কুলিয়ারচরে আ. লীগের ২ নেতাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ
jugantor
কুলিয়ারচরে আ. লীগের ২ নেতাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ

  ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি  

২৫ নভেম্বর ২০২১, ১৪:১৩:০৩  |  অনলাইন সংস্করণ

কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর সালুয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী ইউপি আওয়ামী লীগ সভাপতি মো. ইউসুফ মিয়া ও ছয়সূতি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী মো. আনিসুজ্জামানকে (জসিম) কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে।

সংগঠনের আদর্শ ও শৃংঙ্খলাবিরোধী কর্মকাণ্ডে লিপ্ত থাকার অভিযোগে কুলিয়ারচর উপজেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে এ নোটিশ দেওয়া হয়।

বুধবার রাতে কুলিয়ারচর আওয়ামী লীগ সভাপতি ইমতিয়াজ বিন মুছা জিসান ও সাধারণ সম্পাদক মুর্শিদ উদ্দিন আহমেদ স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে আগামী সাত কর্মদিবসের মধ্যে এ বিষয়ে কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২০ নভেম্বর অনুষ্ঠিত কুলিয়ারচর উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সভা হয়। এতে সিদ্ধান্ত মোতাবেক সম্প্রতি অনুষ্ঠিতব্য ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর বিরুদ্ধে নির্বাচনে অংশগ্রহণ ও নানাবিধ তৎপরতাসহ সংগঠনের শৃংঙ্খলাবিরোধী ও গঠনতন্ত্র ৪৭ (ক) ধারা অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে কেন সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না এ বিষয়ে আগামী সাত দিন কর্মদিবসের মধ্য জবাব পাঠানোর নির্দেশ দেন।

কুলিয়ারচর আওয়ামী লীগ সভাপতি ইমতিয়াজ বিন মুছা জিসান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, নির্বাচনে যারা দলীয় শৃঙ্খলা অমান্য করে ইউপি নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছেন এবং দলীয় প্রার্থীর বিরোধিতা করছেন তাদের কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে। আগামী সাত দিনের মধ্য জবাব দিতে বলা হয়েছে।

কুলিয়ারচরে আ. লীগের ২ নেতাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ

 ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি 
২৫ নভেম্বর ২০২১, ০২:১৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর সালুয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী ইউপি আওয়ামী লীগ সভাপতি মো. ইউসুফ মিয়া ও ছয়সূতি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী মো. আনিসুজ্জামানকে (জসিম) কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে।

সংগঠনের আদর্শ ও শৃংঙ্খলাবিরোধী কর্মকাণ্ডে লিপ্ত থাকার অভিযোগে কুলিয়ারচর উপজেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে এ নোটিশ দেওয়া হয়।

বুধবার রাতে কুলিয়ারচর আওয়ামী লীগ সভাপতি ইমতিয়াজ বিন মুছা জিসান ও সাধারণ সম্পাদক মুর্শিদ উদ্দিন আহমেদ স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে আগামী সাত কর্মদিবসের মধ্যে এ বিষয়ে কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে।
         
উল্লেখ্য, গত ২০ নভেম্বর অনুষ্ঠিত কুলিয়ারচর উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সভা হয়। এতে সিদ্ধান্ত মোতাবেক সম্প্রতি অনুষ্ঠিতব্য ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর বিরুদ্ধে নির্বাচনে অংশগ্রহণ ও নানাবিধ তৎপরতাসহ সংগঠনের শৃংঙ্খলাবিরোধী ও গঠনতন্ত্র ৪৭ (ক) ধারা অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে কেন সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না এ বিষয়ে আগামী সাত দিন কর্মদিবসের মধ্য জবাব পাঠানোর নির্দেশ দেন।

কুলিয়ারচর আওয়ামী লীগ সভাপতি ইমতিয়াজ বিন মুছা জিসান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, নির্বাচনে যারা দলীয় শৃঙ্খলা অমান্য করে ইউপি নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছেন এবং দলীয় প্রার্থীর বিরোধিতা করছেন তাদের কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে। আগামী সাত দিনের মধ্য জবাব দিতে বলা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন