গাছে মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকের ঝুলন্ত লাশ
jugantor
গাছে মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকের ঝুলন্ত লাশ

  যুগান্তর প্রতিবেদন, মুন্সীগঞ্জ  

২৩ নভেম্বর ২০২১, ১৪:১৩:০৭  |  অনলাইন সংস্করণ

লাশ উদ্ধার

মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলায় আব্দুল সাত্তার (৪৫) নামে এক যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে তাকে হত্যা করে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ করে তার পরিবার।

মঙ্গলবার সকালে উপজেলার ৬নং ওয়ার্ডের নলবুলিয়াকান্দি গ্রামের একটি বাগান থেকে গাছে ঝুলন্ত অবস্থায় ওই যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত যুবক ওই গ্রামের সুরুজ সরকারের ছেলে। তিনি স্থানীয় মেম্বার প্রার্থী ইমরানের সমর্থক ছিলেন।

জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুমন দেব জানান, নিহতের পরিবারের লোকজন ৬নং ওয়ার্ডের নলবুলিয়াকান্দি গ্রামের একটি বাগান থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় আব্দুল সাত্তারের লাশ উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান।

তিনি আরও জানান, আগামী ২৮ নভেম্বর ইউপি নির্বাচন থাকায় আত্মহত্যার ঘটনাটি অন্য ক্ষেত্রে প্রবাহিত করার চেষ্টা করা হচ্ছে। কিন্তু বিষয়টি অন্য ক্ষেত্রে প্রবাহিত করার সুযোগ নেই।

মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক এমএ কালাম জানান, হাসপাতালে আসার আগেই ওই যুবকের মৃত্যু হয়েছে। গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলে থাকার চিহ্ন দেখা গেছে। তবে শরীরে কোনো ধরনের আঘাতের চিহ্ন ছিল না। ময়নাতদন্ত শেষে বিস্তারিত জানা বলা যাবে।

নিহতের স্ত্রী শিউলী বেগম বলেন, আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আমার স্বামী স্থানীয় মেম্বার প্রার্থী ইমরানের সমর্থক ছিলেন। তবে বেশ কিছু দিন ধরে প্রতিপক্ষ মেম্বার প্রার্থীরা তাকে তাদের দলে কাজ করার জন্য চাপ দিচ্ছিলেন। এমতাবস্থায় সোমবার সন্ধ্যায় কারও ফোন পেয়ে বাসা থেকে বের হন তিনি। এর পর তাকে সারারাত খোঁজাখুঁজি করা হয়। পরে মঙ্গলবার ভোরে একটি পরিত্যক্ত বাগান থেকে তাকে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরও বলেন, আমার স্বামীকে হত্যা করে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছিল।

গাছে মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকের ঝুলন্ত লাশ

 যুগান্তর প্রতিবেদন, মুন্সীগঞ্জ 
২৩ নভেম্বর ২০২১, ০২:১৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
লাশ উদ্ধার
ছবি: যুগান্তর

মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলায় আব্দুল সাত্তার (৪৫) নামে এক যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে তাকে হত্যা করে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ করে তার পরিবার। 

মঙ্গলবার সকালে উপজেলার ৬নং ওয়ার্ডের নলবুলিয়াকান্দি গ্রামের একটি বাগান থেকে গাছে ঝুলন্ত অবস্থায় ওই যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়। 

নিহত যুবক ওই গ্রামের সুরুজ সরকারের ছেলে। তিনি স্থানীয় মেম্বার প্রার্থী ইমরানের সমর্থক ছিলেন।

জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুমন দেব জানান, নিহতের পরিবারের লোকজন ৬নং ওয়ার্ডের নলবুলিয়াকান্দি গ্রামের একটি বাগান থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় আব্দুল সাত্তারের লাশ উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। 

তিনি আরও জানান, আগামী ২৮ নভেম্বর ইউপি নির্বাচন থাকায় আত্মহত্যার ঘটনাটি অন্য ক্ষেত্রে প্রবাহিত করার চেষ্টা করা হচ্ছে। কিন্তু বিষয়টি অন্য ক্ষেত্রে প্রবাহিত করার সুযোগ নেই। 

মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক এমএ কালাম জানান, হাসপাতালে আসার আগেই ওই যুবকের মৃত্যু হয়েছে। গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলে থাকার চিহ্ন দেখা গেছে। তবে শরীরে কোনো ধরনের আঘাতের চিহ্ন ছিল না। ময়নাতদন্ত শেষে বিস্তারিত জানা বলা যাবে।

নিহতের স্ত্রী শিউলী বেগম বলেন, আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আমার স্বামী স্থানীয় মেম্বার প্রার্থী ইমরানের সমর্থক ছিলেন। তবে বেশ কিছু দিন ধরে প্রতিপক্ষ মেম্বার প্রার্থীরা তাকে তাদের দলে কাজ করার জন্য চাপ দিচ্ছিলেন। এমতাবস্থায় সোমবার সন্ধ্যায় কারও ফোন পেয়ে বাসা থেকে বের হন তিনি। এর পর তাকে সারারাত খোঁজাখুঁজি করা হয়। পরে মঙ্গলবার ভোরে একটি পরিত্যক্ত বাগান থেকে তাকে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। 

তিনি আরও বলেন, আমার স্বামীকে হত্যা করে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছিল।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন