নৌকায় ‘ওপেন ভোট’ নিতে প্রিসাইডিং কর্মকর্তাকে আ.লীগ প্রার্থীর হুমকি
jugantor
নৌকায় ‘ওপেন ভোট’ নিতে প্রিসাইডিং কর্মকর্তাকে আ.লীগ প্রার্থীর হুমকি

  নবীনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি  

২৮ নভেম্বর ২০২১, ১৪:২৩:৫১  |  অনলাইন সংস্করণ

নৌকায় ‘ওপেন ভোট’ নিতে প্রিসাইডিং কর্মকর্তাকে আ.লীগ প্রার্থীর হুমকি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার ২১ ইউনিয়নের মধ্যে ১৩ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে।

রোববার সকাল ৮টা থেকে ১২১ কেন্দ্রে ভোট শুরু হয়েছে; একটানা ভোটগ্রহণ চলবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত। ভোটের শুরুতেই উপজেলার লাউর ফতেহপুর ইউনিয়নের একটি কেন্দ্রে নৌকা প্রতীকে ‘ওপেন ভোট’ নেওয়ার জন্য প্রিসাইডিং কর্মকর্তাকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মো. মুজিবুর রহমান সওদাগরের বিরুদ্ধে।

সকালের দিকে লাউর ফতেহপুর ইউনিয়নের হাজীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে আসেন আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. মুজিবুর রহমান সওদাগর। কেন্দ্রটিতে সকাল থেকেই ভোটারদের উডচেপড়া ভিড় দেখা গেছে। কেন্দ্রে এসেই চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীকে ওপেন ভোট নেওয়ার জন্য কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার আবুল খায়েরকে চাপ দেন মুজিবুর রহমান। কিন্তু তিনি রাজি না হওয়ায় তাকে হুমকি দেন মুজিবুর রহমান।

এ নিয়ে কেন্দ্রে হট্টগোল হলে পুলিশ এসে আওয়ামী লীগ প্রার্থীকে কেন্দ্র থেকে বের করে দিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

তবে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ অস্বীকার করে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী মুজিবুর রহমান সওদাগর বলেন, আমি প্রিসাইডিং অফিসারকে ওপেন ভোট নেওয়ার জন্য চাপ দিইনি। অভিযোগটি মিথ্যা।

হাজিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার আবুল খায়ের বলেন, আওয়ামী লীগের প্রার্থী এসে ওপেন ভোট নেওয়ার জন্য আমাকে চাপ দেন। আমি রাজি না হয়ে গোপন কক্ষে ভোট দেওয়ার কথা বললে তিনি বলেন, আমি প্রিসাইডিংয়ের বাপ। পরে আমি কেন্দ্রে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যদের জানিয়েছি।

এ বিষয়ে লাউর ফতেহপুর ইউনিয়নের পুলিশের স্ট্রাইকিং ফোর্সের ইনচার্জ ও পুলিশ পরিদর্শক কাজী মাসুদ ইবনে আনোয়ার বলেন, প্রিসাইডিং অফিসারের ফোন পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে কেন্দ্রে আসি। কেন্দ্রে এসে অনাকাঙ্ক্ষিত কোনো ব্যক্তিকে পাইনি। শান্তিপূর্ণভাবেই ভোট চলছে।

নৌকায় ‘ওপেন ভোট’ নিতে প্রিসাইডিং কর্মকর্তাকে আ.লীগ প্রার্থীর হুমকি

 নবীনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি 
২৮ নভেম্বর ২০২১, ০২:২৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
নৌকায় ‘ওপেন ভোট’ নিতে প্রিসাইডিং কর্মকর্তাকে আ.লীগ প্রার্থীর হুমকি
ছবি: সংগৃহীত

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার ২১ ইউনিয়নের মধ্যে ১৩ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে।

রোববার সকাল ৮টা থেকে ১২১ কেন্দ্রে ভোট শুরু হয়েছে; একটানা ভোটগ্রহণ চলবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত। ভোটের শুরুতেই উপজেলার লাউর ফতেহপুর ইউনিয়নের একটি কেন্দ্রে নৌকা প্রতীকে ‘ওপেন ভোট’ নেওয়ার জন্য প্রিসাইডিং কর্মকর্তাকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মো. মুজিবুর রহমান সওদাগরের বিরুদ্ধে।

সকালের দিকে লাউর ফতেহপুর ইউনিয়নের হাজীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে আসেন আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. মুজিবুর রহমান সওদাগর। কেন্দ্রটিতে সকাল থেকেই ভোটারদের উডচেপড়া ভিড় দেখা গেছে। কেন্দ্রে এসেই চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীকে ওপেন ভোট নেওয়ার জন্য কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার আবুল খায়েরকে চাপ দেন মুজিবুর রহমান। কিন্তু তিনি রাজি না হওয়ায় তাকে হুমকি দেন মুজিবুর রহমান।

এ নিয়ে কেন্দ্রে হট্টগোল হলে পুলিশ এসে আওয়ামী লীগ প্রার্থীকে কেন্দ্র থেকে বের করে দিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

তবে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ অস্বীকার করে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী মুজিবুর রহমান সওদাগর বলেন, আমি প্রিসাইডিং অফিসারকে ওপেন ভোট নেওয়ার জন্য চাপ দিইনি। অভিযোগটি মিথ্যা।

হাজিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার আবুল খায়ের বলেন, আওয়ামী লীগের প্রার্থী এসে ওপেন ভোট নেওয়ার জন্য আমাকে চাপ দেন। আমি রাজি না হয়ে গোপন কক্ষে ভোট দেওয়ার কথা বললে তিনি বলেন, আমি প্রিসাইডিংয়ের বাপ। পরে আমি কেন্দ্রে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যদের জানিয়েছি।

এ বিষয়ে লাউর ফতেহপুর ইউনিয়নের পুলিশের স্ট্রাইকিং ফোর্সের ইনচার্জ ও পুলিশ পরিদর্শক কাজী মাসুদ ইবনে আনোয়ার বলেন, প্রিসাইডিং অফিসারের ফোন পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে কেন্দ্রে আসি। কেন্দ্রে এসে অনাকাঙ্ক্ষিত কোনো ব্যক্তিকে পাইনি। শান্তিপূর্ণভাবেই ভোট চলছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন