ভোট কেন্দ্রে গুলিতে নিহত ৩ জনের লাশ হস্তান্তর
jugantor
ভোট কেন্দ্রে গুলিতে নিহত ৩ জনের লাশ হস্তান্তর

  পীরগঞ্জ (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি  

০১ ডিসেম্বর ২০২১, ২১:৩৯:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

২৮ নভেম্বর তৃতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে বিজিবির গুলিতে নিহত ৩ জনের লাশ ময়নাতদন্ত শেষে পুলিশ মঙ্গলবার রাতে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছে।

এদিকে পুলিশ বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ৭০০ জনের বিরুদ্ধে মামলা করায় এলাকায় পুলিশি আতঙ্ক বিরাজ করছে। ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়েছেন অনেকে।

জানা যায়, এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে হাবিবপুর গ্রামের দিনমজুর সাহাবলি ওরফে হুসেন (৩৫) ও মাজাহারুলের (৪০) এবং ঘিডোব গ্রামের এইচএসসি পরীক্ষার্থী আদিত্যর (১৮) লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

এ সময় এক হৃদয়বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়। কান্নায় ভেঙে পড়েন পরিবারের সদস্যরা। তারা ছাড়াও চোখের জলে কাপড় ভিজিয়েছেন এলাকার শত শত নারী-পুরুষ।

এর আগে সকালে নিহতদের বাড়িতে যান ঠাকুরগাঁও-৩ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য জাহিদুর রহমান, উপজেলা চেয়ারম্যান আখতারুল ইসলাম ও নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মো. সহিদ। তারা নিহতদের স্বজনদের সান্ত্বনা দেন।

এদিকে হতাহতের ঘটনায় পুলিশের এসআই হামিদ মণ্ডল বাদী হয়ে সোমবার রাতে থানায় অজ্ঞাতনামা ৭০০ গ্রামবাসীর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। এতে গ্রেফতার আতঙ্ক দেখা দিয়েছে গ্রামবাসীর মাঝে। এরই মধ্যে এলাকা ছেড়েছেন অনেকে।

ঘিডোব গ্রামের বকুল চন্দ্রসহ স্থানীয়রা জানান, রাতে তাদের এলাকার পুরুষ লোক বাড়িতে থাকতে ভয় পাচ্ছেন। তাদের মধ্যে গ্রেফতার আতঙ্ক বিরাজ করছে।

হতাহতের ঘটনায় বুধবার দুপুরে পুলিশের রংপুর রেঞ্জের এডিশনাল ডিআইজি শাহ মিজান শাফিউর রহমান শফি ঘিডোব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্র পরিদর্শন করেন এবং এলাকার লোকজনের সাক্ষ্য নেন।

পরে এলাকাবাসীর উদ্দেশে সাংবাদিকদের কাছে তিনি বলেন, হতাহতের ঘটনায় কোনো নিরীহ মানুষকে হয়রানি করা হবে না। তাই এ নিয়ে গ্রামবাসীদের আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। সঠিক তদন্ত করে কেবলমাত্র দোষীদের বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ সময় জেলা ও উপজেলা পুলিশ প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, ঘিডোব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে ভোটের ফলাফলকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে বিজিবির গুলিতে ৩ জন মারা যায়। আহত হয় ৫ জন।

ভোট কেন্দ্রে গুলিতে নিহত ৩ জনের লাশ হস্তান্তর

 পীরগঞ্জ (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি 
০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৯:৩৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

২৮ নভেম্বর তৃতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে বিজিবির গুলিতে নিহত ৩ জনের লাশ ময়নাতদন্ত শেষে পুলিশ মঙ্গলবার রাতে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছে।

এদিকে পুলিশ বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ৭০০ জনের বিরুদ্ধে মামলা করায় এলাকায় পুলিশি আতঙ্ক বিরাজ করছে। ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়েছেন অনেকে।

জানা যায়, এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে হাবিবপুর গ্রামের দিনমজুর সাহাবলি ওরফে হুসেন (৩৫) ও মাজাহারুলের (৪০) এবং ঘিডোব গ্রামের এইচএসসি পরীক্ষার্থী আদিত্যর (১৮) লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

এ সময় এক হৃদয়বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়। কান্নায় ভেঙে পড়েন পরিবারের সদস্যরা। তারা ছাড়াও চোখের জলে কাপড় ভিজিয়েছেন এলাকার শত শত নারী-পুরুষ।

এর আগে সকালে নিহতদের বাড়িতে যান ঠাকুরগাঁও-৩ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য জাহিদুর রহমান, উপজেলা চেয়ারম্যান আখতারুল ইসলাম ও নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মো. সহিদ। তারা নিহতদের স্বজনদের সান্ত্বনা দেন।

এদিকে হতাহতের ঘটনায় পুলিশের এসআই হামিদ মণ্ডল বাদী হয়ে সোমবার রাতে থানায় অজ্ঞাতনামা ৭০০ গ্রামবাসীর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। এতে গ্রেফতার আতঙ্ক দেখা দিয়েছে গ্রামবাসীর মাঝে। এরই মধ্যে এলাকা ছেড়েছেন অনেকে।

ঘিডোব গ্রামের বকুল চন্দ্রসহ স্থানীয়রা জানান, রাতে তাদের এলাকার পুরুষ লোক বাড়িতে থাকতে ভয় পাচ্ছেন। তাদের মধ্যে গ্রেফতার আতঙ্ক বিরাজ করছে।

হতাহতের ঘটনায় বুধবার দুপুরে পুলিশের রংপুর রেঞ্জের এডিশনাল ডিআইজি শাহ মিজান শাফিউর রহমান শফি ঘিডোব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্র পরিদর্শন করেন এবং এলাকার লোকজনের সাক্ষ্য নেন।

পরে এলাকাবাসীর উদ্দেশে সাংবাদিকদের কাছে তিনি বলেন, হতাহতের ঘটনায় কোনো নিরীহ মানুষকে হয়রানি করা হবে না। তাই এ নিয়ে গ্রামবাসীদের আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। সঠিক তদন্ত করে কেবলমাত্র দোষীদের বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ সময় জেলা ও উপজেলা পুলিশ প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, ঘিডোব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে ভোটের ফলাফলকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে বিজিবির গুলিতে ৩ জন মারা যায়। আহত হয় ৫ জন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন