ফেসবুকে পরিচয়, প্রেমের ফাঁদে ফেলে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ
jugantor
ফেসবুকে পরিচয়, প্রেমের ফাঁদে ফেলে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ

  আশুলিয়া (ঢাকা) প্রতিনিধি  

০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৯:৩৮:৩৭  |  অনলাইন সংস্করণ

ধর্ষণ

সাভারের আশুলিয়ায় ফেসবুকে পরিচয়ের পর প্রেমের ফাঁদে ফেলে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় আশরাফুল ইসলাম আরিফ নামে এক যুবককে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-৪।

সোমবার আশুলিয়ার বসুন্ধরার নতুনবাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়।

আটক আশরাফুল ইসলাম আরিফ জামালপুর জেলার বাসিন্দা।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিপিসি-২, র‌্যাব ৪-এর কোম্পানি কমান্ডার লেফটেন্যান্ট রাকিব মাহমুদ খান।

ভুক্তভোগীর পরিবারের অভিযোগ, ওই স্কুলছাত্রী আশুলিয়ার স্থানীয় একটি স্কুলের অষ্টম শ্রেণিতে পড়ে। ফেসবুকে পরিচয়ের সূত্র ধরে আরিফের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

গত ১৪ এপ্রিল বিয়ের আশ্বাসে কাজী অফিসে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে বাইপাইল বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার একটি ফ্ল্যাটে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করা হয় ওই ছাত্রীকে। এর পর বিয়ে না করে ওই ছাত্রীকে বাসায় পাঠিয়ে দেয় আরিফ। পরে বিভিন্ন সময়ে ভয় দেখিয়ে একই ফ্ল্যাটে নিয়ে গিয়ে বেশ কয়েকবার ধর্ষণ করে সে।

র‌্যাব জানায়, গত ১৬ নভেম্বর ভুক্তভোগীর বাবা র‌্যাব ৪-এর কাছে একটি লিখিত অভিযোগ করেন। এর পর র্যা ব ৪-এর একটি গোয়েন্দা দল আসামিকে ধরতে তদন্ত শুরু করে এবং ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে আরিফকে আটক করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে।

সিপিসি-২, র‌্যাব ৪-এর কোম্পানি কমান্ডার লেফটেন্যান্ট রাকিব মাহমুদ খান বলেন, আরিফের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

ফেসবুকে পরিচয়, প্রেমের ফাঁদে ফেলে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ

 আশুলিয়া (ঢাকা) প্রতিনিধি 
০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৯:৩৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ধর্ষণ
ফাইল ছবি

সাভারের আশুলিয়ায় ফেসবুকে পরিচয়ের পর প্রেমের ফাঁদে ফেলে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় আশরাফুল ইসলাম আরিফ নামে এক যুবককে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-৪।

সোমবার আশুলিয়ার বসুন্ধরার নতুনবাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়।

আটক আশরাফুল ইসলাম আরিফ জামালপুর জেলার বাসিন্দা।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিপিসি-২, র‌্যাব ৪-এর কোম্পানি কমান্ডার লেফটেন্যান্ট রাকিব মাহমুদ খান।

ভুক্তভোগীর পরিবারের অভিযোগ, ওই স্কুলছাত্রী আশুলিয়ার স্থানীয় একটি স্কুলের অষ্টম শ্রেণিতে পড়ে। ফেসবুকে পরিচয়ের সূত্র ধরে আরিফের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।  

গত ১৪ এপ্রিল বিয়ের আশ্বাসে কাজী অফিসে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে বাইপাইল বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার একটি ফ্ল্যাটে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করা হয় ওই ছাত্রীকে। এর পর বিয়ে না করে ওই ছাত্রীকে বাসায় পাঠিয়ে দেয় আরিফ। পরে বিভিন্ন সময়ে ভয় দেখিয়ে একই ফ্ল্যাটে নিয়ে গিয়ে বেশ কয়েকবার ধর্ষণ করে সে।

র‌্যাব জানায়, গত ১৬ নভেম্বর ভুক্তভোগীর বাবা র‌্যাব ৪-এর কাছে একটি লিখিত অভিযোগ করেন। এর পর র্যা ব ৪-এর একটি গোয়েন্দা দল আসামিকে ধরতে তদন্ত শুরু করে এবং ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে আরিফকে আটক করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে।

সিপিসি-২, র‌্যাব ৪-এর কোম্পানি কমান্ডার লেফটেন্যান্ট রাকিব মাহমুদ খান বলেন, আরিফের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন