স্কুলে ঢুকে শিক্ষকদের মারধর, ছেলেসহ ইউপি সদস্য গ্রেফতার
jugantor
স্কুলে ঢুকে শিক্ষকদের মারধর, ছেলেসহ ইউপি সদস্য গ্রেফতার

  রাজশাহী ব্যুরো  

২৬ নভেম্বর ২০২১, ০১:১৭:৪০  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজশাহীর গোদাগাড়ীর বাঘাইল উচ্চবিদ্যালয়ে ঢুকে চার শিক্ষককে মারধর করায় দেওপাড়া ইউপি সদস্য এমাজউদ্দিন ও তার ছেলে সিহাব উদ্দিনকে অবশেষে গ্রেফতার করা হয়েছে। গোদাগাড়ী থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে বুধবার রাতে তাদের গ্রেফতার করে।

গোদাগাড়ী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল ইসলাম জানান, স্কুলে ঢুকে চার শিক্ষক ও এক যুবকের ওপর হামলার ঘটনায় স্কুলের প্রধান শিক্ষক আলতাফ হোসেন বুধবার থানায় মামলা করেন। ওই মামলায় ইউপি সদস্য এমাজউদ্দিন ও তার ছেলে সিহাব উদ্দিনকে গ্রেফতার করা হয়। দুজনকে আদালতের মাধ্যমে বৃহস্পতিবার সকালে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতিকে অব্যাহতি দেওয়ার দাবি তুলে ২১ নভেম্বর বাঘাইল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আলতাফ হোসেনের কক্ষে ঢুকে তাকেসহ চার শিক্ষক এবং এক যুবককে মারধর করা হয়। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়।

আলতাফ হোসেন বলেন, স্কুলে ঢুকে সন্ত্রাসী কায়দায় আমাদের ওপর হামলা করেছে ইউপি সদস্য ও তার ছেলে। আমরা তাদের বিচার চাই।

স্কুলে ঢুকে শিক্ষকদের মারধর, ছেলেসহ ইউপি সদস্য গ্রেফতার

 রাজশাহী ব্যুরো 
২৬ নভেম্বর ২০২১, ০১:১৭ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজশাহীর গোদাগাড়ীর বাঘাইল উচ্চবিদ্যালয়ে ঢুকে চার শিক্ষককে মারধর করায় দেওপাড়া ইউপি সদস্য এমাজউদ্দিন ও তার ছেলে সিহাব উদ্দিনকে অবশেষে গ্রেফতার করা হয়েছে। গোদাগাড়ী থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে বুধবার রাতে তাদের গ্রেফতার করে।

গোদাগাড়ী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল ইসলাম জানান, স্কুলে ঢুকে চার শিক্ষক ও এক যুবকের ওপর হামলার ঘটনায় স্কুলের প্রধান শিক্ষক আলতাফ হোসেন বুধবার থানায় মামলা করেন। ওই মামলায় ইউপি সদস্য এমাজউদ্দিন ও তার ছেলে সিহাব উদ্দিনকে গ্রেফতার করা হয়। দুজনকে আদালতের মাধ্যমে বৃহস্পতিবার সকালে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতিকে অব্যাহতি দেওয়ার দাবি তুলে ২১ নভেম্বর বাঘাইল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আলতাফ হোসেনের কক্ষে ঢুকে তাকেসহ চার শিক্ষক এবং এক যুবককে মারধর করা হয়। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়।

আলতাফ হোসেন বলেন, স্কুলে ঢুকে সন্ত্রাসী কায়দায় আমাদের ওপর হামলা করেছে ইউপি সদস্য ও তার ছেলে। আমরা তাদের বিচার চাই।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন