ইউপি নির্বাচন: মহম্মদপুরের মহিলা সদস্য হলেন ইরানী
jugantor
ইউপি নির্বাচন: মহম্মদপুরের মহিলা সদস্য হলেন ইরানী

  মহম্মদপুর (মাগুরা) প্রতিনিধি  

০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:৩৬:৪৫  |  অনলাইন সংস্করণ

ইরানী খানম

মাগুরার মহম্মদপুর উপেজলা সদর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে যুগান্তরের সাংবাদিকের স্ত্রী ইরানী খানম জয়ী হয়েছেন।

তৃতীয় ধাপের তফসিলে রোববার ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। তিনি দৈনিক যুগান্তরের উপজেলা প্রতিনিধি মাসুদ রানার স্ত্রী।

সদর ইউনিয়নের ৭,৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য (মেম্বার) পদে মোট চার প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। এতে ইরানী খানম বক প্রতীকে ৩৪৯ ভোটের ব্যবধানে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

নির্বাচনে ইরানী খানম (বক) পেয়েছেন দুই হাজার ৪৪৭ ভোট ও তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী রুবি বেগম (কলম) পেয়েছেন দুই হাজার ৯৮ ভোট।

ইরানী খানম বলেন, তিনি ফরিদপুর সরকারি রাজেন্দ্র কলেজ থেকে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিষয়ে সম্মান শ্রেণিতে স্নাতকোত্তর করেন। শ্বশুর স্কুলশিক্ষক মরহুম সুলতান আহম্মেদ এলাকায় সম্মানিত ব্যক্তি ছিলেন। এলাকাবাসী তাকে নির্বাচনে দাঁড়াতে উৎসাহিত করেন। প্রথমবারই নির্বাচন করে গৃহিণী থেকে সংরক্ষিত মহিলা সদস্য নির্বাচিত হয়েছি।

তিনি আরও বলেন, তিনটি ওয়ার্ড নিয়ে সংরক্ষিত মহিলা আসন। এখানে কাজ করার সুযোগ রয়েছে। তিনি নারী শিক্ষার প্রসার, যৌতুক, বাল্যবিবাহ ও নারী নির্যাতন প্রতিরোধে সবার সহযোগিতা নিয়ে কাজ করতে চান।

স্বামী দৈনিক যুগান্তরের উপজেলা প্রতিনিধি মাসুদ রানা বলেন, তাদের পরিবার রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত। জনসেবা ও মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য স্ত্রীকে জনপ্রতিনিধি হওয়ার জন্য পাশে থেকে উৎসাহ দিয়েছি।

ইউপি নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা কৃষি অফিসার মো. আব্দুস নোবাহান এ ফল ঘোষণা দেন। ইরানী খানম নির্বাচিত হয়েছেন বলে জানান তিনি।

ইউপি নির্বাচন: মহম্মদপুরের মহিলা সদস্য হলেন ইরানী

 মহম্মদপুর (মাগুরা) প্রতিনিধি 
০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:৩৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ইরানী খানম
ইরানী খানম। ছবি: যুগান্তর

মাগুরার মহম্মদপুর উপেজলা সদর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে যুগান্তরের সাংবাদিকের স্ত্রী ইরানী খানম জয়ী হয়েছেন।

তৃতীয় ধাপের তফসিলে রোববার ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। তিনি দৈনিক যুগান্তরের উপজেলা প্রতিনিধি মাসুদ রানার স্ত্রী।

সদর ইউনিয়নের ৭,৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য (মেম্বার) পদে মোট চার প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। এতে ইরানী খানম বক প্রতীকে ৩৪৯ ভোটের ব্যবধানে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

নির্বাচনে ইরানী খানম (বক) পেয়েছেন দুই হাজার ৪৪৭ ভোট ও তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী রুবি বেগম (কলম) পেয়েছেন দুই হাজার ৯৮ ভোট।

ইরানী খানম বলেন,  তিনি ফরিদপুর সরকারি রাজেন্দ্র কলেজ থেকে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিষয়ে সম্মান শ্রেণিতে স্নাতকোত্তর করেন। শ্বশুর স্কুলশিক্ষক মরহুম সুলতান আহম্মেদ এলাকায় সম্মানিত ব্যক্তি ছিলেন। এলাকাবাসী তাকে নির্বাচনে দাঁড়াতে উৎসাহিত করেন। প্রথমবারই নির্বাচন করে গৃহিণী থেকে সংরক্ষিত মহিলা সদস্য নির্বাচিত হয়েছি।

তিনি আরও বলেন, তিনটি ওয়ার্ড নিয়ে সংরক্ষিত মহিলা আসন। এখানে কাজ করার সুযোগ রয়েছে। তিনি নারী শিক্ষার প্রসার, যৌতুক, বাল্যবিবাহ ও নারী নির্যাতন প্রতিরোধে সবার সহযোগিতা নিয়ে কাজ করতে চান।

স্বামী দৈনিক যুগান্তরের উপজেলা প্রতিনিধি মাসুদ রানা বলেন, তাদের পরিবার রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত। জনসেবা ও মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য স্ত্রীকে জনপ্রতিনিধি হওয়ার জন্য পাশে থেকে উৎসাহ দিয়েছি।

ইউপি নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা কৃষি অফিসার মো. আব্দুস নোবাহান এ ফল ঘোষণা দেন। ইরানী খানম নির্বাচিত হয়েছেন বলে জানান তিনি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন