হাজতিরা পেলেন জেলা জজের সেলাই মেশিন
jugantor
হাজতিরা পেলেন জেলা জজের সেলাই মেশিন

  ভোলা প্রতিনিধি  

২৯ নভেম্বর ২০২১, ২১:২৮:৪৯  |  অনলাইন সংস্করণ

ভোলা কারাগারে হাজতিদের সময় কাটানো ও কর্মমুখী রাখতে সেলাই মেশিন দিয়েছেন জেলা ও দায়রা জজ মো. মহসিনুল হক। নিজ উদ্যোগে এই সেলাই মেশিন দেয়ার বিষয়টি সময় উপযোগী পদক্ষেপ বলে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন হাজতিরা।

সোমবার দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ কারা অভ্যন্তরে বিভিন্ন কক্ষ পরিদর্শন করার পাশাপাশি বন্দিদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

আসামিদের মামলাগুলোর বিচারিক বিষয়ে গুরুত্ব দেয়ার আশ্বাস দেন জেলা ও দায়রা জজ। এসময় মহিলা বন্দিদের রাতে ঘুমানোর জন্য টাইলসের ওপর প্লাস্টিক ম্যাট প্রদানের জন্য জেল সুপারকে নির্দেশ দেন।

জেলা ও দায়রা জজ মো. মহসিনুল হক বলেন, কারাগারে থাকা দণ্ডপ্রাপ্ত ও সাধারণ হাজতিদের অপরাধ সংশোধনের সুযোগ যাতে কারাগারে সৃষ্টি হতে পারে। এমন উদ্যোগ গ্রহণ করা হচ্ছে। হস্তশিল্প প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা রাখার বিষয় নিয়ে পরিকল্পনা করা হচ্ছে। আসামিরা মুক্তিলাভের পর কর্মসংস্থানের পথ সৃষ্টি করতে পারে। এমন পরিবেশ তৈরি করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, গত মাসে জেলা আদালত চত্বরে মামলার তারিখ ও তথ্য জানান জন্য ডিসপ্লে বোর্ড স্থাপন করা হয়েছে। এতে অনেক দুর্ভোগ কমেছে।

এদিকে সেলাই মেশিন বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শরীফ মো. ছানউল হক, বেসরকারি কারা পরিদর্শক পিপি সৈয়দ আশরাফ হোসেন লাবু ও ভোলা প্রেস ক্লাব সভাপতি এম হাবিবুর রহমান, জেল সুপার নাসির উদ্দীন প্রধান।

এদিকে এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানান জেলা নাগরিক কমিটির সহসভাপতি সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর দুলাল চন্দ্র ঘোষ।

হাজতিরা পেলেন জেলা জজের সেলাই মেশিন

 ভোলা প্রতিনিধি 
২৯ নভেম্বর ২০২১, ০৯:২৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ভোলা কারাগারে হাজতিদের সময় কাটানো ও কর্মমুখী রাখতে  সেলাই মেশিন দিয়েছেন জেলা ও দায়রা জজ মো. মহসিনুল হক। নিজ উদ্যোগে এই সেলাই মেশিন দেয়ার বিষয়টি সময় উপযোগী পদক্ষেপ বলে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন হাজতিরা।

সোমবার দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ কারা অভ্যন্তরে বিভিন্ন কক্ষ পরিদর্শন করার পাশাপাশি বন্দিদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

আসামিদের মামলাগুলোর বিচারিক বিষয়ে গুরুত্ব দেয়ার আশ্বাস দেন জেলা ও দায়রা জজ। এসময় মহিলা বন্দিদের রাতে ঘুমানোর জন্য টাইলসের ওপর প্লাস্টিক ম্যাট প্রদানের জন্য জেল সুপারকে নির্দেশ দেন।

জেলা ও দায়রা জজ মো. মহসিনুল হক বলেন, কারাগারে থাকা দণ্ডপ্রাপ্ত ও সাধারণ হাজতিদের অপরাধ সংশোধনের সুযোগ যাতে কারাগারে সৃষ্টি হতে পারে। এমন উদ্যোগ গ্রহণ করা হচ্ছে।  হস্তশিল্প প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা রাখার বিষয় নিয়ে পরিকল্পনা করা হচ্ছে। আসামিরা মুক্তিলাভের পর কর্মসংস্থানের পথ সৃষ্টি করতে পারে। এমন পরিবেশ তৈরি করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, গত মাসে জেলা আদালত চত্বরে মামলার তারিখ ও তথ্য জানান জন্য ডিসপ্লে বোর্ড স্থাপন করা হয়েছে। এতে অনেক দুর্ভোগ কমেছে।

এদিকে সেলাই মেশিন বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শরীফ মো. ছানউল হক, বেসরকারি কারা পরিদর্শক পিপি সৈয়দ আশরাফ হোসেন লাবু ও ভোলা প্রেস ক্লাব সভাপতি এম হাবিবুর রহমান, জেল সুপার নাসির উদ্দীন প্রধান।

এদিকে এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানান জেলা নাগরিক কমিটির সহসভাপতি সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর দুলাল চন্দ্র ঘোষ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন