'কৃষিতে চতুর্থ বিপ্লব ঘটবে': প্রতিমন্ত্রী পলক
jugantor
'কৃষিতে চতুর্থ বিপ্লব ঘটবে': প্রতিমন্ত্রী পলক

  সিংড়া (নাটোর) প্রতিনিধি  

২৮ নভেম্বর ২০২১, ১৫:০৬:৫৫  |  অনলাইন সংস্করণ

'কৃষিতে চতুর্থ বিপ্লব ঘটবে' প্রতিমন্ত্রী পলক

তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার কৃষিতে প্রযুক্তি এনে উৎপাদন বাড়ানোর উদ্যোগ নিয়েছে। কৃষকদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপকার সজীব ওয়াজেদ জয় ভাইয়ের নেতৃত্বে ডিজিটাল ভিলেজ প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। কৃষিতে চতুর্থ বিপ্লব ঘটবে। জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার আন্তরিকভাবে কাজ করছে। ডিজিটাল সার্ভিস ইমপেয়ারমেন্ট ট্রেনিং সেন্টার করছে সরকার। কৃষি গবেষকরা বঙ্গবন্ধু ধান ১০০ আবিষ্কার করেছেন। চলনবিলে এ ধান রোপণ করা হবে।

রোববার সকাল ১০টায় উপজেলা পরিষদ ৯ হাজার ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের মাঝে বোরো উপশী ও হাইব্রিড ধানের বীজ ও সার বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী পলক এসব কথা বলেন।

সেখানে তিনি আরও বলেন, একসময় চলনবিলে বীজ ও সারের জন্য হাহাকার ছিল। সারের জন্য কৃষকদের রক্তাক্ত ও নির্বিচারে হত্যা করা হয়েছে। কিন্তু জননেত্রী শেখ হাসিনার সাহসী ভূমিকায় কৃষকরা সার ও বীজ বিনামূল্যে পাচ্ছে। খাদ্য ও মৎস্যে চলনবিল সমৃদ্ধ। চলনবিলে ১০০ কিলোমিটার খাল খনন করা হয়েছে। কৃষি ও কৃষকদের উন্নয়নে সরকার সচেষ্ট।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ সেলিম রেজার সভাপতিত্বে ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম, পৌরসভার মেয়র মো. জান্নাতুল ফেরদৌস, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শামীমা হক রোজী, ইতালি ইউপি চেয়ারম্যান আরিফুল ইসলাম, সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা শাহাদৎ হোসেন, আওয়ামী লীগের ধর্মবিষয়ক সম্পাদক মাওলানা রুহুল আমিন প্রমুখ।

'কৃষিতে চতুর্থ বিপ্লব ঘটবে': প্রতিমন্ত্রী পলক

 সিংড়া (নাটোর) প্রতিনিধি 
২৮ নভেম্বর ২০২১, ০৩:০৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
'কৃষিতে চতুর্থ বিপ্লব ঘটবে' প্রতিমন্ত্রী পলক
ছবি: যুগান্তর

তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার কৃষিতে প্রযুক্তি এনে উৎপাদন বাড়ানোর উদ্যোগ নিয়েছে। কৃষকদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপকার সজীব ওয়াজেদ জয় ভাইয়ের নেতৃত্বে ডিজিটাল ভিলেজ প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। কৃষিতে চতুর্থ বিপ্লব ঘটবে। জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার আন্তরিকভাবে কাজ করছে। ডিজিটাল সার্ভিস ইমপেয়ারমেন্ট ট্রেনিং সেন্টার করছে সরকার। কৃষি গবেষকরা বঙ্গবন্ধু ধান ১০০ আবিষ্কার করেছেন। চলনবিলে এ ধান রোপণ করা হবে।

রোববার সকাল ১০টায় উপজেলা পরিষদ ৯ হাজার ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের মাঝে বোরো উপশী ও হাইব্রিড ধানের বীজ ও সার বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী পলক এসব কথা বলেন।

সেখানে তিনি আরও বলেন, একসময় চলনবিলে বীজ ও সারের জন্য হাহাকার ছিল। সারের জন্য কৃষকদের রক্তাক্ত ও নির্বিচারে হত্যা করা হয়েছে। কিন্তু জননেত্রী শেখ হাসিনার সাহসী ভূমিকায় কৃষকরা সার ও বীজ বিনামূল্যে পাচ্ছে। খাদ্য ও মৎস্যে চলনবিল সমৃদ্ধ। চলনবিলে ১০০ কিলোমিটার খাল খনন করা হয়েছে। কৃষি ও কৃষকদের উন্নয়নে সরকার সচেষ্ট।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ সেলিম রেজার সভাপতিত্বে ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম, পৌরসভার মেয়র মো. জান্নাতুল ফেরদৌস, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শামীমা হক রোজী, ইতালি ইউপি চেয়ারম্যান আরিফুল ইসলাম, সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা শাহাদৎ হোসেন, আওয়ামী লীগের ধর্মবিষয়ক সম্পাদক মাওলানা রুহুল আমিন প্রমুখ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন