ সালিশে অপর পক্ষের লোকজন আশিক মিয়ার মাথায় দা দিয়ে সবার সামনে কুপিয়ে আহত করে। 

পরে তাকে সিলেট ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে রাতে চিকিৎসাধীন তার মৃত্যু হয়।

খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালিয়ে রশিকা বেগম নামে এক গৃহবধূকে আটক করেছে। 

এ ব্যাপারে ওসি (ভারপ্রাপ্ত) মিজানুর রহমান জানান, নৌকার চাবি চাইতে গিয়ে দা দিয়ে কুপিয়ে আহত করেন প্রতিপক্ষের লোকজন। পরে সিলেট ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তার মৃত্যু হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন