মেয়র আব্বাসের পিএস ও ভাইকে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ
jugantor
মেয়র আব্বাসের পিএস ও ভাইকে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ

  রাজশাহী ব্যুরো  

০১ ডিসেম্বর ২০২১, ২৩:৪২:৪০  |  অনলাইন সংস্করণ

আলোচিত মেয়র আব্বাস আলীর ব্যক্তিগত সহকারী (পিএস) জহুরুল ইসলাম লিটন এবং তার ছোটভাই মনিরুল ইসলাম রিপনকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে কাটাখালি বাজার থেকে সাদা পোশাকে কয়েকজন তাদের মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যান।

পরিবার এবং প্রত্যক্ষদর্শীরা এমনই দাবি করছেন। লিটন ও রিপন মেয়র আব্বাসের চাচাতো ভাই।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, কাটাখালি বাজারে পিএস লিটন ও তার ভাই রিপনের ‘একতা হোটেল’ নামে একটি খাবারের হোটেল আছে। ওই হোটেল থেকেই প্রথমে লিটনকে একটি মাইক্রোবাসে তুলে নেওয়া হয়। এরপর লিটনের ভাই রিপনকেও তুলে নিয়ে যাওয়া হয়।

একতা হোটেলের ব্যবস্থাপক লিটনের ভাতিজা সাব্বির হাসান জয় বলেন, তুলে নিয়ে যাওয়ার চিত্র তাদের ক্লোজ সার্কিট (সিসি) ক্যামেরায় রেকর্ড হয়েছে। মাইক্রোবাসের নম্বরও আছে।

পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, দুজনকে তুলে নিয়ে যাওয়ায় তারা থানায় কোনো সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেননি।

রিপনের স্ত্রী সুমাইয়া খাতুন জানান, স্বামী রিপনের সঙ্গে তার মোবাইল ফোনে কথা হয়েছে। রিপন তাকে বলেছেন- যেখানেই আছেন, ভালো আছেন। তবে কারা তুলে নিয়ে গেছে, কোথায় আছেন সে বিষয়ে কিছু জানাননি।

তবে র‌্যাব-৫, রাজশাহীর কর্মকর্তারা বলেন, মেয়র আব্বাস ঢাকায় র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার হয়েছেন। এ খবর আছে। অন্য কাউকে র‌্যাব তুলে আনেনি।

রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) মুখপাত্র গোলাম রুহুল কুদ্দুসও একই কথা বলেছেন।

মেয়র আব্বাসের পিএস ও ভাইকে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ

 রাজশাহী ব্যুরো 
০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১১:৪২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আলোচিত মেয়র আব্বাস আলীর ব্যক্তিগত সহকারী (পিএস) জহুরুল ইসলাম লিটন এবং তার ছোটভাই মনিরুল ইসলাম রিপনকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে কাটাখালি বাজার থেকে সাদা পোশাকে কয়েকজন তাদের মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যান।

পরিবার এবং প্রত্যক্ষদর্শীরা এমনই দাবি করছেন। লিটন ও রিপন মেয়র আব্বাসের চাচাতো ভাই।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, কাটাখালি বাজারে পিএস লিটন ও তার ভাই রিপনের ‘একতা হোটেল’ নামে একটি খাবারের হোটেল আছে। ওই হোটেল থেকেই প্রথমে লিটনকে একটি মাইক্রোবাসে তুলে নেওয়া হয়। এরপর লিটনের ভাই রিপনকেও তুলে নিয়ে যাওয়া হয়।

একতা হোটেলের ব্যবস্থাপক লিটনের ভাতিজা সাব্বির হাসান জয় বলেন, তুলে নিয়ে যাওয়ার চিত্র তাদের ক্লোজ সার্কিট (সিসি) ক্যামেরায় রেকর্ড হয়েছে। মাইক্রোবাসের নম্বরও আছে।

পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, দুজনকে তুলে নিয়ে যাওয়ায় তারা থানায় কোনো সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেননি।

রিপনের স্ত্রী সুমাইয়া খাতুন জানান, স্বামী রিপনের সঙ্গে তার মোবাইল ফোনে কথা হয়েছে। রিপন তাকে বলেছেন- যেখানেই আছেন, ভালো আছেন। তবে কারা তুলে নিয়ে গেছে, কোথায় আছেন সে বিষয়ে কিছু জানাননি।

তবে র‌্যাব-৫, রাজশাহীর কর্মকর্তারা বলেন, মেয়র আব্বাস ঢাকায় র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার হয়েছেন। এ খবর আছে। অন্য কাউকে র‌্যাব তুলে আনেনি।

রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) মুখপাত্র গোলাম রুহুল কুদ্দুসও একই কথা বলেছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন