সাঁতার শিখতে গিয়ে সেনাবাহিনীতে সদ্য নিয়োগ পাওয়া যুবকের মৃত্যু
jugantor
সাঁতার শিখতে গিয়ে সেনাবাহিনীতে সদ্য নিয়োগ পাওয়া যুবকের মৃত্যু

  ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি  

০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:১৮:১৮  |  অনলাইন সংস্করণ

স্বপ্ন ভেঙে গেল ইমনের পরিবারের। সেনাবাহিনীতে সৈনিক পদে চাকরি হয়েছিল ইমনের। সেখানে প্রশিক্ষণে যাওয়ার কথা তার; কিন্তু তার আগেই ঘটে গেল মর্মান্তিক ঘটনা।

প্রশিক্ষণে যাওয়ার আগে ঈশ্বরদীতে একটি পুকুরে সাঁতার শিখতে গিয়ে সেনাবাহিনীতে সদ্য নিয়োগপ্রাপ্ত রাসিব হাসান ইমন (২০) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার সলিমপুর ইউনিয়নের চরমিরাকামারী মাথালপাড়া কাজিপাড়ার একটি পুকুর থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

ইমন চরমিরকামারী সাঁকড়েগাড়ি গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে এবং ঈশ্বরদী সরকারি কলেজের এ বছরের এইচএসসি পরীক্ষার্থী ছিল।

নিহত ইমনের মামা নাসির হোসেন জানান, ইমন কয়েক দিন আগে সেনাবাহিনীতে সৈনিক পদে নিয়োগ পায়। নিয়োগের পর থেকেই গত ৬ দিন ধরে চরমিরকামারী কাজিপাড়ার ওই পুকুরে সাঁতার শিখতে যেত। মঙ্গলবার দুপুরে প্রতিদিনের মতো সাঁতার শেখার একপর্যায়ে সে পুকুরের পানিতে তলিয়ে গিয়ে নিখোঁজ হয়। স্থানীয় লোকজন অনেক খোঁজাখুঁজি করেও না পেয়ে ঈশ্বরদী থানায় এবং ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেন।

ঈশ্বরদী ফায়ার সার্ভিস রাজশাহী থেকে ডুবুরি দল এনে প্রায় সাড়ে ৩ ঘণ্টা অভিযান শেষে সন্ধ্যা ৫টা ২০ মিনিটে পুকুর থেকে ইমনের লাশ উদ্ধার করে।

ইমনের বাবা সিরাজুল ইসলাম জানান, আমার ছেলের সেনাবাহিনীতে চাকরি হয়েছে। কিছুদিন পরেই প্রশিক্ষণে যাওয়ার আগে গত কয়েক দিন যাবত পুকুরে সাঁতার শিখছিল।

ঈশ্বরদী থানার ওসি আসাদুজ্জামান আসাদ জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশের টিম পাঠানো হয়। সেখানে ফায়ার সার্ভিসের পাশাপাশি পুলিশ সহযোগী হিসেবে কাজ করে নিহতের লাশ উদ্ধার করে।

সাঁতার শিখতে গিয়ে সেনাবাহিনীতে সদ্য নিয়োগ পাওয়া যুবকের মৃত্যু

 ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি 
০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:১৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

স্বপ্ন ভেঙে গেল ইমনের পরিবারের। সেনাবাহিনীতে সৈনিক পদে চাকরি হয়েছিল ইমনের। সেখানে প্রশিক্ষণে যাওয়ার কথা তার; কিন্তু তার আগেই ঘটে গেল মর্মান্তিক ঘটনা।

প্রশিক্ষণে যাওয়ার আগে ঈশ্বরদীতে একটি পুকুরে সাঁতার শিখতে গিয়ে সেনাবাহিনীতে সদ্য নিয়োগপ্রাপ্ত রাসিব হাসান ইমন (২০) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার সলিমপুর ইউনিয়নের চরমিরাকামারী মাথালপাড়া কাজিপাড়ার একটি পুকুর থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

ইমন চরমিরকামারী সাঁকড়েগাড়ি গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে এবং ঈশ্বরদী সরকারি কলেজের এ বছরের এইচএসসি পরীক্ষার্থী ছিল।

নিহত ইমনের মামা নাসির হোসেন জানান, ইমন কয়েক দিন আগে সেনাবাহিনীতে সৈনিক পদে নিয়োগ পায়। নিয়োগের পর থেকেই গত ৬ দিন ধরে চরমিরকামারী কাজিপাড়ার ওই পুকুরে সাঁতার শিখতে যেত। মঙ্গলবার দুপুরে প্রতিদিনের মতো সাঁতার শেখার একপর্যায়ে সে পুকুরের পানিতে তলিয়ে গিয়ে নিখোঁজ হয়। স্থানীয় লোকজন অনেক খোঁজাখুঁজি করেও না পেয়ে ঈশ্বরদী থানায় এবং ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেন।

ঈশ্বরদী ফায়ার সার্ভিস রাজশাহী থেকে ডুবুরি দল এনে প্রায় সাড়ে ৩ ঘণ্টা অভিযান শেষে সন্ধ্যা ৫টা ২০ মিনিটে পুকুর থেকে ইমনের লাশ উদ্ধার করে।

ইমনের বাবা সিরাজুল ইসলাম জানান, আমার ছেলের সেনাবাহিনীতে চাকরি হয়েছে। কিছুদিন পরেই প্রশিক্ষণে যাওয়ার আগে গত কয়েক দিন যাবত পুকুরে সাঁতার শিখছিল।

ঈশ্বরদী থানার ওসি আসাদুজ্জামান আসাদ জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশের টিম পাঠানো হয়। সেখানে ফায়ার সার্ভিসের পাশাপাশি পুলিশ সহযোগী হিসেবে কাজ করে নিহতের লাশ উদ্ধার করে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন