নেচে-গেয়ে গায়েহলুদ দিয়ে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানকে বরণ!
jugantor
নেচে-গেয়ে গায়েহলুদ দিয়ে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানকে বরণ!

  নালিতাবাড়ী (শেরপুর) প্রতিনিধি  

৩০ নভেম্বর ২০২১, ২০:০৮:১৭  |  অনলাইন সংস্করণ

শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলায় ইউপি নির্বাচনে দ্বিতীয়বারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ায় বিয়ের মতো উৎসবের আয়োজন করেছেন পরিবারের সদস্য ও প্রতিবেশীরা। নির্বাচনের ফলাফলের পরদিন নেচে-গেয়ে গায়েহলুদ দিয়ে গোসল করিয়ে তাকে টাকা দিয়ে বরণ করা হয়।

আলোচিত এই চেয়ারম্যানের নাম আসাদুজ্জামান। তিনি নালিতাবাড়ী উপজেলার নালিতাবাড়ী ইউনিয়ন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হিসেবে দ্বিতীয়বারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

জানা যায়, আসাদুজ্জামান পেশায় একজন শিক্ষক ও নালিতাবাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি। বিগত নির্বাচনে নৌকা প্রতীক পেয়ে প্রথমবারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। এবারো নৌকা প্রতীক নিয়ে মাঠে নামেন তিনি। তার সঙ্গে চশমা প্রতীক নিয়ে সাবেক চেয়ারম্যান ফজলুল হক ও মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে রেজাউল করীম নামে দুজন শক্ত স্বতন্ত্র প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। অবশেষে তিনি নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ফজলুল হককে ৮৯৮ ভোটে হারিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।

আসাদুজ্জামানের প্রাপ্ত ভোট ৩ হাজার ৭৪৮ ভোট। ফজলুল হকের প্রাপ্ত ভোট ২ হাজার ৮৫০ ভোট। অপর প্রার্থী রেজাউল করিমের প্রাপ্ত ভোট ২ হাজার ৫৭। তার এ বিজয়ে পরিবারের সদস্য ও প্রতিবেশীরা বিয়ের মতো উৎসবের আয়োজন করেন। প্রথমে গায়েহলুদ দিয়ে তাকে গোসল করান ও পরে তাকে টাকা দিয়ে বরণ করে নতুন জামাইয়ের মতো ঘরে তুলে নেন।

এ ব্যাপারে চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামানের সঙ্গে কথা বললে তিনি জানান, পরিবারের সদস্য ও নাতি-নাতনিদের অনুরোধ উপেক্ষা করতে পারিনি। তাই গায়েহলুদ মেখে, মেহেদি লাগিয়ে গোসল করেছি। এটা আসলে আমার প্রতি তাদের এক অন্যরকম ভালোবাসার বহির্প্রকাশ বলে মনে করি।

নেচে-গেয়ে গায়েহলুদ দিয়ে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানকে বরণ!

 নালিতাবাড়ী (শেরপুর) প্রতিনিধি 
৩০ নভেম্বর ২০২১, ০৮:০৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলায় ইউপি নির্বাচনে দ্বিতীয়বারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ায় বিয়ের মতো উৎসবের আয়োজন করেছেন পরিবারের সদস্য ও প্রতিবেশীরা। নির্বাচনের ফলাফলের পরদিন নেচে-গেয়ে গায়েহলুদ দিয়ে গোসল করিয়ে তাকে টাকা দিয়ে বরণ করা হয়।

আলোচিত এই চেয়ারম্যানের নাম আসাদুজ্জামান। তিনি নালিতাবাড়ী উপজেলার নালিতাবাড়ী ইউনিয়ন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হিসেবে দ্বিতীয়বারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

জানা যায়, আসাদুজ্জামান পেশায় একজন শিক্ষক ও নালিতাবাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি। বিগত নির্বাচনে নৌকা প্রতীক পেয়ে প্রথমবারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। এবারো নৌকা প্রতীক নিয়ে মাঠে নামেন তিনি। তার সঙ্গে চশমা প্রতীক নিয়ে সাবেক চেয়ারম্যান ফজলুল হক ও মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে রেজাউল করীম নামে দুজন শক্ত স্বতন্ত্র প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। অবশেষে তিনি নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ফজলুল হককে ৮৯৮ ভোটে হারিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।

আসাদুজ্জামানের প্রাপ্ত ভোট ৩ হাজার ৭৪৮ ভোট। ফজলুল হকের প্রাপ্ত ভোট ২ হাজার ৮৫০ ভোট। অপর প্রার্থী রেজাউল করিমের প্রাপ্ত ভোট ২ হাজার ৫৭। তার এ বিজয়ে পরিবারের সদস্য ও প্রতিবেশীরা বিয়ের মতো উৎসবের আয়োজন করেন। প্রথমে গায়েহলুদ দিয়ে তাকে গোসল করান ও পরে তাকে টাকা দিয়ে বরণ করে নতুন জামাইয়ের মতো ঘরে তুলে নেন।

এ ব্যাপারে চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামানের সঙ্গে কথা বললে তিনি জানান, পরিবারের সদস্য ও নাতি-নাতনিদের অনুরোধ উপেক্ষা করতে পারিনি। তাই গায়েহলুদ মেখে, মেহেদি লাগিয়ে গোসল করেছি। এটা আসলে আমার প্রতি তাদের এক অন্যরকম ভালোবাসার বহির্প্রকাশ বলে মনে করি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন