পুলিশের শরীরে ‘বডি ওর্ন’ ক্যামেরা
jugantor
পুলিশের শরীরে ‘বডি ওর্ন’ ক্যামেরা

  নোয়াখালী প্রতিনিধি  

২৮ নভেম্বর ২০২১, ১২:৪৭:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

পুলিশ

নোয়াখালীতে পৌর নির্বাচনে প্রথমবারের মতো সংযুক্ত হলো অত্যাধুনিক ‘বডি ওর্ন ক্যামেরা’ (বডি কাম)।

রোববার জেলার সেনবাগ পৌরসভা নির্বাচনে দায়িত্বরত পুলিশ পরিদর্শকদের গায়ে এ ক্যামেরা সংযুক্ত রয়েছে বলে জানা গেছে।

নোয়াখালী পুলিশ (এসপি) মো. শহীদুল ইসলাম এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, শরীরে থাকা ইউনিফর্মের সঙ্গে এ ক্যামেরা সংযুক্ত করা হয়েছে। সেনবাগ পৌরসভা নির্বাচনে নোয়াখালী পুলিশ বাহিনী ব্যবহার করছে অত্যাধুনিক ‘বডি ওর্ন’ ক্যামেরা প্রযুক্তি। পুলিশের কাজের স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা ও পুলিশিং কাজের গতিশীলতা আরও বাড়ানোর লক্ষ্যে চালু হলো এই ‘বডি ওর্ন ক্যামেরা’। এখন থেকে পুলিশের ডিউটিকালীন তাদের বডিতে থাকবে এ বডি ওর্ন ক্যামেরা।

ডিউটিকালীন পুলিশের কাজের স্বচ্ছতা নিশ্চিত করতে এ উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এই উদ্যোগ বাংলাদেশকে ডিজিটালাইজেশনের পথে আরেও এক ধাপ এগিয়ে নেবে।

এসপি শহীদুল ইসলাম বলেন, প্রতিটি ক্যামেরাই ৪০ মেগা পিক্সেলের। এটি একবার চার্জ দিয়ে ১২ ঘণ্টার অধিক সময় ফুল এইচডি (হাই ডেফিনেশন) ভিডিও রেকর্ডিং করা যাবে। ৩৬০ ডিগ্রি অ্যাঙ্গেলে ঘোরানো যাবে, ওয়াইফাই ও থ্রিজি, ফোরজি ও জিপিএস নেটওয়ার্ক প্রযুক্তির মাধ্যমে সরাসরি যে কোনো স্থানে বসেই সব কিছু তদারকি করা যাবে। এ ছাড়া ‘বডি ওর্ন’ ক্যামেরায় সহজেই অডিও ধারণসহ স্টিল ছবিও ক্যাপচার করা যায়। জিপিএস প্রযুক্তির মাধ্যমে যে কোনো স্থানে বসেই ক্যামেরার সব কিছু তদারকি করা যাবে।

প্রসঙ্গত তৃতীয় ধাপে রোববার সেনবাগ পৌরসভার নয় কেন্দ্রে এবং ৫টি ইউনিয়নের মোট ৫০ কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ চলছে। এর মধ্যে সেনবাগ পৌরসভার নয় ও ছাতারপাইয়া ইউনিয়নের নয়টিসহ মোট ১৮টি কেন্দ্রে ইভিএমে ভোটগ্রহণ করা হয়।

আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় ৫৯টি নির্বাচনি কেন্দ্রে ২৯৮ পুলিশ, ১৯টি মোবাইল টিম, সাতটি স্ট্রাইকিং ফোর্স, সাতটি স্পেশাল স্ট্রাইকিং ফোর্স, জেলা গোয়েন্দা শাখার চারটি টিম, পাঁচটি চেকপোস্ট এবং চারটি স্ট্যান্ড বাই টিম, ওসিদের একটি টিম এবং সিনিয়র অফিসারদের পাঁচটি টিমে ৬৫৬ পুলিশ নিযুক্ত রয়েছে।

এ ছাড়া ৯২৯ জন আনসার, র‌্যাবের ৩৭ জন এবং বিজিবির ৮৩ জন সদস্য একযোগে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় দায়িত্ব পালন করছে।

পুলিশের শরীরে ‘বডি ওর্ন’ ক্যামেরা

 নোয়াখালী প্রতিনিধি 
২৮ নভেম্বর ২০২১, ১২:৪৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
পুলিশ
ফাইল ছবি

নোয়াখালীতে পৌর নির্বাচনে প্রথমবারের মতো সংযুক্ত হলো অত্যাধুনিক ‘বডি ওর্ন ক্যামেরা’ (বডি কাম)।

রোববার জেলার সেনবাগ পৌরসভা নির্বাচনে দায়িত্বরত পুলিশ পরিদর্শকদের গায়ে এ ক্যামেরা সংযুক্ত রয়েছে বলে জানা গেছে।   

নোয়াখালী পুলিশ (এসপি) মো. শহীদুল ইসলাম এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, শরীরে থাকা ইউনিফর্মের সঙ্গে এ ক্যামেরা সংযুক্ত করা হয়েছে। সেনবাগ পৌরসভা নির্বাচনে নোয়াখালী পুলিশ বাহিনী ব্যবহার করছে অত্যাধুনিক ‘বডি ওর্ন’ ক্যামেরা প্রযুক্তি। পুলিশের কাজের স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা ও পুলিশিং কাজের গতিশীলতা আরও বাড়ানোর লক্ষ্যে চালু হলো এই ‘বডি ওর্ন ক্যামেরা’। এখন থেকে পুলিশের ডিউটিকালীন তাদের বডিতে থাকবে এ বডি ওর্ন ক্যামেরা।

ডিউটিকালীন পুলিশের কাজের স্বচ্ছতা নিশ্চিত করতে এ উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এই উদ্যোগ বাংলাদেশকে ডিজিটালাইজেশনের পথে আরেও এক ধাপ এগিয়ে নেবে।

এসপি শহীদুল ইসলাম বলেন, প্রতিটি ক্যামেরাই ৪০ মেগা পিক্সেলের। এটি একবার চার্জ দিয়ে ১২ ঘণ্টার অধিক সময় ফুল এইচডি (হাই ডেফিনেশন) ভিডিও রেকর্ডিং করা যাবে। ৩৬০ ডিগ্রি অ্যাঙ্গেলে ঘোরানো যাবে, ওয়াইফাই ও থ্রিজি, ফোরজি ও জিপিএস নেটওয়ার্ক প্রযুক্তির মাধ্যমে সরাসরি যে কোনো স্থানে বসেই সব কিছু তদারকি করা যাবে। এ ছাড়া ‘বডি ওর্ন’ ক্যামেরায় সহজেই অডিও ধারণসহ স্টিল ছবিও ক্যাপচার করা যায়। জিপিএস প্রযুক্তির মাধ্যমে যে কোনো স্থানে বসেই ক্যামেরার সব কিছু তদারকি করা যাবে।

প্রসঙ্গত তৃতীয় ধাপে রোববার সেনবাগ পৌরসভার নয় কেন্দ্রে এবং ৫টি ইউনিয়নের মোট ৫০ কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ চলছে। এর মধ্যে সেনবাগ পৌরসভার নয় ও ছাতারপাইয়া ইউনিয়নের নয়টিসহ মোট ১৮টি কেন্দ্রে ইভিএমে ভোটগ্রহণ করা হয়।

আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় ৫৯টি নির্বাচনি কেন্দ্রে ২৯৮ পুলিশ, ১৯টি মোবাইল টিম, সাতটি স্ট্রাইকিং ফোর্স, সাতটি স্পেশাল স্ট্রাইকিং ফোর্স, জেলা গোয়েন্দা শাখার চারটি টিম, পাঁচটি চেকপোস্ট এবং চারটি স্ট্যান্ড বাই টিম, ওসিদের একটি টিম এবং সিনিয়র অফিসারদের পাঁচটি টিমে ৬৫৬ পুলিশ নিযুক্ত রয়েছে।

এ ছাড়া ৯২৯ জন আনসার, র‌্যাবের ৩৭ জন এবং বিজিবির ৮৩ জন সদস্য একযোগে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় দায়িত্ব পালন করছে।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন